এখন কোহলি, রোহিতরাই ভরসা! সম্মানরক্ষার জন্য ভারতীয় দলকে সমর্থন বাংলাদেশ ভক্তদের

বাংলা হান্ট নিউজ ডেস্কঃ চলতি বিশ্বকাপে (2023 ODI World Cup) ভারতীয় দল (Indian Cricket Team) যদি হয় সবচেয়ে ধারাবাহিক ইতিবাচক পারফরম্যান্স করা দল তাহলে বাংলাদেশ (Bangladesh Cricket Team) হল ধারাবাহিকভাবে সবচেয়ে নেতিবাচক পারফরম্যান্স করা দল। বিশ্বকাপে নিজেদের প্রথম ম্যাচে আফগানিস্তানকে হারানোর পর থেকে ধারাবাহিকভাবে ছয়টি ম্যাচে হার স্বীকার করেছে বাংলাদেশ। এর মধ্যে প্রত্যেকটি ম্যাচেই তারা হেরেছে একপেশেভাবে।

একমাত্র দল হিসেবে এখন তারা বিশ্বকাপ থেকে ছিটকে গিয়েছে। দলের এই অবনতি দেখে হতাশ ভক্তরাও। তবে এই বিশ্বকাপে যে তাদের আর কিছু পাওয়ার নেই এমনটা নয়। এখনো টপ এইটে থাকার জন্য লড়াই করতে পারে তারা। তাহলে দু’বছর পর পাকিস্তানের মাটিতে আয়োজিত হতে চলা আইসিসি চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফিতে তারা অংশগ্রহণ করতে পারবে।

bangladesh 1 team

আইসিসি জানিয়ে দিয়েছে যে আয়োজক পাকিস্তান ছাড়া এই বিশ্বকাপে পয়েন্ট তালিকায় শীর্ষ সাত তল সরাসরি চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফি যোগ্যতা অর্জন করবে যা ২০২৫ সালে পাকিস্তানের মাটিতে আয়োজিত হবে। পাকিস্তান যেহেতু আশা করা যায় টপ সেভেনের মধ্যেই ফিনিশ করবে তাই তাদেরকে বাদ দিলে বাকি টপ এইটা থাকা দলগুলি সরাসরি যোগ্যতা অর্জন করবে ওই টুর্নামেন্টের।

আরও পড়ুন: দেওয়া হয়নি পর্যাপ্ত সুযোগ! রোহিতের ভারতীয় দলের এই তারকা বিশ্বকাপ চলাকালীনই বদলালেন পেশা

কিন্তু সেই কাজটাও এখন যথেষ্ট কঠিন বলে মনে হচ্ছে বাংলাদেশের। কারণ তাদেরকে পরবর্তী ম্যাচগুলি খেলতে হবে অস্ট্রেলিয়া এবং শ্রীলঙ্কার বিরুদ্ধে। আর অস্ট্রেলিয়া এই মুহূর্তে যা ছন্দেহ আছে তাতে কোনওভাবে বাংলাদেশের পক্ষে অঘটন ঘটানো সম্ভব বলে কেউই মনে করছেন না।

আরও পড়ুন: কোহলির সাথে কলকাতায় হবে বিশ্বাসঘাতকতা? BCCI-এর পদক্ষেপে মাটি হবে জন্মদিনের আনন্দ

এক্ষেত্রে ভারতের ওপর যাবতীয় ভরসা করতে হচ্ছে বাংলাদেশকে। ভারতের এখনো যে তিনটি ম্যাচ বাকি রয়েছে সেখানে তাদের খেলতে হবে নেদারল্যান্ডস এবং শ্রীলঙ্কার বিরুদ্ধে। ওই দুই প্রতিপক্ষকে ভারত যদি পরাস্ত করতে পারে তাহলে বাংলাদেশের পক্ষে চ্যাম্পিয়ন ট্রফিতে যোগ্যতা অর্জনের জন্য প্রথম আটে পৌঁছানো সম্ভব। তবে ভারত ওই দুটি ম্যাচে জিতলেও বাংলাদেশকে তখনো শ্রীলঙ্কাকে হারাতে হবে। আর এই মুহূর্তে দলের যা অবস্থা তাতে শ্রীলঙ্কার বিরুদ্ধে ও বাংলাদেশের জয় পাওয়াটা অত্যন্ত কঠিন বলেই মনে করছেন অনেকে।