বিয়ের ফটোগ্রাফার থেকে পর্দার হিরো, চোখে জল আনবে ‘তোমাদের রানী’র দুর্জয়ের সংগ্রাম কাহিনী

   

বাংলা হান্ট ডেস্ক : ইতিমধ্যেই দর্শকমনে জায়গা করে নিয়েছে রানী (Rani) এবং দুর্জয়ের (Durjoy) কেমিস্ট্রি।‌ গত সপ্তাহেই সিরিয়ালটির সম্প্রচার শুরু হয়েছে, আর তার মধ্যেই রীতিমত আগুন ধরিয়েছে যেন। রানীর চরিত্র তো সকলের পছন্দ হয়েইছে পাশাপাশি দুর্জয়ের চরিত্রটিও বেশ মনে ধরেছে। বিশেষ করে এই চরিত্রের মধ্যে অনেকটা শাহিদ কাপুরের ‘কবীর সিং’ এর ছাপ রয়েছে যেন।

যারা সিরিয়ালটি দেখছেন তারা তো জানেনই স্টার জলসার (Star Jalsha) ‘তোমাদের রানী’র (Tomader Rani) দূর্জয় চরিত্রটি ঠিক নায়কসুলভ হয়েও যেন তা নয়। রগচটা, বদমেজাজী, অহঙ্কারী একজন ডাক্তার‌। যে মনে করে, মেয়েদের বিয়ে করে সংসার করা উচিত। এদিকে রানী আবার সম্পূর্ণ অন্য রকম। যে কারণে সিরিয়ালের শুরুতেই তাদের এক পশলা সংঘাত কিন্তু হয়ে গেছে।

তো এহেন চরিত্রটিতে যিনি অভিনয় করছেন তার নাম হল, অর্কপ্রভ রায় (Arkaprovo Roy)। টেলি দুনিয়ায় নতুন এই নায়ক পর্দায় রগচটা হলেও বাস্তবে কেমন? সম্প্রতি সেইসব নিয়েই এক খোলামেলা আড্ডায় বসলেন অর্কপ্রভ। নিজের জীবনের অনেক অজানা কথা জানালেন দর্শদের। জানা গেল, প্রথমে সাংবাদিকতা নিয়ে পড়াশোনা করেছিলেন। তারপর জুনিয়র আর্টিস্ট হিসেবে কাজ করতে শুরু করেন টলিউডে।

আরও পড়ুন : অবশেষে সূর্যর হাতে এল DNA টেস্টের রিপোর্ট, টিভির আগেই ফাঁস ‘অনুরাগের ছোঁয়া’র ধামাকাদার এপিসোড

কারণ পড়াশোনা জার্নালিজম নিয়ে হলেও অভিনেতা হওয়ার ইচ্ছেটা তার বরাবরই ছিল। এরপর ২০০৯ সালে প্রথম অভিনয় করার সুযোগ পান। সেই সূত্রে চলে যান মুম্বাইতে‌। সেখানে সহকারী পরিচালক হিসেবে চার বছর কাজও করেছেন। পিচারস ২, আশ্রম ৩ এর মত কিছু জনপ্রিয় ওয়েব সিরিজের অংশ ছিলেন তিনি। এরপর ফিরে আসেন বাংলায়।

আরও পড়ুন : ‘তখন প্রেগন্যান্ট ছিলাম…’, বিচ্ছেদের ২৩ বছর পর কোন রহস্য উন্মোচন করলেন স্বস্তিকা?

star jalsha 1588426 h ad2c6731b00c

নবাগত এই অভিনেতা জানালেন, একটা সময় ওয়েডিং ফটোগ্রাফার হিসেবেও কাজ করেছেন তিনি। যদিও এসব নিয়ে তার কোনও আক্ষেপ নেই। কারণ জীবনের ফেলে আসা দিনগুলিতে যে স্ট্রাগল তিনি করছেন সেটাকে জীবনের একটা সফর বলেই দেখতে পছন্দ করেন। তার বাবা পারকাসন এবং তবলা বাজান, মা শ্রুতি নাটক করেন। তারাও বরাবর ছেলেকে সাপোর্ট দিয়ে গেছেন বলেই জানা গেল‌। অভিনেতার ইচ্ছে রয়েছে ভবিষ্যতে বড় পরিচালক এবং প্রযোজক হওয়ার।

Moumita Mondal
Moumita Mondal

মৌমিতা মণ্ডল, গ্র্যাজুয়েশনের পর শুরু নিয়মিত লেখালেখি। বিগত ৩ বছরেরও বেশি সময় ধরে লেখালেখির সাথে যুক্ত। প্রায় ২ বছর ধরে বাংলা হান্ট-এর কনটেন্ট রাইটার হিসেবে নিযুক্ত।

সম্পর্কিত খবর