চূড়ান্ত পরীক্ষায় মিলল ফুল মার্কস! উধমপুর-বারামুলা রেললাইনে সফলভাবে সম্পন্ন হল হাই স্পিড ট্রেন টেস্ট

বাংলা হান্ট ডেস্ক: জম্মু ও কাশ্মীরের (Jammu And Kashmir) মধ্যে ট্রেন পরিষেবা চালু করার ক্ষেত্রে আরও একটি বড় পদক্ষেপ সঠিকভাবে সম্পন্ন করল রেল (Indian Railways)। এই প্রসঙ্গে প্রাপ্ত তথ্য অনুযায়ী জানা গিয়েছে যে, বুধবার উধমপুর-শ্রীনগর-বারামুলা-রেল-লিঙ্ক (USBRL) প্রকল্পের কাটরা-বানিহাল সেকশনে বানিহাল এবং খাড়ির মধ্যে একটি পাঁচ কোচের বৈদ্যুতিক ট্রেনের সফল পরীক্ষা সম্পন্ন হয়েছে।

   

উল্লেখ্য যে, এই পরীক্ষার আগে কমিশনার অফ রেলওয়ে সেফটি (CRS) দীনেশ চাঁদ দেশওয়াল বানিহাল এবং খাড়ি রেল স্টেশনের মধ্যে থাকা ১৪.৮৬৯ কিলোমিটার দীর্ঘ রেললাইন পরিদর্শন করেন। এমতাবস্থায়, সেফটি কমিশনার তাঁর রিপোর্ট কেন্দ্রীয় সরকারের কাছে জমা দেবেন। তারপরেই ট্রেন চালানোর প্রক্রিয়া ও তারিখ ঠিক করা হবে।

High speed train test was successfully completed on Udhampur-Baramulla railway line

সূত্রের খবর, CRS বিভিন্ন বিভাগের সিনিয়র রেল আধিকারিকদের সাথে মোটর ট্রলিতে বানিহাল থেকে খাড়ি রেল স্টেশন পর্যন্ত ট্র্যাকটি পরিদর্শন করেছেন। পাশাপাশি, খাড়িতে বৈদ্যুতিক ট্র্যাকশন ইনস্টলেশন ট্র্যাক, টানেল এবং অন্যান্য পরিকাঠামোও পর্যবেক্ষণ করেন। বিকেলে বানিহাল স্টেশন থেকে নতুন ট্র্যাকে পাঁচটি বগি বিশিষ্ট একটি দ্রুতগতির ট্রেনও চালানো হয়। এদিকে, CRS-এর সঙ্গে ছিলেন প্রধান প্রশাসনিক আধিকারিক। রেল সূত্রে খবর, এটাই ট্র্যাকের চূড়ান্ত পরিদর্শন।

আরও পড়ুন: রাম মন্দিরই ডেকে আনবে “লক্ষ্মী”! দেশে হবে ৫০,০০০ কোটির ব্যবসা, সামনে এল বড় তথ্য

এদিকে, রেললাইন পরিদর্শন করার আগে বানিহালে সাংবাদিকদের সাথে কথা বলতে গিয়ে কমিশনার অফ রেলওয়ে সেফটি জানান যে, “পরিকাঠামো ইতিমধ্যেই প্রস্তুত। এমতাবস্থায়, পরিদর্শন প্রক্রিয়া সম্পন্ন করা হচ্ছে। ট্রেন চলাচল শুরু করার আগে যাত্রীদের নিরাপত্তা খুবই গুরুত্বপূর্ণ। বাণিজ্যিক কার্যক্রম শুরু করার আগে, আমরা কমিশনিং এবং ট্রেন পরিচালনা শুরু করার সাথে সম্পর্কিত সমস্ত কিছুর দিকে নজর দিচ্ছি।”

আরও পড়ুন: এবার মহাকাশে হবে ধামাকা! ইলন মাস্কের সাথে হাত মিলিয়ে মাঠে নামছে ISRO, হবে গুরুত্বপূর্ণ মিশন

এদিকে, উত্তর রেল এবং সরকারের তরফে জানানো হয়, USBRL প্রকল্পটি ২০২৪ সালের মার্চের মধ্যে শেষ হবে। বানিহাল এবং খাড়ির মধ্যে থাকা ট্র্যাক বেশিরভাগই টানেলের মধ্য দিয়ে গিয়েছে এবং চারটি ছোট ও বড় সেতুও রয়েছে। এদিকে, এই প্রকল্পের কাজকে স্বাধীনতার পরে গৃহীত অন্যতম চ্যালেঞ্জিং রেলওয়ে পরিকাঠামো প্রকল্প হিসেবে বিবেচনা করা হয়। যা ১৯৯৭ সালে শুরু হয়েছিল। এই প্রসঙ্গে জানিয়ে রাখি যে, গত বছরের ৬ ডিসেম্বর, উত্তর রেল বানিহাল এবং খাড়ি রেল স্টেশন পর্যন্ত বৈদ্যুতিক ট্রেনের প্রথম ট্রায়াল রান সফলভাবে পরিচালিত হয়।