বিশ্বকাপে বিশ্বরেকর্ড! রাঁচিন রবীন্দ্রর দুর্দান্ত শতরানকে ব্যর্থ করে জয় কামিন্সের অস্ট্রেলিয়ার

   

বাংলা হান্ট নিউজ ডেস্কঃ ম্যাচের প্রথম ইনিংসের ৪৮ তম ওভার। বল হাতে রয়েছেন কিউয়ি অলরাউন্ডার জিমি নিশাম (James Neesham)। তার সামনে ব্যাট হাতে অধিনায়ক প্যাট কামিন্স (Pat Cummins)। কিন্তু এই যুদ্ধে জয়ী হলেন অস্ট্রেলিয়ান অধিনায়ক। প্রথম ইনিংসে ৪৮ তম ওভারে উঠল ২৭ রান। আর ট্র্যাভিস হেডের (Travis Head) শতরান বা অ্যাডাম জাম্পার বোলিং নয়, সেই ওভারটাই তফাৎ গড়ে দিয়ে গেল অস্ট্রেলিয়া বনাম নিউজিল্যান্ডের (Australia vs New Zealand) এই ম্যাচে। নিশাম ব্যাট হাতে নিজের ভুলের প্রায়শ্চিত্ত করার মরিয়া চেষ্টা করলেও ললাটের লিখনটা বদলাতে পারেননি। ৩৮৮ রান তুলেও চিন্তায় থাকা অস্ট্রেলিয়া শেষপর্যন্ত বিশ্বকাপের (2023 ODI World Cup) গুরুত্বপূর্ণ ম্যাচে জয় পেল পাঁচ রানের ব্যবধানে।

আজ টসে জিতে নিউজিল্যান্ড প্রথমে ব্যাটিং করতে পাঠিয়েছিল অস্ট্রেলিয়াতে। ধর্মশালায় ব্যাট হাতে তান্ডব নৃত্য করেন ডেভিড ওয়ার্নার ও চোট সারিয়ে ফেরা তার সঙ্গী হেড। ওয়ার্নার ৮১ এবং হেড ১০৯ রানের বিধ্বংসী ইনিংস খেলেন। অস্ট্রেলিয়া যে ৪০০ রানের গণ্ডি অতিক্রম করতে পারেনি তার মূল কারণ ছিল অলরাউন্ডার গ্লেন ফিলিপ্সের স্পিন বোলিং।

nz

মাত্র ৩৭ রান খরচ করে নিজের দশ ওভারে ওয়ার্নার হেড এবং স্টিভ স্মিথের দামি তিনটি উইকেট তুলে নেন ফিলিপ্স। তবে তাতে অস্ট্রেলিয়াকে পুরোপুরি রাখা যায়নি। শেষদিকে ব্যাট হাতে জ্বলে ওঠেন ম্যাক্সওয়েল (৪১) এবং ইংলিশ (৩৮)। তবে আসল বিপজ্জনক কাজ করেন অধিনায়ক কামিন্স। তার ৩৭ রানের ইনিংসটি ছিল মাত্র ১৪ বলে খেলা এবং চারটি ছক্কা ও দুটি চার দিয়ে সাজানো। শেষদিকে বোল্ট এক ওভারে তিন উইকেট না নিলে রান ৪০০-র গণ্ডি টপকাতেও পারতো।

আরও পড়ুন: বিশ্বকাপে চমক! অসাধারণ ফর্মে থাকলেও ওয়ার্নারের কাছে এই সম্মান হাতছাড়া করলেন কোহলি

রাম তারা করতে নেবে শুরুটা দুর্দান্ত করেছিলেন নিউজিল্যান্ডের দুই ওপেনার কনওয়ে ও ইয়ং। কিন্তু তারা বড় ইনিংস খেলতে পারেননি। ব্যাটিং করা ড্যারেল মিচেল এবং রাঁচিন রবীন্দ্র আজকেও হাল ধরেন নিউজিল্যান্ডের। দুজনের মধ্যে হওয়া ৯৬ রানের পার্টনারশিপটি যতক্ষণ চলেছিল ততক্ষণ অনেকেরই মনে হচ্ছিল যে নিউজিল্যান্ড এই ম্যাচ বার করে নেবে।

আরও পড়ুন: অল্পের জন্য রক্ষা পেলেন রোহিত শর্মা! বিশ্বকাপের মঞ্চে ভারত অধিনায়কের সম্মান বেঁচে গেল

কিন্তু মিচেল ৫৪ রান করে জাম্পার শিকার হন। তার পাশাপাশি ল্যাথাম এবং স‍্যান্টনারের উইকেট তুলে আজও সফল অজি বোলার হলেন জাম্পা (৩/৭৪)। কিন্তু এক দিক দিয়ে লড়াইটা চালিয়ে যাচ্ছিলেন রবীন্দ্র। টুর্নামেন্টের প্রথম ম্যাচে ইংল্যান্ডের বিরুদ্ধে শত রান করার পর আজ ফের শতরান করেন তিনি। কিন্তু ৮৯ বলে ১১৬ রান করার পর তিনি ড্রেসিংরুমে ফেরেন কামিন্সের শিকার হয়ে। ব্যাট হাতে অতি গুরুত্বপূর্ণ ইনিংস খেলার পর বল হাতে সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ উইকেটটা নিয়ে নেন অজি অধিনায়ক। তারপরেও লড়াইটা শেষ ওভার অবধি টেনে নিয়ে গিয়েছিলেন প্রথম ইনিংসের ভিলেন জিমি নিশাম। শেষ ওভারে জয়ের জন্য প্রয়োজন ছিল ১৯ রান। কিন্তু শেষ তুই বলে সাত রান বাকি থাকা অবস্থায় রান আউট হন নিশাম (৫৮)। দুরন্ত ফিল্ডিং প্রদর্শন করে অস্ট্রেলিয়া দল। শেষ শহরে কয়েকটি নিশ্চিত বাউন্ডারি বাঁচান ম্যাক্সওয়েল, লাবুশানে। শেষপর্যন্ত ৩৮৩ রানের বেশি তুলতে পারেনি কিউয়িরা।

 

Avatar
Reetabrata Deb

সম্পর্কিত খবর