লিপ্স অ্যান্ড বাউন্ডস’ মামলায় নয়া মোড়! কালীঘাটের দুটি বাড়ি বাজেয়াপ্ত করল ED, চাঞ্চল্যকর খবর সূত্রের

বাংলাহান্ট ডেস্ক : কেন্দ্রীয় সংস্থা এনফোর্সমেন্ট ডিরেক্টরেট নিয়োগ দুর্নীতির তদন্তে নেমে একাধিক তথ্য সংগ্রহ করে  ‘লিপ্স অ্যান্ড বাউন্ডস’ কোম্পানির। এই সংস্থার সাথে যুক্ত একাধিক কর্মকর্তা ও বোর্ড অফ ডিরেক্টরসকে কেন্দ্রীয় গোয়েন্দা সংস্থা জেরা করে আদালতের নির্দেশে। হাজার হাজার পাতার নথি আদালতে জমা দেয় এনফোর্সমেন্ট ডিরেক্টরেট।

   

ইডি বুধবার আদালতে জানায়, সাড়ে সাত কোটি টাকার সম্পত্তির হদিস মিলেছে  ‘লিপ্স অ্যান্ড বাউন্ডস’ এর। ইতিমধ্যেই সেই সম্পত্তি বাজেয়াপ্ত করার প্রক্রিয়া শুরু করে দেওয়া হয়েছে। ইডি সূত্রে খবর, ‘লিপ্স অ্যান্ড বাউন্ডস’-এর নামে থাকা যেসব সম্পত্তি বাজেয়াপ্ত করার প্রক্রিয়া শুরু হয়েছে সেগুলির মধ্যে রয়েছে কালীঘাটের দুটি বাড়ি।

আরোও পড়ুন :  বাংলাদেশকে বড় উপহার মোদীর! হু হু করে নামবে পেঁয়াজের দাম, বড় সিদ্ধান্তের পথে ভারত

তথ্য অনুযায়ী এই দুটি বাড়ির একটি কিনেছিলেন সুজয়কৃষ্ণ ভদ্র ও অপরটি কিনেছিলেন অমিত বন্দ্যোপাধ্যায়। এছাড়াও এই সংস্থার সম্পত্তির হাদিস পাওয়া গেছে দক্ষিণ ২৪ পরগনার আমতলা এলাকায়। সূত্রের খবর একটি জমি রয়েছে আমতলায়। একটি বাড়ি সেই জমির উপর তৈরি করা হচ্ছে। ইডি ইতিমধ্যেই বাজেয়াপ্ত করার প্রক্রিয়া শুরু করেছে দুটি অর্ধনির্মিত বাড়ি ও জমি।

edff

ইডি আদালতে দাবী করেছে এই বাড়ি ও জমি সম্পূর্ণ ক্রয় করা হয়েছে দুর্নীতির টাকায়। অনেক আগেই কেন্দ্রীয় গোয়েন্দা সংস্থা চার্জশিটে দাবি করে, এই সংস্থার মাধ্যমে কালো টাকা সাদা করার প্রক্রিয়া চালানো হয়েছে। সব সম্পত্তি কেনা হয়েছে এই টাকাতেই। এই সংস্থার যাবতীয় সম্পত্তি প্রথম ধাপে বাজেয়াপ্ত করা হয়েছে। এছাড়াও গোয়েন্দাদের নজরে রয়েছে জলের কারখানা, নিউ আলিপুরের অফিসও।