রাম মন্দিরই ডেকে আনবে “লক্ষ্মী”! দেশে হবে ৫০,০০০ কোটির ব্যবসা, সামনে এল বড় তথ্য

বাংলা হান্ট ডেস্ক: আগামী ২২ জানুয়ারি উদ্বোধন হতে চলেছে রাম মন্দির (Ram Mandir)। যার জেরে অযোধ্যায় (Ayodhya) জোরকদমে প্রস্তুতি চলছে। পাশাপাশি, প্রায় প্রতিদিনই রাম মন্দিরের বিষয়ে বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ তথ্যও উঠে আসছে আলোচনার কেন্দ্রবিন্দুতে। সেই রেশ বজায় রেখেই এবার আরও একটি বড় তথ্য সামনে এসেছে।

   

মূলত, গত বুধবার দেশের বৃহত্তম ব্যবসায়ী সংগঠন কনফেডারেশন অফ অল ইন্ডিয়া ট্রেডার্স (Confederation of All India Traders, CAIT) একটি বৈঠক করে। ওই বৈঠক শেষে একটি চমকপ্রদ দাবি করেছে সংগঠনটি। সেটি দাবি করেছে যে, রাম মন্দির উদ্বোধনের ফলে দেশে ৫০,০০০ কোটি টাকার ব্যবসা হবে বলে অনুমান করা হচ্ছে। নাগপুরে হওয়া CAIT কোর গ্রুপের ওই বৈঠকের পর এই পরিসংখ্যান প্রকাশ্যে এসেছে।

50,000 crore business will be done in the country with the inauguration of Ram Mandir

৫০,০০০ কোটি টাকার ব্যবসা: এই প্রসঙ্গে CAIT-র জাতীয় সভাপতি বিসি ভারতীয় জানিয়েছেন, আগামী ২২ জানুয়ারি অযোধ্যায় শ্রী রাম মন্দিরের উদ্বোধনের কারণে CAIT দেশে ৫০,০০০ কোটি টাকার ব্যবসার অনুমান করেছে। ওই বৈঠকে CAIT-র কোর গ্রুপের ব্যবসায়ীরা তাঁদের মতামত দিয়েছেন। তারপর এই তথ্য প্রকাশ করা হয়েছে। উল্লেখ্য যে, সারা দেশে CAIT-র প্রায় ৭ থেকে ৮ কোটি ব্যবসায়িক সদস্য রয়েছে।

আরও পড়ুন: প্রথম চাকরিতেই বাজিমাত সৌরভ কন্যার! কয়েক লক্ষের বেতন পাবেন সানা, জানলে চমকে উঠবেন

কোর গ্রুপ মিটিংয়ে ব্যবসায়ীদের কাছ থেকে মতামত নেওয়া হয়েছে: CAIT-র জাতীয় সভাপতি বিসি ভারতীয় কোর গ্রুপের বৈঠকের পরে জানান যে, সমস্ত রাজ্যের ব্যবসায়ীদের ব্যাপক প্রস্তুতির বিষয়টি কোর গ্রুপের বৈঠকে সামনে এসেছে। CAIT ভারতের সমস্ত রাজ্যের ব্যবসায়ীদের কাছ থেকে মতামত নিয়েছে। যার মধ্যে ছোট ব্যবসায়ী থেকে বড় ব্যবসায়ী সবাই রয়েছে। প্রত্যেকেই আশাবাদী যে রামলালার প্রাণ প্রতিষ্ঠাকে সামনে রেখে ব্যবসায়ীদের ৫০ হাজার কোটি টাকার ব্যবসা হবে। তাই, দীপাবলির সময়ে ব্যবসায়ীরা যেভাবে তাঁদের প্রতিষ্ঠানে পণ্য বিক্রির জন্য প্রস্তুতি রাখেন ঠিক সেভাবেই ব্যবসায়ীদের প্রস্তুতি রাখতে হবে।

আরও পড়ুন: দেওয়া হবে না টাকা, অথচ এই দেশ থেকে তেল কিনবে ভারত! অবাক করবে পুরো ঘটনা

ব্যবসায় আসতে চলেছে বড় ঊর্ধ্বগতি: কনফেডারেশনের অল ইন্ডিয়া ট্রেডার্সের অনুমান অনুযায়ী, প্রাণ প্রতিষ্ঠার দিনে ব্যবসায় একটি বিশাল উত্থান হতে চলেছে এবং ২২ জানুয়ারি দিনটি সারাদেশে একটি জাতীয় উৎসবের মতো পালিত হবে। তাই তারা সরকারের কাছে আবেদনও করেছে। মূলত, ২২ জানুয়ারি দিনটিকে “জাতীয় ছুটি” ঘোষণা করার জন্যও অনুরোধ করা হয়েছে।