বড়সড় কিছু হতে চলেছে আজ মধ্যরাতে! শিক্ষামন্ত্রী ব্রাত্য বসুকে চরম হুঁশিয়ারি রাজ্যপালের

   

বাংলাহান্ট ডেস্ক : বর্তমানে বাংলার শিক্ষাক্ষেত্রে যা ঘটছে তাকে এক কথায় ‘বোস v/s বোস’ বলাই যায়। একদিকে রাজ্যপাল সিভি আনন্দ বোস (CV Anand Bose), অন্যদিকে রাজ্যের শিক্ষা মন্ত্রী ব্রাত্য বসু (Bratya Basu)। শিক্ষা নিয়ে সংঘর্ষ চরমে উঠেছে রাজ্যপাল ও রাজ্যের মধ্যে। রীতিমতো সম্মুখ সমরে অবতীর্ণ হয়েছেন রাজ্যপাল ও রাজ্যের শিক্ষা মন্ত্রী।

শিক্ষামন্ত্রী ব্রাত্য বসু রাজ্যপালের সিদ্ধান্তকে ‘তুঘলকি’ আচরণ বলে ব্যাখ্যা করেছেন ইতিমধ্যেই। অপরদিকে রাজ্যপাল হুঁশিয়ারির সুরে বলেছেন, “আই অ্যাম গ্ল্যাড দ্যাট আই অ্যাম অ্যাক্টিং” অর্থাৎ, “আমি খুশি যে আমি এরকম আচরণ করছি।” এরপর রাজ্যপালের বক্তব্য, অপেক্ষা করে দেখুন মধ্যরাত পর্যন্ত, দেখুন কী কী করি।

প্রসঙ্গত, কিছুদিন ধরে রীতিমতো পরোক্ষ যুদ্ধ চলছে রাজ্যপাল ও নবান্নর মধ্যে। এই সপ্তাহে রাজ্যের শিক্ষামন্ত্রী ব্রাত্য বসু বলেন, রাজ্যপাল যে সিদ্ধান্ত নিয়েছেন নিজের ইচ্ছামতো উপাচার্য নিয়োগ করবেন বিশ্ববিদ্যালয়ে, সেটা ‘তুঘলকি’ আচরণ। এটা করে উনি অপমান করেছেন রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে।

আরোও পড়ুন : কর্মজীবনে ৫ বছর গ্রামাঞ্চলে শিক্ষকতা বাধ্যতামূলক, বড়সড় ঘোষণা রাজ্য সরকারের

দুদিন আগেই মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় একটি অনুষ্ঠানে যোগ দিতে পৌঁছে গিয়েছিলেন ধনধান্য স্টেডিয়ামে। সেই অনুষ্ঠান মঞ্চ থেকে মুখ্যমন্ত্রী আক্রমণ করেন রাজ্যপাল সিভি আনন্দ বোসকে। রাজ্যপালের বিরুদ্ধে একাধিক অভিযোগ তোলেন তিনি। এছাড়াও এদিন মুখ্যমন্ত্রী রাজ্যপালের বিরুদ্ধে আনেন অতি সক্রিয়তার অভিযোগও।

আরোও পড়ুন : মোদির নামপ্লেটে বাদ ‘ইন্ডিয়া’, তবে কী ‘ভারত’ নামেই সরকারি স্বীকৃতি? ইঙ্গিত দিচ্ছে G20 সম্মেলন

মুখ্যমন্ত্রী বলেন, “উনি নাকি বোস। তবে এখানকার বোস নয়। বোস নিয়েছে। বাংলা ভাষা শিখতে চায়। আমিও সব ভাষায় কথা বলতে পারি।” ইদানিংকালে রাজ্যপালের সাথে রাজ্য প্রশাসনের সংঘাত হলেও, সিভি আনন্দ বোস যখন প্রথমবারের জন্য পশ্চিমবঙ্গের রাজ্যপাল হয়ে আসেন তখন চিত্রটা কিন্তু সম্পূর্ণ ভিন্ন ছিল।

1628950155 bratya basu

মুখ্যমন্ত্রীর সাথে বিভিন্ন অনুষ্ঠান মঞ্চে দেখা গিয়েছিল তাঁকে। এমনকি মুখ্যমন্ত্রীর উদ্যোগে সিভি আনন্দ বোস বাংলায় ‘হাতে খড়ি’ও করেন। কিন্তু তারপর বিভিন্ন ইস্যুতে রাজ্যপালের সাথে সংঘাত সৃষ্টি হয়েছে রাজ্যের। সম্প্রতি শিক্ষাক্ষেত্রে অরাজকতার অভিযোগ তুলে রাজ্যপাল সরব হয়েছেন রাজ্যের বিরুদ্ধে।

Avatar
Soumita

আমি সৌমিতা। বিগত ৩ বছর ধরে কর্মরত ডিজিটাল সংবাদমাধ্যমে। রাজনীতি থেকে শুরু করে ভ্রমণ, ভাইরাল তথ্য থেকে শুরু করে বিনোদন, পাঠকের কাছে নির্ভুল খবর পৌঁছে দেওয়াই আমার একমাত্র লক্ষ্য।

সম্পর্কিত খবর