টাইমলাইনপশ্চিমবঙ্গ

আজ থেকে যাদবপুরে পড়ুয়া পেটানো শুরু হবে : সায়ন্তন বসু

বাংলা হান্ট ডেস্ক : বৃহস্পতিবার যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয়ের অনুষ্ঠানে এবিভিপির সমর্খকদের তান্ডবে ধুন্ধুমার পরিস্থিতি তৈরি হয় বিশ্ববিদ্যালয় চত্বরে। ওইদিন একটি অনুষ্ঠানে যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসে কেন্দ্রীয় প্রতিমন্ত্রী বাবুল সুপ্রিয় পৌঁছাতেই তাঁর ওপর চড়াও হয় পড়ুয়ারা। অভিযোগ ওঠে বাবুলের চুল টেনে দেওয়ার এবং তাঁকে কিল মারার। ব্যাপক বিক্ষভের মধ্যে পড়ে যান তিনি। অন্যদিকে এসএফআই সংগঠনের অভিযোগ ওঠে বিশ্ববিদ্যালয়েের অনুষ্ঠানে প্রবেশ করে বাবুল সুপ্রিয় হিংসা ছড়িয়েছে। তাই গোটা ঘটনার প্রতিবাদে শুক্বরা রাজ্যজুড়ে বিক্ষোভের ডাক দেয় এসএফআই সংগঠন। অন্যদিকে বাবুল সুপ্রিয়কে হেনস্থার প্রতিবাদে বিজেপির রাজ্য সদর দফতর থেকে মিছিল বের করে বিজেপি। প্রতিবাদ মিছিলে পা মিলিয়েছেন রাজ্যের বিজেপি সম্পদাক সায়ন্তন বসু থেকে শুরু করে  জয় ব্যানার্জি, অগ্নিমিত্রা পল সহ অনেকেই।

এদিন মিছিলের মধ্যেই বাবুলকে হেনস্থা নিয়ে বার বার তাঁদের ক্ষোভ উগরে দেন বিজেপি নেতৃত্বরা। একই সঙ্গে মিছিলের মধ্যেই বাবুলের হেনস্থা নিয়ে বিস্ফোরক মন্তব্য করে বসেন তিনি। মিছিল থেকে তিনি বাবুলকে বৃহস্পতিবার হেনস্থার কথা তুলে ধরে সেই ঘটনার বিরুদ্ধে তাঁদের প্রতিবাদের কথা জানান। এরপর সাংবাদিকদের সামনে আগন লাগিয়ে দেওয়ার অভিযোগ সম্পর্কে বলতে গিয়ে তিনি বিস্ফোরক মন্তব্য করে বলেন, ‘‌আমার তো মনে হয় আরও মারধর করা উচিত ছিল। রাস্তায় ফেলে পেটানো উচিত ছিল যাদবপুরের পড়ুয়াদের। কাল সেটা হয়নি। আজ থেকে শুরু হবে।

পাশাপাশি যাদবপুরে আজ থেকে পড়ুয়া পেটানো হবে বলেও জানান তিনি। তবে বাবুলের এই হেনস্থার বিরোধিতা করে বিজেপি নেতৃত্বরা সকলেই এই ঘটনার জন্য তৃণমূল থেকে নক্সাল ও সিপিএমকে দায়ী করেছে। এমনকি এটি ষডড়যন্ত্র মাফিক ঘটনা বলেও দাবি করেছেন তাঁরা। তাই এই ঘটনার জন্য কঠোর পদক্ষেপেরও দাবি জানিয়েছেন বিজেপি নেতারা।

Leave a Reply

Close
Close