প্রথমবার ভোটে মিঠুন, অভিষেকের বিরুদ্ধে শুভেন্দু? প্রকাশ্যে এল বিজেপির সম্ভাব্য প্রার্থী তালিকা! রয়েছে চরম চমক

বাংলা হান্ট ডেস্কঃ বছর ঘুরলেই লোকসভা নির্বাচন (Loksabha Election)। সম্প্রতি পাঁচ রাজ্যের বিধানসভা নির্বাচন দিয়েই দেশ জুড়ে বেজে গিয়েছে ভোটের দামামা। শাসক থেকে বিরোধী সকলেরই তুঙ্গে প্রস্তুতি। ওদিকে দিন কয়েক আগেই একদিনের সফরে বঙ্গে এসেছিলেন কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ, জে পি নাড্ডারা। তারপর থেকেই আরও খানিক চাঙ্গা হয়ে উঠেছে গেরুয়া শিবির। বর্তমানে বঙ্গ বিজেপির (Bengal BJP) অন্দরে লোকসভার টিকিট বণ্টন নিয়ে জোর তৎপরতা।

   

সূত্রের খবর, ইতিমধ্যেই বিজেপির সর্বভারতীয় সভাপতি জে পি নাড্ডার কাছে ৪২টি আসনের খসড়া প্রার্থীতালিকা (Bengal bjps draft candidate list) জমা করেছে বঙ্গ বিজেপি নেতৃত্ব। আর সেই তালিকায় একের পর এক চমক। থাকছে একাধিক নতুন হেভিওয়েট নাম। ওদিকে গতবারের জয়ী সাংসদদের মধ্য থেকেও করা হবে ছাঁটাই।

প্রসঙ্গত, গত ২৬ ডিসেম্বর কলকাতায় আসেন বিজেপির দুই মহারথী শাহ ও নাড্ডা। পর্যালোচনা বৈঠক, সাংগঠনিক বৈঠক। বিজেপি জেলা ও জোনের দায়িত্বপ্রাপ্ত নেতা কোর কমিটির সদস্য় ও পর্যবেক্ষকদের সাথে বৈঠক করেন শাহ-নাড্ডা। তবে কোর কমিটির সেই বৈঠকে রাজ্য বিজেপির ২৪ সদস্যের মধ্যে ২৩ জন হাজির হলেও অনুপস্থিত ছিলেন মহাগুরু মিঠুন চক্রবর্তী (Mithun Chakraborty)। কেন লোকসভা ভোটের চূড়ান্ত প্রস্তুতির বৈঠকে ছিলেন না তিনি? এই নিয়ে শুরু হয় জল্পনা। তবে এরই মধ্যে জানা যাচ্ছে রাজ্যের ৪২টি আসনের খসড়া প্রার্থীতালিকা তালিকায় নাম রয়েছে অভিনেতা মিঠুন চক্রবর্তীরও।

প্রথমবার ‘জাত গোখরো’কে ভোটের ময়দানে আনতে চলেছে বিজেপি। সবকিছু ঠিক থাকলে যাদবপুরে শাসকদলের বিরুদ্ধে ফাইটে নামবেন সবার গুরু মহাগুরু মিঠুন চক্রবর্তী। ওদিকে উত্তরবঙ্গের কোচবিহার ও আলিপুরদুয়ার কেন্দ্রে দুই কেন্দ্রীয় মন্ত্রী নিশীথ প্রামাণিক ও জন বার্লা এবারও নামবেন লড়াইয়ের ময়দানে।

আরও পড়ুন: বছর শেষে ধামাকা! এই সব জেলায় টানা ৫ দিন বৃষ্টি, পাহাড়ে তুষারপাত: আবহাওয়ার খবর

তবে আশ্চর্যজনক বিষয় এবার নাকি নিজের গড় মেদিনীপুরে আর লড়তে দেওয়া হবেনা বিদায়ী সাংসদ দিলীপ ঘোষকে (Dilip Ghosh)! তার বদলে হেভিওয়েট এই বিজেপি নেতার জন্য ঠিক করা হয়েছে ডায়মন্ড হারবার। খসড়া প্রার্থীতালিকা তালিকায় ডায়মন্ড হারবারে তৃণমূলের সর্বভারতীয় সাধারণ সম্পাদক অভিষেক বন্দ্যোপাধ‌্যায়ের বিরুদ্ধে রয়েছে ঘোষবাবুর নাম। তবে দলের এই সিদ্ধান্তে মোটেই মত নেই তার।

বিজেপি সূত্রে খবর, মেদিনীপুর কেন্দ্রে দিলীপের বদলে অভিনেত্রী অঞ্জনা বসুকে লড়াতে চাইছে বঙ্গ বিজেপি নেতৃত্ব। তবে দিলীপ নাকি সাফ সাফ জানিয়ে দিয়েছেন, মেদিনীপুর নয় তো কোথাও নয়। এই বিষয়ে সংবাদমাধ্যমের প্রশ্নে তিনি জানান, “আমি কাউকে ছাড়তে চাই না, আর ছাড়ার কোনও প্রশ্নও নেই।’’ ওদিকে অভিনেত্রী লকেট চট্টোপাধ‌্যায়েরও কেন্দ্র বদল করা হতে পারে বলে জানা যাচ্ছে। লড়তে পারেন বাঁকুড়া থেকে।

