নতুন বছরের আগেই দুঃসংবাদ! সংস্থা ধুকতে থাকায় মিলবে না DA, মাথায় হাত রাজ্য সরকারি কর্মীদের

বাংলা হান্ট ডেস্ক: বর্তমান সময়ে দেশের বিভিন্ন রাজ্যে সরকারি কর্মীদের DA (Dearness Allowance) এবং পেনশনভোগীদের DR (Dearness Relief) বৃদ্ধির দাবির বিষয়টি খবরের শিরোনামে উঠে আসছে। এমতাবস্থায়, এবার একটি বড় আপডেট সামনে এসেছে। এই প্রসঙ্গে প্রাপ্ত তথ্য অনুযায়ী জানা গিয়েছে যে, কেরলের (Kerala) রাজ্য বিদ্যুৎ বণ্টন বোর্ডের কর্মচারী এবং পেনশনভোগীদের DA এবং DR-এ বৃদ্ধি ঘটবে না।

   

মূলত, সদ্য অনুষ্ঠিত বোর্ডের সভায় সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে যে, গত বছর থেকে তিন দফায় কর্মীদের গ্র্যাচুইটি ও ভাতা দেওয়ার হবে না। তবে, এহেন সিদ্ধান্তের পেছনের কারণও সামনে এসেছে। জানা গিয়েছে যে, ওই রাজ্যের বিদ্যুৎ বোর্ডের আর্থিক দুরবস্থার বিষয়টি মূল্যায়ন করা হয়। আর ঠিক এই আবহে সংশ্লিষ্ট কর্মীদের DA থেকে শুরু করে DR এবং গ্র্যাচুইটি না দেওয়ার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে বলে জানা গিয়েছে।

Bad news came before the new year for the government employees of this state

এই প্রসঙ্গে জানিয়ে রাখি যে, বর্তমানে কেরলে একাদশ বেতন কমিশন কার্যকর রয়েছে। যার মাধ্যমে কর্মীদের ন্যূনতম বেতনের পরিমাণ হল ২৩ হাজার টাকা। তবে, DA এবং DR-এর প্রসঙ্গে বোর্ডের এহেন সিদ্ধান্তে সরাসরি প্রভাবিত হতে চলেছেন কেরলের স্টেট ইলেকট্রিসিটি বোর্ডের কর্মচারী এবং পেনশনভোগীরা।

আরও পড়ুন: “স্মাইল প্লিজ”, সূর্যের গুরুত্বপূর্ণ সব ছবি তুলল আদিত্য L-1! বিজ্ঞানীরা পেলেন বড় তথ্য, জানাল ISRO

উল্লেখ্য যে, কেরলের বিদ্যুৎ বন্টন বোর্ডের কর্মীদের শেষবার ২০২১ সালে বেতন বৃদ্ধি কার্যকর করা হয়েছিল। যার ওপর ভর করে সেইসময়ে একলাফে কর্মীদের বেতন অনেকটাই বৃদ্ধি পেয়েছিল। যদিও, ওই বেতন বৃদ্ধির জন্য সরকারি অনুমতি চাওয়া হয়নি। এমনকি, সিএজি রিপোর্টেও দেখা গিয়েছিল যে, সরকারের অনুমতি ছাড়াই বেতন সংশোধন করা হয়।

আরও পড়ুন: বড় বিপদ! সূর্যে পৃথিবীর মতো ৬০ টি বড়বড় গর্তের খোঁজ পেলেন বিজ্ঞানীরা, হু হু করে বেরোচ্ছে সৌর তরঙ্গ

তবে, এবার ২০২১ সালে বেতন বৃদ্ধি সংক্রান্ত সুখবর পেলেও এবার DA বৃদ্ধি ও গ্র্যাচুইটি থেকে বঞ্চিত হতে হবে সংশ্লিষ্ট কর্মীদের। প্রসঙ্গত উল্লেখ্য, বিগত বহু দিন ধরেই বাইরের রাজ্য থেকে বেশি দামে বিদ্যুৎ কিনছে কেরল। এমন পরি স্থিতিতে, বিদ্যুৎ বোর্ডের চেয়ারম্যানের আদেশে বলা হয়েছে, ওই সংস্থার তীব্র অর্থনৈতিক সঙ্কটের সময়ে কর্মীদের DA ও গ্র্যাচুইটি দেওয়া যাবে না। যার ফলে গত বছরের জানুয়ারি, জুলাই ও চলতি বছরের জানুয়ারির DA এবং গ্র্যাচুইটি থেকে কর্মীরা বঞ্চিত হবেন।