তাণ্ডব চালাবে ঘূর্ণিঝড় ‘মিগজাউম’! মঙ্গলে ল্যান্ডফলের সম্ভাবনা, প্রভাব পড়বে দক্ষিণবঙ্গের ১১ জেলায়

বাংলাহান্ট ডেস্ক : ‘মিগজাউম’ রূপ নিল প্রবল ঘূর্ণিঝড়ের। আলিপুর হাওয়া অফিস জানাচ্ছে, বঙ্গোপসাগরের উপর দিয়ে এই ঘূর্ণিঝড় অগ্রসর হচ্ছে উত্তর-পশ্চিম দিকে। দক্ষিণ অন্ধ্রপ্রদেশের মছলিপত্তনম এবং নেল্লোরের মাঝখান দিয়ে ‘মিগজাউম’ আছড়ে পড়বে স্থলভাগে। সেই সময় ঘূর্ণিঝড়ের গতিবেগ হতে পারে ঘন্টায় ৯০ থেকে ১০০ কিলোমিটার।

   

ঘন্টায় ১১০ কিলোমিটার গতিবেগে বইতে পারে ঝোড়ো হাওয়া। আবহাওয়া দপ্তর জানাচ্ছে, বর্তমানে ঘূর্ণিঝড় অবস্থান করছে দক্ষিণ অন্ধ্রপ্রদেশ এবং উত্তর তামিলনাড়ুর কাছে পশ্চিম-মধ্য এবং সংলগ্ন দক্ষিণ-পশ্চিম বঙ্গোপসাগরের উপর। শেষ ছয় ঘন্টায় এই ঘূর্ণিঝড়ের গতিবেগ ছিল ৮ কিলোমিটার।

আরোও পড়ুন: ১৯ বছর ধরে চলছে অপেক্ষা! কাঙাল পাকিস্তানের দারিদ্রতা কি দূর করবে এই ৬ টি দেশ?

ঘূর্ণিঝড় ‘মিগজাউম’ এখন রয়েছে চেন্নাই থেকে ৯০ কিলোমিটার পূর্ব এবং উত্তর-পূর্বে, নেল্লোরে থেকে ১৭০ কিলোমিটার দক্ষিণ-পূর্বে, পুদুচেরি থেকে ২০০ কিলোমিটার উত্তর-পূর্বে, বাপাতলার থেকে ৩০০ কিলোমিটার দক্ষিণ এবং দক্ষিণ-পূর্বে, মছলিপত্তনম থেকে ৩২০ কিলোমিটার দক্ষিণে।

আরোও পড়ুন: কাঞ্চনজঙ্ঘার দুর্দান্ত ভিউ, সঙ্গে মিলবে অপার শান্তি! দার্জিলিং ছেড়ে এবার চলে যান এই হিল স্টেশনে

এটি ক্রমশ পরিণত হচ্ছে প্রবল ঘূর্ণিঝড়ে এবং অগ্রসর হচ্ছে উত্তর দিকে। নেল্লোর এবং মছলিপত্তনমের মধ্যে দিয়ে এই ঘূর্ণিঝড় স্থলভাগে আছড়ে পড়তে পারে ৫ই ডিসেম্বর, দুপুরে। এই ঘূর্ণিঝড়ের প্রভাবে হালকা থেকে মাঝারি বৃষ্টিপাত হতে পারে পূর্ব এবং পশ্চিম মেদিনীপুর, ঝাড়গ্রামে। জানা গেছে এই বৃষ্টিপাত হবে বিক্ষিপ্তভাবে।

rainfall rep1 1660152937

কলকাতা, দুই ২৪ পরগনা, হাওড়া, হুগলি, বাঁকুড়া, পুরুলিয়া, পূর্ব বর্ধমানে আগামীকাল হালকা বৃষ্টির সম্ভাবনা রয়েছে। কলকাতা, দুই মেদিনীপুর, ঝাড়গ্রাম, বাঁকুড়া, দক্ষিণ ২৪ পরগনায় হালকা বৃষ্টিপাত হতে পারে বুধবারও। দক্ষিণবঙ্গের আরও কিছু জেলায় হালকা বৃষ্টিপাতের সম্ভাবনা রয়েছে বৃহস্পতিবার। তবে দক্ষিণবঙ্গের জেলাগুলিতে প্রবল বৃষ্টিপাতের সম্ভাবনা কিন্তু নেই।