এবার তাইওয়ানেও উঠবে ‘জয় শ্রীরাম’ ধ্বনি! প্রতিষ্ঠা হল প্রথম হিন্দু মন্দির, রাগে ফুঁসছে চিন

   

বাংলা হান্ট ডেস্ক : চিনের (China) আগ্রাসন থেকে মুক্তি পেতে চাইছে দেশটি। ভরসা এক মাত্র ভারত (India)। তাই ভারতের সঙ্গে সাংস্কৃতিক সম্পর্ককে গভীর করার জন্য বড় পদক্ষেপ করল তাইওয়ান (Taiwan)। সে দেশে উদঘাটন হল নতুন একটি হিন্দু মন্দির। মন্দিরের নাম দেওয়া হয়েছে ‘সবকা মন্দির’ (Sabka Mandir)।

এই অসাধারণ কৃতিত্বের কেন্দ্রবিন্দুতে রয়েছেন অ্যান্ডি সিং আর্য। এই ব্যক্তি প্রায় দুই দশক ধরে একজন প্রবাসী ভারতীয়। ইনি তাইওয়ানের একটি বিখ্যাত ভারতীয় রেস্তোরাঁর মালিক৷ তাইওয়ানে বসবাসকারী ভারতীয় নাগরিক সানা হাশমি তার আনন্দিত এই মন্দির তৈরি হওয়ায়। সংবাদমাধ্যমকে তিনি বলেন, ‘এই মন্দিরের প্রতিষ্ঠা করে ভারতের ভারতীয় সম্প্রদায়ের সঙ্গে একটি সুন্দর সম্পর্ক গড়ে তুলতে চায় তাইওয়ান।’

sabka mandir 2

ভারত-তাইওয়ান সম্পর্কের সাংস্কৃতিক মেলবন্ধনে এই মন্দিরের উদ্বোধন একটি ঐতিহাসিক মুহূর্ত হিসেবে প্রতিষ্ঠা হয়েছে। তাইওয়ানে ভারতীয়দের একটি সংস্থার প্রতিষ্ঠাতা ডঃ প্রিয়া লালওয়ানি পুরসওয়ানি এই মন্দির তৈরি নিয়ে বলেন এটি শুধুমাত্র তাইওয়ানে বসবাসকারী ভারতীয়দের সাথেই নয়, তাইওয়ানের নাগরিকদের সাথেও ভারতীয়দের সাংষ্কৃতিক আদানপ্রদানের একটি মাধ্যম হয়ে উঠবে।’

তিনি আরো বলেন, ‘তাইওয়ানের সংস্কৃতির যোগাযোগের ক্ষেত্রে এটি একটি ঐতিহাসিক মুহূর্ত। শুধুমাত্র তাইওয়ানে বসবাসকারী ভারতীয় নয় বরং তাইওয়ান বন্ধুদের জন্য এটি ভীষণ গুরুত্বপূর্ণ।আমরা আশা করি এই পবিত্র মন্দির তাইওয়ান এর ক্ষেত্রে সুখ শান্তির বার্তা বয়ে আনবে।’

আরও পড়ুন : ব্ল্যাক বোর্ডে ‘জয় শ্রীরাম’! ছাত্রকে বেধড়ক পিটিয়ে হাসপাতালে পাঠালেন শিক্ষক, দায়ের হল FIR

গত বছর তাইওয়ান এবং ভারতের মধ্যে একটি চুক্তি স্বাক্ষর হয়। যে চুক্তিটি মূলত প্রবাসী ভারতীয়দের জন্য খুব উপযোগী হয়েছিল। এই মুহূর্তে চিনের কবল থেকে মুক্তি পেতে ভারতকেই অবলম্বন করতে চাইছে তাইওয়ান। ভারতের সঙ্গে তার বাণিজ্যিক সম্পর্ককে আরো সুদৃঢ় করতে বড় পদক্ষেপ সে দেশের। এই মন্দিরটি ভারত এবং তাইওয়ান এর মধ্যে শুধুমাত্র সংস্কৃতির আদান-প্রদান নয় বরং একটি কুটনৈতিক সুসম্পর্কের কেন্দ্র হয়ে উঠবে বলেও মনে করছে রাজনৈতিক বিশেষজ্ঞ মহল।

Avatar
Sudipto

সম্পর্কিত খবর