টাইমলাইনভাইরালআন্তর্জাতিক

কাশ্মীরে ভারতের অত্যাচারের কোন প্রমাণই নেই পাকিস্তানের কাছে, আন্তর্জাতিক আদালতে জানালো পাক আইনজীবী

বাংলা হান্ট ডেস্কঃ আন্তর্জাতিক আদালতে পাকিস্তানের আইনজীবী খাবর কুরেশি বলেন, কাশ্মীরে নরসংহারের ইমরান খানের দাবি প্রমাণ করা খুবই মুশকিল হবে। কুরেশি বলেন, পাকিস্তানের কাছে এমন কোন প্রমাণ নেই যে, যেটা ইমরান খানের দাবিকে সত্য প্রমাণিত করবে। তিনি বলেন, গোটা বিশ্বই কাশ্মীরকে ভারতের অংশ বলেই মানে। এটি নিউজ চ্যানেলের সাথে কথা বলার সময় কুরেশি বলেন, পাকা প্রমাণ না থাকার কারণে পাকিস্তানের কাছে কাশ্মীর ইস্যুকে আন্তর্জাতিক আদালতে নিয়ে আসা মুশকিল হবে। উনি বলেন, কাশ্মীরে নরসংহারের কোন প্রমাণ নেই। আর এর জন্য আইসিজি (আন্তর্জাতিক আদালত) এ কাশ্মীর নিয়ে পাকিস্তানের পক্ষ অনেক কমজোর থাকবে।

আপানদের জানিয়ে রাখি, ভারত দ্বারা জম্মু কাশ্মীর থেকে ৩৭০ ধারা তুলে দেওয়ার পর থেকেই পাকিস্তান উন্মাদের মতো ব্যাবহার করছে। পাকিস্তান হুমকি দিয়ে জানিয়েছিল যে, আন্তর্জাতিক আদালতে কাশ্মীর ইস্যু তুলবে তাঁরা। জম্মু কাশ্মীর থেকে বিশেষ রাজ্যের তকমা তুলে দেওয়ার পর গোটা বিশ্বের কাছে একঘরে হয়ে পড়ে পাকিস্তান। আর এরপরেই তাঁরা বারবার ভারতকে যুদ্ধের হুমকি দেয়, এমনকি তাঁরা ভারতে পরমাণু হামলা করবে বলেও হুমকি দেয়। সংযুক্ত রাষ্ট্র সমেত বিশ্বের সমস্ত বড়বড় দেশ গুলোর কাছে বেইজ্জত হওয়ার পরেও পাকিস্তান তাঁদের স্বভাব পাল্টায় নি। পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান ভারত সমেত গোটা বিশ্বকে হুমকি দিয়ে বলেছিলেন যে, কাশ্মীর ইস্যু যদি নজরআন্দাজ করা হয় তাহলে ভারতের সাথে যুদ্ধ হবে আর এই যুদ্ধের জন্য গোটা বিশ্বকে পস্তাতে হবে।

যদিও এরপর সোমবার ইমরান খান ভারতের চাপে পড়ে নিজের কথা থেকে পালটি মারেন। ইমরান খান সোমবার বলেন, পাকিস্তান প্রথমে যুদ্ধ করবে না। উনি বলেন, ‘আমি ভারতকে বলতে চাই যে, যুদ্ধ কোন সমস্যার সমাধান না। যুদ্ধে যারা জয়ী হয় তাঁরাও অনেক কিছু হারায়। যুদ্ধ অনেক সমস্যার জন্ম দেয়।”

Back to top button