‘বৃহত্তর স্বার্থ জড়িত…’, প্রাথমিকের মামলা ছেড়ে দিলেন বিচারপতি গঙ্গোপাধ্যায়, শোরগোল

বাংলা হান্ট ডেস্কঃ প্রাথমিকের একটি মামলা (Case Related Primary Education) ছাড়লেন কলকাতা হাইকোর্টের বিচারপতি অভিজিৎ গঙ্গোপাধ্যায় (Calcutta High Court Justice Abhijit Gangopadhyay)। জানা যাচ্ছে, বিচারপতির মতে, প্রাথমিকের পঠনপাঠন সংক্রান্ত ওই মামলার সঙ্গে বৃহত্তর স্বার্থ জড়িয়ে রয়েছে। তাই মামলাটি কলকাতা হাই কোর্টের প্রধান বিচারপতি টি এস শিবজ্ঞানমের কাছে পাঠিয়েছেন বিচারপতি গঙ্গোপাধ্যায়।

   

জানিয়ে রাখি, এ নিয়োগ দুর্নীতির কোনও মামলা নয়। নিয়োগ দুর্নীতির সঙ্গে এর কোনও যোগ নেই। পঞ্চম শ্রেণিকে পুরোপুরি প্রাথমিকের অন্তর্গত করার দাবি জানিয়ে কলকাতা হাই কোর্টের দ্বারস্থ হয়েছিলেন মামলাকারী বিজেশ গাজী।

তার দাবি, রাজ্যের অনেক স্কুলে প্রথম থেকে চতুর্থ শ্রেণি পর্যন্ত পঠনপাঠন চলে প্রাথমিক বিভাগে। এরপর পড়ুয়ারা পাশ করলে যখন পঞ্চম শ্রেণি ওঠে, তখন তাদের হাইস্কুলে পাঠিয়ে দেওয়া হয়। কিন্তু পঞ্চম শ্রেণির পড়ুয়াকে প্রাথমিকের পড়ুয়া হিসেবেই গণ্য করা হয়।

এই ব্যবস্থায় যাতে বদল আনা হয় সেই দাবি তুলে মামলা দায়ের করা হয়েছে কলকাতা হাইকোর্টে। পঞ্চম শ্রেণি প্রাথমিক শিক্ষা পর্ষদের আওতায় আনার দাবিতেই এই মামলা। আদালতে মামলাকারীর আইনজীবী বলেন, প্রথম থেকে পঞ্চম শ্রেণি পর্যন্ত শিক্ষক নিয়োগের একটাই পরীক্ষা হয়। তাহলে পঞ্চম শ্রেণি প্রাথমিক শিক্ষা পর্ষদের অন্তর্ভুক্ত নয় কেন?

মামলাকারীর আইনজীবীর আরও বক্তব্য, যারা পঞ্চম শ্রেণিতে পড়ে, খাতায়-কলমে তাদের প্রাথমিকের পড়ুয়া হিসেবেই গণ্য করা হয়। তাহলে কেন রাজ্যের হাইস্কুলে পঞ্চম শ্রেণির পঠনপাঠন চলে? সব শুনে মামলাটি জনস্বার্থ মামলা হিসাবে প্রধান বিচারপতির বেঞ্চে শুনানি হওয়া উচিত বলে মন্তব্য করেন বিচারপতি গঙ্গোপাধ্যায়।

high court

আরও পড়ুন: শীত অতীত! আজ থেকে তাণ্ডব দেখাবে বৃষ্টি, দক্ষিণবঙ্গের ৭ জেলায় সতর্কতা: আবহাওয়ার খবর

মামলাতে বিচারপতি গঙ্গোপাধ্যায়ের পর্যবেক্ষণ, ‘এই মামলার সঙ্গে বৃহত্তর স্বার্থ জড়িত রয়েছে। রাজ্য সকারের নীতির প্রশ্ন জড়িয়ে রয়েছে। এটিকে জনস্বার্থ মামলা হিসেবে বিবেচনা করা উচিত’। এরপরই মামলাটি প্রধান বিচারপতির বেঞ্চে পাঠানোর কথা বলেন বিচারপতি।

সম্পর্কিত খবর