নিমেষেই ধ্বংস হবে ব্যালিস্টিক মিসাইল, ভয়ঙ্কর এক অস্ত্র বানাচ্ছে ভারত! নাম শুনেই কাঁপবে শত্রুরা

বাংলা হান্ট ডেস্ক : প্রতিরক্ষা খাতে আরও একধাপ এগিয়ে গেল আমাদের দেশ। খুব শীঘ্রই লেজার অস্ত্র দুর্গা-২ পরীক্ষা করতে চলেছে ভারতীয় প্রতিরক্ষা গবেষণা সংস্থা DRDO। প্রতিপক্ষের উপর অগ্নিবৃষ্টি করতে তৈরি হচ্ছে ‘দুর্গা-২’। সূত্রের খবর, এই অস্ত্রটি থেকে অত্যন্ত শক্তিশালী লেজার রশ্মি বেরিয়ে শত্রুপক্ষের যুদ্ধবিমান, জাহাজ মুহূর্তে ধ্বংস করে দিতে সক্ষম।

   

প্রসঙ্গত উল্লেখ্য, DURGA II বা Directionally Unrestricted Ray-Gun Array নামের লেজার হাতিয়ারটি তৈরি করেছে প্রতিরক্ষা গবেষণা ও উন্নয়ন সংস্থা (Defence Research and Development Organisation)। এটি মূলত ভবিষ্যতের অস্ত্র। বিশ্বের বহু দেশের কাছেই লেজার অস্ত্র রয়েছে। এই অস্ত্র শত্রুপক্ষের জাহাজ, র্যাডার, ইলেকট্রনিক যুদ্ধাস্ত্র, জেট, ক্ষেপণাস্ত্র সবকিছুই নিমেষের মধ্যে ধ্বংস করে দিতে সক্ষম।

এখানে বলে রাখা ভালো, বর্তমানে পৃথিবীতে দুটি অ্যান্টি-এয়ারক্রাফ্ট বা অ্যান্টি-মিসাইল লেজার অস্ত্র রয়েছে, সেগুলো ফুলপ্রুফ নয়। তাদের ফায়ার পাওয়ার ১০০ শতাংশ নয়। তবে এবার ডিআরডিও উঠেপড়ে লেগেছে ‘দুর্গা ২’ কে ফুলপ্রুফ বানাতে। এর আগে ২০২১ সালে আমেরিকান প্রতিরক্ষা মিডিয়া একটি প্রতিবেদন প্রকাশ করেছিল, এবং সেখানে নয়াদিল্লির লেজার সায়েন্স অ্যান্ড টেকনোলজি সেন্টারের (LSTC) নয়া লেজার সিস্টেমের কথা উল্লেখ ছিল।

আরও পড়ুন : পেঁয়াজ কাটার আগেই চোখে জল, বড় সিদ্ধান্ত নিল কেন্দ্রীয় সরকার! ফের কমছে দাম

শোনা যাচ্ছে এই নতুন প্রযুক্তিতে সলিড স্টেট, ফাইবার ও কেমিক্যাল লেজার ব্যবহার করা হচ্ছে। স্থল, জল ও আকাশ এই তিন ক্ষেত্রেই এই অস্ত্র মোতায়েন করা হবে বলে খবর। এলএসটিসি সূত্রে খবর, তারা একটি ২৫ কিলোওয়াট লেজার অস্ত্র তৈরি করতে সফল হয়েছে। যা ব্যালিস্টিক ক্ষেপণাস্ত্রকে লক্ষ্যবস্তু করতে পারে। কিন্তু এর রেঞ্জ ৫০ কিলোমিটার। লেজার বিশেষজ্ঞরা জানিয়েছেন, এর পরিসর আরও বাড়ানো হবে।

আরও পড়ুন : কাটল ‘আধার’ জট, UIDAI নিল বড় পদক্ষেপ! আর সমস্যা হবেনা কারোরই

drdo 1512705877

উল্লেখ্য, এই লেজার অস্ত্র তৈরির পরিকল্পনা ২০০০ সাল থেকেই। তবে মাঝে নানা কারণে তা আর বাস্তবায়িত হয়নি। তবে ২০১৪ সালে মসনদে বসার পর থেকেই মোদী সরকারের প্রথম পদক্ষেপ ছিল, প্রতিরক্ষা খাতে দেশকে আত্মনির্ভরশীল করে তোলা। এরপর ২০১৭ সালে চিত্রদুর্গে ট্রাকের উপর বসানো একটি ১ কিলোওয়াটের লেজার হাতিয়ার পরীক্ষা করে ডিআরডিও। পরীক্ষা চলাকালীন সেখানে উপস্থিত ছিলেন তৎকালীন প্রতিরক্ষামন্ত্রী অরুণ জেটলি। তারপর থেকেই বিগত দিনে একের পর এক পদক্ষেপ করেছে কেন্দ্র সরকার। এবার তারই ফল মিলেছে।

Moumita Mondal
Moumita Mondal

মৌমিতা মণ্ডল, গ্র্যাজুয়েশনের পর শুরু নিয়মিত লেখালেখি। বিগত ৩ বছরেরও বেশি সময় ধরে লেখালেখির সাথে যুক্ত। প্রায় ২ বছর ধরে বাংলা হান্ট-এর কনটেন্ট রাইটার হিসেবে নিযুক্ত।

সম্পর্কিত খবর