বঙ্গ বিজেপি সভাপতি সুকান্ত মজুমদার এবারও লড়বেন নিজের কেন্দ্র বালুরঘাট থেকেই। বদল হয়নি জলপাইগুড়ি ও আলিপুরদুয়ারেও। উত্তরবঙ্গের জলপাইগুড়ি থেকে লড়বেন জয়ন্ত রায় ও আলিপুরদুয়ার থেকে লড়বেন দেবশ্রী চৌধুরি। দার্জিলিং থেকে আসরে নামতে পারেন বিদায়ী সাংসদ রাজু বিস্তাই। পূর্ব মেদিনীপুরের কাঁথি কেন্দ্র থেকে বিরোধী দলনেতা শুভেন্দু অধিকারী লড়বেন কিনা সেই বিষয়ে এখনও পাকাপাকি সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়নি। শুভেন্দুর বদলে সেখানে লড়তে পারেন তার ভাই সৌমেন্দু অধিকারী। যদিও এই নিয়ে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত হয়নি।

ওদিকে পশ্চিম মেদিনীপুর থেকে প্রার্থী হচ্ছেন ভারতী ঘোষ। বারাসত থেকে বিজেপির টিকিট পেতে পারেন রূপা গঙ্গোপাধ‌্যায়। এই কেন্দ্র থেকে বিজেপির প্রথম পছন্দ রুপাই। দ্বিতীয় অপশন হিসেবে রয়েছে বিমলশঙ্কর নন্দর নাম। ঝাড়গ্রাম থেকে লড়বেন বিদায়ী সাংসদ কুনার হেমব্রম। টিকিট হারাতে পারেন বিদায়ী সাংসদ তথা মন্ত্রী ডা. সুভাষ সরকার। সাম্প্রতিক সময়ে তাকে নিয়ে দলের অন্দরেই চর্চার শেষ নেই।

আরও পড়ুন: বিপুল টাকা নয়ছয়! চালু করতে দেওয়া হয়নি কেন্দ্রীয় প্রকল্প, লোকসভায় নয়া কৌশলে প্রচার BJP-র

উত্তর কলকাতা থেকে নামতে পারেন সজল ঘোষ। হুগলির আরামবাগ থেকে বিজেপির টিকিট পাবেন মধুসূদন বাগ। বিষ্ণুপুর ও পুরুলিয়া কেন্দ্র থেকে ওই সৌমিত্র খাঁ ও জ্যোতির্ময় সিং মাহাতোই লড়বেন। বর্ধমান-দুর্গাপুর ও আসানসোল কেন্দ্রে বিজেপির সম্ভাব‌্য প্রার্থী হিসাবে নাম রয়েছে কেয়া ঘোষ ও অগ্নিমিত্রা পালের। পূর্ব বর্ধমানে পরেশচন্দ্র দাস নামবেন। বর্ধমান-দুর্গাপুর কেন্দ্রে সুরিন্দর সিং আলুওয়ালিয়ার টিকিট পাওয়ার সম্ভাবনা নেই বললেই চলে।

মুর্শিদাবাদের জঙ্গিপুর আসন থেকে টিকিট পেতে পারেন বিধায়ক শ্রীরূপা মিত্র চৌধুরি। অনুব্রত গড় বীরভূম বিজেপি নেতা দুধকুমার মণ্ডলের নাম রয়েছে সম্ভাব্য প্রার্থী তালিকায়। বহরমপুরের টিকিট পেতে পারেন বিজেপি নেত্রী মাফুজা খাতুন। মুর্শিদাবাদ কেন্দ্র থেকে বিজেপির সম্ভাব‌্য প্রার্থী তালিকায় নাম রয়েছে মোহন হালদারের। কৃষ্ণনগরে প্রার্থী হিসেবে দাঁড়াতে পারেন সদ‌্য প্রাক্তন অ‌্যাডভোকেট জেনারেল সৌমেন্দ্রনাথ মুখোপাধ‌্যায়। রানাঘাট থেকে নয়া প্রার্থী হতে পারেন অর্চনা মজুমদার।

আরও পড়ুন: শীতের চরম পাল্টি! নতুন বছরের আগে আরও বাড়বে দক্ষিণবঙ্গের তাপমাত্রা? আবহাওয়ার খবর

bjp meeting 7

ওদিকে শ্রীরামপুরে আইনজীবী নেতা দেবজিৎ সরকার ও মধুছন্দা কর এই দুই নামের মধ্যে টানাপোড়েন চলছে। শোনা যাচ্ছে বসিরহাটে প্রাক্তন বিধায়ক তথা বিজেপি মুখপাত্র শমীক ভট্টাচার্য দলের ফার্স্ট চয়েস। বনগাঁয় লড়বেন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী শান্তনু ঠাকুর। ব‌ারাকপুর ও দমদমের সম্ভাব‌্য তালিকায় যথাক্রমে নাম রয়েছে বিপ্লব মিত্র বা মনোজ বন্দ্যোপাধ‌্যায়ের। দমদম থেকে দুই নামের মধ্যে ধন্দ। এক প্রাক্তন রাজ‌্য সভাপতি রাহুল সিনহা, দুই রিমঝিম ঘোষ। দক্ষিণ ২৪ পরগনার জয়নগরে মথুরাপুরে যথাক্রমে মোহন সরকার ওদিলীপ জাটুয়াকে টিকিট দিতে চাইছে বিজেপি। তবে এর মধ্যে অধিকাংশ কেন্দ্রেই নাম এখনও চূড়ান্ত হয়নি বলে সূত্রের খবর। এই সকল নাম দফায় দফায় যাচাই করে তারপরই কেন্দ্র তরফে মিলবে সবুজ সংকেত।