৩৫০ কিমি হেঁটে পৌঁছেছিলেন অযোধ্যা, হন গুলিবিদ্ধ! রামমন্দির উদ্বোধনের আমন্ত্রণ পত্র পেলেন আসানসোলের অভয়

বাংলা হান্ট ডেস্ক : রামভক্ত প্রত্যেককেই সাদরে আমন্ত্রণ জানাচ্ছে শ্রীরাম জন্মভূমি তীর্থক্ষেত্র ট্রাস্ট। দীর্ঘ ৩৪ বছর আগে অযোধ্যায় (Ayodhya) গিয়ে যে করসেবক গুলিবিদ্ধ হয়েছিলেন এইদিন তার কাছেও পৌঁছে গেল রামমন্দির (Ram Mandir) উদ্বোধনের আমন্ত্রণ পত্র। বছর শুরুতেই এতবড় উপহার পেয়ে আনন্দে আত্মহারা হয়ে উঠলেন অভয় বার্নোয়াল (Abhay Barnwal)।

   

সূত্রের খবর, এইদিন আসানসোলের এই করসেবকের বাড়িতে পৌঁছে গেছে লাল ও সোনালি রঙের আমন্ত্রণ পত্র। সেখানে রয়েছে অভয়বাবুর জন্য আলাদা বার কোড, থাকা-খাওয়ার জন্য আলাদা কুপন। যা দেখে আনন্দাশ্রুতে ভরে উঠল অভয়বাবুর দু’চোখ। তবে কী এমন হয়েছিল আজ থেকে ৩৪ বছর আগে? ১৯৯০ সালের সেই ইতিহাসকেই তুলে আনলেন আসানসোলের অভয় বার্নোয়াল।

আজকের দিনে অভয় বার্নোয়ালের বয়স প্রায় ৫৩ বছর। তিনি থাকেন আসানসোলের হটনরোড মাস্টার পাড়ার আচলাবালা লেনে। ১৯৯০ সালের ৩০ অক্টোবর করসেবক হয়ে তিনি পৌঁছেছিলেন অযোধ্যায়। সেইসময় অযোধ্যায় ১৪৪ ধারা জারি থাকার কারণে প্রবেশ নিষিদ্ধ করা হয়েছিল। তবে কিছু করসেবক জোর পূর্বক প্রবেশ করেছিল শহরে। তাদের মধ্যে ছিলেন অভয় বার্নোয়ালও। গুলিবিদ্ধ অবস্থায় অচেতন হয়ে পড়েছিলেন তিনি।

আরও পড়ুন : পাকিস্তানের পোলিও সুরক্ষা দলকে লক্ষ্য করে বোমা, নিহত পাঁচ পুলিশকর্মী, আহত একাধিক

এই প্রসঙ্গে অভয়বাবু জানিয়েছেন, ১৯৯০ সালের ২১ অক্টোবর আসানসোল থেকে ৮৫ জন করসেবক অযোধ্যায় পাড়ি দিয়েছিলেন। যার মধ্যে ছিলেন অভয় বার্নোয়ালও। তারমধ্যেই ৮০ জন করসেবককে গ্রেফতার করে নেয় তৎকালীন মুলায়ম সিং যাদব সরকারের পুলিশ। তারপর তিনি একাই পায়ে হেঁটে অযোধ্যার উদ্দেশ্যে পাড়ি দেন।

আরও পড়ুন : খাবারে বিষক্রিয়া! আমূলের দইয়ের উপর নিষেধাজ্ঞা জারি করল পশ্চিমবঙ্গ সরকার

large image asansol ram

জেনে অবাক হবেন যে, প্রায় ৩৫০ কিলোমিটার রাস্তা পায়ে হেঁটে পাড়ি দিয়েছিলেন তিনি। এবং অবশেষে তিনি অযোধ্যায় পৌঁছেছিলেন ২৮ অক্টোবর। তার ঠিক দু’দিন পরেই রামের ধ্বজা নিয়ে মন্দিরের চূড়ায় উঠে যান তিনি। সেখান থেকে নীচে নেমে তিনি দেখেন পুলিশ করসেবকদের লক্ষ্য করে এলোপাথাড়ি গুলি চালাচ্ছে। অভয় বার্নোয়াল বলেন, ‘আমার সামনে কয়েকজন গুলিবিদ্ধ হয়ে পড়ে যায়। এতদিন পরে রামমন্দির উদ্বোধন হচ্ছে। আমন্ত্রণের চিঠি পেয়ে আরও খুশি।’