পার্থর জীবনে নেমে এল গভীর অন্ধকার! প্রাক্তন মন্ত্রীকে ‘অতীত’ করে জায়গা নিল ‘এই’ হেভিওয়েট

বাংলা হান্ট ডেস্কঃ নিয়োগ দুর্নীতি মামলায় গত বছর ২৩ জুলাই (Recruitment Scam) রাজ্যের প্রাক্তন শিক্ষামন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায়ের ।পার্থ চট্টোপাধ্যায়কে (Partha Chatterjee) তার নাকতলার বাড়ি থেকে গ্রেফতার করে তদন্তকারী সংস্থা ইডি। তারপর একটা গোটা বছর পেরিয়ে গেলেও এখনও জেলবন্দি তৃণমূলের প্রাক্তন মহাসচিব। গ্রেফতারির ঠিক পরেই পার্থকে দলের সমস্ত পদ থেকে মুছে ফেলে তৃণমূল। এখন তো তার নামেও অনীহা শাসকদলের।

গত ৭ই অগাস্ট আদালতে শুনানির সময় পার্থ বলেন, ‘সামনে পুজো আসছে, পরিবার আছে, জামিন দিন’। পার্থ আর পুজো বলতেই মনে পড়ে যায় নাকতলা উদয়ন সংঘের দুর্গাপুজোর কথা। তৎকালীন মন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায়ই ছিল সেখানের প্রধান মুখ। তবে পার্থ চ্যাপ্টার এখন অতীত। নাকতলা উদয়ন সংঘের নতুন মুখ শাসকদলের অরূপ বিশ্বাস (Arup Biswas)।

২০২২ সালে পার্থর গ্রেফতারির পর রীতিমতো অভিভাবকহীন হয়ে পড়েছিল দক্ষিণ কলকাতার অন্যতম চর্চিত নাকতলা উদয়ন সংঘ। তারপর কেটে গিয়েছে এক বছর। তবে এবারের পুজোয় নাকতলা উদয়ন সংঘের পুজোয় এগিয়ে এলেন মন্ত্রী অরূপ বিশ্বাস। পাকাপাকিভাবে অতীত হলেন পার্থ চট্টোপাধ্যায়।

আরও পড়ুন: এবার পার্থর অফিসে চলবে বুলডোজার! শুনেই মুখ গুমরে বসে রইলেন প্রাক্তন তৃণমূল মহাসচিব

গত মাসে নাকতলা উদয়ন সংঘের খুঁটিপুজো সময়ই হেভিওয়েট মন্ত্রী অরূপ বিশ্বাসকে ক্লাবের মুখ্য উপদেষ্টা করা হয়। জেলবন্দি পার্থ চট্টোপাধ্যায়কে চিরতরে সরিয়ে উপদেষ্টা হিসাবে স্থান দেওয়া হল টালিগঞ্জ কেন্দ্রের বিধায়ককে। যা নিয়ে ইতিমধ্যেই বিভিন্ন মহলে চর্চাও শুরু হয়েছে।

আরও পড়ুন: এবার পার্থর অফিসে চলবে বুলডোজার! শুনেই মুখ গুমরে বসে রইলেন প্রাক্তন তৃণমূল মহাসচিব

partha court

আসলে কেবল নাকতলা উদয়ন সংঘই নয়। কলকাতায় একাধিক বড় পুজোর সাথে হেভিওয়েট নেতার, মন্ত্রীদের নাম জড়িয়ে রয়েছে। শহর থেকে চোখ সরালেও দেখা যায় একই চিত্র। বিভিন্ন জেলেই অধিকাংশ পুজোর সাথেই স্থানীয় নেতা, বিধায়করা যুক্ত থাকেন।