১৫ই অগাস্টের আগে ‘বিরাট’ দাবি বেহালায়! এবার আরও বিপাকে পার্থ…

বাংলা হান্ট ডেস্কঃ নিয়োগ দুর্নীতি মামলায় গত বছর ২৩ জুলাই (Recruitment Scam) ইডির হারে গ্রেফতার হন রাজ্যের প্রাক্তন শিক্ষামন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায় (Partha Chatterjee)। মন্ত্রীকে তার নাকতলার বাড়ি থেকে গ্রেফতার করে তদন্তকারী সংস্থা। তারপর একটা গোটা বছর পেরিয়ে গেলেও এখনও জেলবন্দি তৃণমূলের প্রাক্তন মহাসচিব। গ্রেফতারির ঠিক পরেই পার্থকে দলের সমস্ত পদ থেকে মুছে ফেলে তৃণমূল। কিন্তু এখনও বেহালা পশ্চিমের বিধায়ক রয়ে গিয়েছেন পার্থ চট্টোপাধ্যায়।

ওদিকে যেহেতু নিয়োগ দুর্নীতি কাণ্ডে নাম জড়ানোর পর এক বছরেরও বেশি সময় ধরে জেলবন্দি পার্থ তাই এলাকার মানুষ চরম অসুবিধায় পড়েছেন। এবার এই ইস্যুকেই মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সামনে তুলতে চাইছে বেহালাবাসী। বেহালাবাসীর আবেদন বেহালা পশ্চিমের (Behala West) দায়িত্ব অন্য কারোর হাতে দিলে তাদের সুবিধা হয়।

প্রসঙ্গত, গতবছর মন্ত্রীর গ্রেফতারির পর ১৪ই আগস্ট ম্যান্টনের বিধায়ক কার্যালয়ের কাছে সভা করেছিলেন তৃণমূল সুপ্রিমো মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় (Mamata Banerjee)। বেহালার সভাতেও গিয়েছিলেন মমতা। আজ আরেকটি ১৪ই অগাস্ট। এবারেও বেহালায় আসবেন মমতা। আর আজই মুখ্যমন্ত্রীর কাছে এই আবেদন রাখতে চায় বেহালাবাসী।

আরও পড়ুন: পার্থর জীবনে নেমে এল গভীর অন্ধকার! প্রাক্তন মন্ত্রীকে ‘অতীত’ করে জায়গা নিল ‘এই’ হেভিওয়েট

এই বিষয়ে প্রথম সারির এক সংবাদ মাধ্যম স্থানীয় বাসিন্দাদের মতামত জানতে চায়। তাদের কথাতেই উঠে আসে বিধায়কহীন বেহালায় নিজেরদের সমস্যার বিষয়টি। স্থানীয় বাসিন্দা ইন্দ্রজিৎ গিরি বলেন, “ এখানকার বহু মানুষ অ্যাটেস্টেট করানো হোক বা বিভিন্ন দরকারে বিধায়কের কাছে যেতেন। এক বছর ধরে এখানকার মানুষ বিধায়কের পরিষেবা পাচ্ছেন না। তাই আমাদের আবেদন বেহালা পশ্চিমকে একটা বিধায়ক দেওয়া হোক।”

আরও পড়ুন:  ‘নিয়োগ-সংক্রান্ত রিপোর্ট যেত মুখ্যমন্ত্রীর কাছে, আমার হাত নেই’, পার্থের দাবিতে তোলপাড় বাংলা

partha court

বিদ্যুৎ মিত্র নামের আরও এক বাসিন্দা জানান,” বিধায়ক হিসাবে পার্থ চট্টোপাধ্যায় না থাকায় আমাদের সমস্যার মধ্যে পড়তে হচ্ছে। সার্টিফিকেট থেকে শুরু করে অ্যাটেস্টেট করানো যাবতীয় কাজ আটকে যাচ্ছে। তাই বেহালা পশ্চিমে বিধায়ক আসুক দাবি জানাচ্ছি।”