এবার ভারতের এই তারকার সঙ্গে হওয়া অন্যায় নিয়ে মুখ খুললেন জাদেজা! BCCI-কে সরাসরি দিলেন দোষ

বাংলা হান্ট নিউজ ডেস্কঃ গত এক বছর ধরে ঈশান কিষাণ (Ishan Kishan) যখনই ভারতীয় দলে (Indian Cricket Team) সময় পেয়েছেন, তখনই ধারাবাহিকভাবে পারফরম্যান্স করেছেন। ওডিআই ফরম্যাটে তার নামের পাশে দ্বিশতরান ছিল। তা সত্ত্বেও তাকে সুযোগ না দিয়ে শুভমান গিলকে, রোহিতের ওপেনিং পার্টনার হিসাবে বেছে নেয় ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ড (BCCI)।

   

এরপর কিছু গুরুত্বপূর্ণ তারকার চোটের কারণে গত এশিয়া কাপে তিনি ভারতের হয়ে মিডল অর্ডারে ব্যাটিং করার সুযোগ পান। সেখানেও তিনি কিছু গুরুত্বপূর্ণ ইনিংস খেলে নিজের জাত চিনিয়ে দেন। কিন্তু শ্রেয়স আইয়ার এবং লোকেশ রাহুল সুস্থ হয়ে ফেরার পর পারফরম্যান্স করা সত্ত্বেও জায়গা হারাতে হয়ে থাকে। হার্দিক পান্ডিয়া বিশ্বকাপ চলাকালীন চোট পেয়ে ছিটকে যাওয়ার পরে তার জায়গায় ওডিআই ফরম্যাটে সুপার ফ্লপ সূর্যকুমার যাদবকে জায়গা দেওয়া হয় কিন্তু ঈশান বঞ্চিতই থাকেন।

ishan kishan pak

এরপর বিশ্বকাপ শেষ হওয়ার পর অস্ট্রেলিয়ার বিরুদ্ধে টি-টোয়েন্টি সিরিজে ঈশান সুযোগ পান কিন্তু সেখানেও তাকে ওপেনিংয়ের বদলে তিন নম্বরে ব্যাটিং করতে বলা হয়। টি-টোয়েন্টিতে নিজের সেরা ছন্দে ছিলেন না এই ক্রিকেটার। কিন্তু অস্ট্রেলিয়ার বিরুদ্ধে এই সিরিজে তিনটি ম্যাচ খেলে প্রথম দুটি ম্যাচে তিনি দুর্দান্ত হাফসেঞ্চুরি করেন।

আরও পড়ুন: এই ক্রিকেটারকে ভারতীয় দল থেকে বাদ দিয়েছিল BCCI! টানা ২ বার ম্যাচের সেরা হয়ে যোগ্য জবাব দিলেন তিনি

অনেকেই ভেবেছিলেন যে এবার হয়তো তাকে ধারাবাহিকভাবে এই জায়গায় সুযোগ দিতে থাকবে ভারতীয় টিম ম্যানেজমেন্ট। কিন্তু তৃতীয় ম্যাচে ব্যাট হাতে ব্যর্থ হওয়ার পাশাপাশি কিপিংয়ে কিছু ভুল করার দরুন চতুর্থ ম্যাচেই তাকে বাদ দিয়ে শ্রেয়স আইয়ার এবং উইকেটরক্ষক হিসেবে জিতেশ শর্মাকে দলে নিয়ে আসা হয় এবং দুজনেই ভালো পারফরম‍্যান্স করেন।

আরও পড়ুন: ২ বছর আগের ঝামেলা নিয়ে ফের সরগরম ভারতীয় ক্রিকেট! কোহলিকে মিথ্যাবাদী প্রমাণের চেষ্টা সৌরভের?

এবার ঈশান কিষাণের সঙ্গে হওয়া অন্যায় নিয়ে মুখ খুললেন প্রাক্তন ভারতীয় তারকা অজয় জাদেজা। বিশ্বকাপ চলাকালীন তিনি আফগানিস্তান শিবিরের সঙ্গে ছিলেন। তবে ভারতীয় ক্রিকেটারদের খোঁজ রাখছিলেন তিনি। অস্ট্রেলিয়ার বিরুদ্ধে সিরিজে ৩ ম্যাচ খেলে ঈশান বাদ পড়তেই তিনি মন্তব্য করেন, “বিশ্বকাপের পরপরই একটি সিরিজ ছিল। ঈশান কিশান ৩টি ম্যাচ খেলেন এবং বাড়ি চলে যান (বিশ্রাম নিয়ে)। তিনি কি সত্যিই ৩টি ম্যাচের পর ক্লান্ত হয়ে পড়েছিলেন? এমনকি তিনি বিশ্বকাপেও বেশি ম্যাচ খেলেননি। বিশ্বকাপের প্রথম কয়েকটি ম্যাচের জন্য তিনি একাদশে জায়গা পাওয়ার যোগ্য। কতজন ভারতীয় খেলোয়াড় একটি ভালো দিনে ডাবল সেঞ্চুরি করেছেন?”