হারিয়েই দিয়েছিল স্টার্ক, টানটান উত্তেজনার ম্যাচে ১ রানে জয়ী KKR! আশা শেষ বিরাটের

   

বাংলা হান্ট ডেস্ক : রবিবার ইডেনে RCB-র বিরুদ্ধে দূর্ধর্ষ জয়ের পর ফের একবার বাঙালির মনে জায়গা করে নিলেন আন্দ্রে রাসেল (Andre Russell)। এইদিন ম্যাচ প্রায় নিজের পকেটে ঢুকিয়েই নিয়েছিল বেঙ্গালুরু। মিচেল স্টার্কও (Mitchell Starc) প্রায় দায়িত্ব নিয়ে কোহলিদের (Virat Kohli) জেতানোর জন্য মরিয়া হয়ে উঠেছিলেন। তবে শেষমেষ হাসি ফুটল কলকাতার (Kolkata Knight Riders) মুখেই।

রবিবারের বারবেলায় টসে হেরে আগে ব্যাট করতে নেমেছিল কলকাতা। যদিও ফিল সল্ট এবং শ্রেয়স আয়ারের যৌথ উদ্যোগে আগে ব্যাট করেও ২২২ রান করে কলকাতা। ওদিকে দমদার ব্যাটিং শুরু করেছিল বেঙ্গালুরুও। বিরাট কোহলি তো নিজের আউট নিয়ে একপ্রস্থ ঝগড়াও করে নিলেন। তবে এইদিন ভালোই ব্যাট করলেন জ্যাকস এবং পাটীদার।

এই দুই তারকার ঝোড়ো ব্যাটিংয়ে ম্যাচ প্রায় জিতেই গেছিল বেঙ্গালুরু। ওদিকে স্টার্ক তো প্রায় দায়িত্ব নিয়ে বেঙ্গালুরুর হাতে ম্যাচ তুলে দিয়েছিল। শেষ ওভারে স্টার্ককে তিন তিনটি ছয় মারেন কর্ণ শর্মা। তারপর থেকেই প্রশ্ন উঠছে, এই স্টার্ক কাঁটাকে আর কতদিন বয়ে বেড়াবে কলকাতা? এইদিন শর্মার মত একজন অখ্যাত ক্রিকেটারও এইদিন উড়িয়ে দিল স্টার্ককে। এরপর স্টার্কের ব্যর্থতা লুকানো যে শাক দিয়ে মাছ ঢাকার মত ব্যাপার হবে সেকথা বলাই বাহুল্য।

আরও পড়ুন : কলকাতায় অরুচি, বরাত পেল এই রাজ্য! কোটি কোটি টাকার বিনিয়োগ টেসলার

এইদিন প্রথম থেকেই বেশ দাপুটে মেজাজে ছিল বেঙ্গালুরু। প্রথম ওভারে ১২ রান তোলার পর দ্বিতীয় ওভারে ১৫ রান দেয় ২৫ কোটির বোলার মিচেল স্টার্ক। তবে হাইভোল্টেজ এই ম্যাচ আরও সরগরম হয়ে ওঠে বিরাট কোহলির আউটের পর। তবে এইদিন কোনোভাবেই নিজের আউট মেনে নিতে পারেননি রান মেশিন। যদিও আম্পায়াররা তাদের সিদ্ধান্তে অনড়।

আরও পড়ুন : ইডেনে বিরাট বিতর্ক! আম্পায়ারের সিদ্ধান্তে রেগে ফায়ার কিং কোহলি, সরগরম ক্রিকেট মহল

virat kohli (1)

ওদিকে কোহলি ফিরতেই ঝোড়ো ইনিংস শুরু করতে চেয়েছিলেন ডুপ্লেসি। তবে বরুণ চক্রবর্তীর প্রথম বলেই তা থেমে যায়। যদিও উইল জ্যাকস এবং রজত পাটীদারের পার্টানারশিপ দেখে বেজায় চাপে পড়েছিল কেকেআর। কলকাতার বোলারদের যেন এক হাত দেখে নেওয়ার পণ নিয়েই মাঠে নেমেছিলেন তারা। সূযশ শর্মার দ্বিতীয় ওভারেই ওঠে ২২ রান। ছাড় পাননি নারাইনও।

আরও পড়ুন : ঠোঁটে ভেফিকুইক, কাটা ঘায়ে লঙ্কার গুঁড়ো ছিটিয়ে নির্যাতন! লাভ জিহাদের ভয়ঙ্কর পরিণতি মধ্যপ্রদেশে

এমন আবহে ত্রাতা হয়ে আসেন আন্দ্রে রাসেল। ওভারের প্রথয় বলে জ্যাকস এবং শেষ বলে আউট হন পাটীদার। এই জুটিকে ভাঙতেই কোমর ভেঙে যায় বেঙ্গালুরুর। কার্তিক কিছুটা চেষ্টা করলেও শেষ রক্ষা আর হলনা। রাসেলের বলে কার্তিক আউট হতেই চিত্র পরিষ্কার হয়ে গেছিল।

Moumita Mondal
Moumita Mondal

মৌমিতা মণ্ডল, গ্র্যাজুয়েশনের পর শুরু নিয়মিত লেখালেখি। বিগত ৩ বছরেরও বেশি সময় ধরে লেখালেখির সাথে যুক্ত। প্রায় ২ বছর ধরে বাংলা হান্ট-এর কনটেন্ট রাইটার হিসেবে নিযুক্ত।

সম্পর্কিত খবর