৩ মাসেরও বেশি জলের তলায়! একধাক্কায় বয়স কমল ১০ বছর! অবাক করবে এই প্রৌঢ়ের কাহিনী

   

বাংলাহান্ট ডেস্ক : বয়স বৃদ্ধি পেলে অনেক সময় হতাশা গ্রাস করে মানুষকে। মনে হয় যেন, যদি বয়সটা কমিয়ে ফেলা যেত। কিন্তু জানেন কি এরকম ভাবনার সাথে সাথে কাজেও করিয়ে দেখিয়েছেন এক আমেরিকার (United States of America) নৌবাহিনীর অবসরপ্রাপ্ত কর্মী? অবাক হচ্ছেন তো! তিন তিনটে মাস ও জলের নিচে কাটিয়ে একেবারে দশ বছর কমিয়ে ফেললেন নিজের বয়স।

মানুষের শরীরে চাপযুক্ত পরিবেশে জলের নীচে বসবাসের প্রভাব ঠিক কেমন হয়? এই গবেষণার জন্য বিজ্ঞানীরা আমেরিকান নৌবাহিনীর এক অবসরপ্রাপ্ত কর্মীকে বেছে নেন। ওই কর্মী জোসেফ ডিটুরি প্রায় তিন মাস জলের তলায় বসবাস করেছেন। তারপরেই কেল্লা ফতে! আটলান্টিক মহাসাগরের গভীরে একটি কম্প্যাক্ট কোড এর মধ্যে থেকে ৯৩ দিন পর জোসেফকে বার করা হয়।

আরোও পড়ুন : চাইছেন টিকিট কাটতে, অথচ পারছেন না! অবাক লাগছে? এই স্টেশন থেকে ফ্রি’তেই হচ্ছে যাত্রা

দেখা গেল, প্রায় দশ বছর কমে গিয়েছে তাঁর বয়স। পরীক্ষার এমন ফলাফল দেখে হতবাক হয়ে গিয়েছেন বিজ্ঞানীরা। জল থেকে বেরিয়ে আসার পর ওই ব্যক্তির শারীরিক পরীক্ষা-নিরীক্ষাও করা হয়েছে। সেখানে দেখা গেছে, ক্রোমোজ়োমের শেষ প্রান্তে থাকা বয়সের সঙ্গে সংকুচিত হওয়া ডিএনএ ক্যাপগুলি তিন মাস আগের তুলনায় কুড়ি শতাংশ বৃদ্ধি পেয়েছে। এমনকি তিন মাস জলের নিচে কাটানোর পর তাঁর স্টেম সেলের সংখ্যাও বেড়েছে বলে জানান বিজ্ঞানীরা।

আরোও পড়ুন : এবার আয়কর নোটিশ আসতে পারে অনলাইন পেমেন্ট করলেও! জানা আছে বাঁচার উপায়?

গবেষণায় দেখা গিয়েছে যে, অনেক ইতিবাচক পরিবর্তন এসেছে ৫৬ বছর বয়সী জোসেফের শরীরে। দূর হয়েছে অনিদ্রার সমস্যা, শরীরে থাকা খারাপ কোলেস্টেরলের মাত্রাও কমে গিয়েছে। দীর্ঘদিন ধরে জলের নিচে থাকার কারণেই এমন পরিবর্তন হয়েছে বলে জানাচ্ছেন বিজ্ঞানীরা। এদিকে জোসেফ বলেন, কেন সকলের এমন অভিজ্ঞতা প্রয়োজন।

জোসেফের কথায়, “বাইরের জগৎ আর কাজকর্ম থেকে একেবারে বিচ্ছিন্ন থাকতে এই ধরনের অভিজ্ঞতা সকলেরই দরকার। দু’ সপ্তাহ জলের তলায় কাটালে কোনও রকম ওষুধ ছাড়াই আপনার শরীর একেবারে চাঙ্গা লাগবে। জলের তলায় তিন মাস কাটানোর পর আমার বিপাকহার বেড়েছে।”ইতিমধ্যেই জোসেফ জলের তলায় থাকার বিশ্ব রেকর্ড গড়েছেন। ইতিপূর্বে সর্বোচ্চ ৭৩ দিন জলের নিচে কাটানোর অভিজ্ঞতা রয়েছে তাঁর।

Avatar
Soumita

আমি সৌমিতা। বিগত ৩ বছর ধরে কর্মরত ডিজিটাল সংবাদমাধ্যমে। রাজনীতি থেকে শুরু করে ভ্রমণ, ভাইরাল তথ্য থেকে শুরু করে বিনোদন, পাঠকের কাছে নির্ভুল খবর পৌঁছে দেওয়াই আমার একমাত্র লক্ষ্য।

সম্পর্কিত খবর