fbpx
আন্তর্জাতিকটাইমলাইনপশ্চিমবঙ্গবিনোদনভারত

নেপাল থেকে ৩৬ জন পরিযায়ী শ্রমিককে ফেরালেন ঘাটাল সাংসদ দেব, নিলেন কেন্দ্রের সাহায্য

বাংলাহান্ট ডেস্কঃ মাত্র ১২ ঘণ্টার মধ্যেই ভারত-নেপাল সীমান্ত থেকে পরিযায়ীদের ফিরিয়ে আনলেন ঘাটাল (Ghatal) সাংসদ তথা অভিনেতা দেব (Deepak Adhikari)। ফিরিয়ে আনা হল আটকে পড়া ৩৬ জন পরিযায়ী শ্রমিককে। যাদের মধ্যে ২ জন ছিলেন অন্তঃসত্ত্বা এবং ৩০ জন ঘটালের বাসিন্দা। শ্রমিকরা সকলেই স্বর্ণ ব্যবসার সাথে যুক্ত ছিলেন।

পরিযায়ীদের ফেরালেন দেব
পাশাপাশি নেপাল এবং জম্মু কাশ্মীরে আটকে পড়া বহু সংখ্যক পরিযায়ীদের ফিরিয়ে আনার আশ্বাসও দিয়েছেন দেব। তাঁর কথায়, ”ভেবেছিলাম ওঁদের ফেরাতে তিনদিনের মতো লেগে যাবে। কিন্তু প্রশাসনের তৎপরতায় ১২ ঘণ্টার মধ্যেই শ্রমিকদের ফিরিয়ে আনা সম্ভব হয়েছে। যাঁদের কাছেই সাহায্যের জন্য গেছি, তারা যদি সকলে ঝাঁপিয়ে না পড়তেন, তাহলে এত দ্রুত ওঁদের উদ্ধার করা সম্ভব হত না”।

সাহায্যের জন্য অনুরোধ করেন মুখ্যমন্ত্রীকে
করোনা ভাইরাসের জেরে জারী হওয়া লকডাউনের মধ্যে নেপালে কাজের জন্য গিয়ে আটকে পড়েন বহু পরিযায়ী শ্রমিক। তাঁদের মধ্যে থেকে ৩৬ জন শ্রমিকের কাছে বৈধ অনুমতি না থাকার দরুণ তারা সেখানেই আটকা পড়ে যায়। ঘাটাল সাংসদ দীপক অধিকারী সমস্ত বিষয়টি শোনা মাত্রই নড়েচড়ে বসেন। ওঁদের ফেরাতে যোগাযোগ করেন দার্জিলিংয়ের জেলাশাসকে সঙ্গে। সীমান্ত পারাপারে সরকারের অনুমতির কথা শুনেই মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জীকে টেক্সট করে জানান। তারপর জোগাড় করা হয় কেন্দ্রের অনুমতি।

ঘাটাল পৌঁছালেন পরিযায়ীরা
স্বরাষ্ট্রমন্ত্রকের সঙ্গে যোগাযোগের মধ্যেই মঙ্গলবার বাস পাঠানো হয় নেপাল সীমান্তে। বুধবার স্বরাষ্ট্রমন্ত্রকের অনুমতি আসা মাত্রই বৃহস্পতিবার মাত্র ১২ ঘণ্টার মধ্যেই তাঁদের ঘাটালে পৌঁছে দেওয়া হয়। এদের মধ্যে ২ জন অন্তঃসত্ত্বা, ৩০ জন ঘাটালের বাসিন্দা এবং হুগলির আরামবাগ এবং বাঁকুড়ার বাসিন্দাও ছিলেন।

এই ঘটনার পরবর্তীতে ঘাটালের মহকুমাশাসক অসীম পাল জানান, “সাংসদের হস্তক্ষেপে বৃহস্পতিবার ৩৬ জন পরিযায়ী শ্রমিককে ঘাটালে ফেরানো সম্ভব হয়েছে। ভারত সীমান্তে আসার পর বুধবার তাঁদের জন্য খাবারের ব্যবস্থা করা হয়েছিল।”

Back to top button
Close