টাইমলাইনআন্তর্জাতিক

পাপের ফল ভুগছে চীন, জিনপিংয়ের আগ্রাসন নীতির ফলে ক্ষতি প্রায় ৯৫ হাজার কোটি টাকা

বাংলাহান্ট ডেস্কঃ অন্যান্য দেশের উপর আধিপত্য বিস্তারের স্বভাব চীনের (china) বহুদিনের। জোর করে ভয় দেখিয়ে, অন্যের জমি আত্মস্মাৎ করা তো বলতে গেলে চীনের অধিকারের মধ্যেই পড়ে, এবার সমস্ত অপকর্মের ফল ভুগতে হচ্ছে চীন সরকার জিনপিংকে। প্রকৃতির রোষের চীনের বন্যা পরিস্থিতি ১০০০ বছরের রেকর্ড ভেঙে দিয়েছে।

অন্য দেশের উপর যেমন কৃতৃত্ব ফলাতে যায় চীন, তেমনই নিজের দেশেও একের পর এক প্রকৃতি বিরুদ্ধ কাজ করেছে জিনপিং সরকার। কখনও নদীর গতিপথ পরিবর্তন করে এবং নদী সংকীর্ণ করে চলেছে শহর গড়ে তোলার কাজ, আবার কখনও সবুজ ভূমি উচ্ছেদ করে গড়ে তুলেছে একের পর এক কংক্রিটের শহর।

সম্প্রতি দিনে হেনান প্রদেশে যে বন্যা পরিস্থিতি তৈরি হয়েছে, তার জন্য পুরোপুরি চীন সরকারকেই দায়ী করছে চীনবাসী। বন্যা সহ অন্যান্য প্রাকৃতিক দুর্যোগ মোকাবিলার জন্য যেসকল ড্যাম প্রস্তুত করেছিল চীন সরকার, তাও এখানে ব্যর্থ হয়েছে বন্যার জল আটকাতে। সবকিছু ছাপিয়ে গিয়ে ১০০০ বছরের রেকর্ড ভেঙে দিয়েছে এই মরশুমের চীনের বন্যা পরিস্থিতি।

ধারণা করা হচ্ছে, এই বন্যার কবলে পড়ে চীনের প্রায় ১৫০ জন প্রাণ হারিয়েছেন। কিন্তু চীন সরকার জানিয়েছে, মৃতের সংখ্যা প্রায় ৪০ জন। তবে মৃতের সংখ্যা নিয়ে তথ্য গোপন করলেও, ধারণা করা হচ্ছে, এই বন্যার ফলে চীনের প্রায় কমপক্ষে ১০ বিলিয়ন ডলার ক্ষতি হয়েছে। যা কোন দেশের আর্থিক বাজেটের সমান। তবে বিশেষজ্ঞদের ধারণা, প্রায় ৯৫ হাজার কোটি টাকার ক্ষতির মুখোমুখি এখন চীন সরকার। পাশাপাশি স্যোশাল মিডিয়াতেও এই বন্যার নানারকম ভয়াবহ দৃশ্যের ভিডিও ভাইরাল হতেও দেখা গিয়েছে।

Related Articles

Back to top button