নির্বাচনে জিতে চিনের জন্য বড় সিদ্ধান্ত মুইজ্জুর, ফুলেফেঁপে উঠবে বেজিং, পাল্টাতে পারে মলদ্বীপের সংবিধানও

বাংলা হান্ট ডেস্ক: ভারত-মলদ্বীপ বিতর্কের (India-Maldives Controversy) আবহেই দ্বীপরাষ্ট্রে সম্পন্ন হল সংসদীয় নির্বাচন। আর ওই নির্বাচনে বাজিমাত করলেন মহম্মদ মুইজ্জু (Mohamed Muizzu)। তিনি বিপুল ভোটে জয়ী হয়ে ফের একবার মলদ্বীপের মসনদে আসীন হলেন। প্রসঙ্গত উল্লেখ্য যে, গত ২১ এপ্রিল সম্পন্ন হওয়া এই নির্বাচনের ফলাফল সামনে আসে গত সোমবার। যেখানে দেখা যায়, মুইজ্জুর ন্যাশনাল পিপলস কংগ্রেস পার্টি ও জোট ৯৩ টি আসনের মধ্যে ৭১ টি আসনে জয়লাভ করেছে। সবথেকে উল্লেখযোগ্য বিষয় হল, এই জয়ের জন্য মুইজ্জু চিনের কাজ থেকেও অভিনন্দন পেয়েছেন।

তবে, ঠিক এই আবহে এই সামনে এসেছে আরও একটি বড় খবর। এই প্রসঙ্গে প্রাপ্ত তথ্য অনুযায়ী জানা গিয়েছে যে, চিনপন্থী মুইজ্জু সরকার এবার ফের চিনের হয়ে কাজ করতে শুরু করে দিয়েছে। সূত্রের খবর অনুযায়ী জানা গিয়েছে যে, মলদ্বীপে নতুন ৩০ টি দ্বীপে নির্মাণকাজের জন্য মুইজ্জু বরাত দেবেন চিনা সংস্থাকে।

   

By winning the election, Muizzu made a big decision for China.

পাশাপাশি, চিনা কোম্পানিগুলি সেখানে ১,০০০ ফ্ল্যাট নির্মাণ করবে বলেও খবর মিলেছে। এছাড়াও, আরও একটি উল্লেখযোগ্য বিষয় হল, সাম্প্রতিক রিপোর্ট অনুযায়ী সামনে এসেছে যে, মুইজ্জু এবার দেশের সংবিধানও পরিবর্তন করতে পারেন। বর্তমানে মলদ্বীপে রাষ্ট্রপতির ক্ষমতা পার্লামেন্ট দ্বারা নিয়ন্ত্রিত হয়। আর এখানেই আসতে পারে পরিবর্তন। জানা গিয়েছে, কোনো আদেশ অনুমোদনের ক্ষেত্রে মুইজ্জু পার্লামেন্টে তিন চতুর্থাংশের পরিবর্তে এবার সাধারণ সংখ্যাগরিষ্ঠতা পাবেন।

আরও পড়ুন: নিজে তো ডুববেই সাথে এই পাঁচ দলকেও ডোবাবে RCB

জয়লাভ মুইজ্জুর: জানিয়ে রাখি, সম্প্রতি সম্পন্ন হওয়া সংসদীয় নির্বাচনে মলদ্বীপের ৯৩ টি আসনের মধ্যে ৬৮ টি আসনে জয়ী হয়েছেন মহম্মদ মুইজ্জু। এমতাবস্থায়, এটা স্পষ্ট হচ্ছে যে ভারতের পরিবর্তে ফের চিনের দিকে ঝুঁকতে শুরু করবে মুইজ্জু সরকার। এমতাবস্থায়, এক সাংবাদিকের মতে, মুইজ্জু সাম্প্রতিক নির্বাচনী প্রচারের সময়েও ভারত বিরোধী নীতি গ্রহণ করেছিলেন। যেখানে চিনের ষড়যন্ত্র থাকতে পারে বলে অনুমান করা হচ্ছে।

আরও পড়ুন: পন্থ-হার্দিক নয়! রোহিতের পর ভারতের T20 অধিনায়ক হিসেবে এই প্লেয়ারকে দেখতে চান ভাজ্জি

এদিকে, চিনের সাথে সখ্যতা বজায় রাখার লক্ষ্যে এবার নির্বাচনে জয়লাভের পর মুইজ্জু সরকারের ওপর ভারতের আরও বিরোধিত করার জন্য চাপ বাড়তে পারে। যার ফলে আগামী দিনে ভারত-মলদ্বীপ সম্পর্ক ঠিক কোন দিকে এগোয় সেটাই এখন দেখার বিষয়। উল্লেখ্য যে, ইতিমধ্যেই মুইজ্জু আগামী ১০ মে’র মধ্যে ভারতীয় সেনাদের মলদ্বীপ ত্যাগ করার আল্টিমেটাম দিয়েছেন।

Sayak Panda
Sayak Panda

সায়ক পন্ডা, মেদিনীপুর কলেজ (অটোনমাস) থেকে মাস কমিউনিকেশন এবং সাংবাদিকতার পোস্ট গ্র্যাজুয়েট কোর্স করার পর শুরু নিয়মিত লেখালেখি। ২ বছরেরও বেশি সময় ধরে বাংলা হান্ট-এর কনটেন্ট রাইটার হিসেবে নিযুক্ত।

সম্পর্কিত খবর