টাইমলাইনআন্তর্জাতিক

‘আমেরিকার পেছন দৌড়ে বেড়ানো কুকুর হয়ে গেছে কানাডা’, ট্রুডোকে অপমান চীনা কূটনীতিবিদের

বাংলাহান্ট ডেস্কঃ নিজের রূপ দেখাতে শুরু করেছে চালবাজ চীন (china)। নিন্দনীয় ভাষায় আক্রমণ করল কানাডিয়ান প্রধানমন্ত্রী জাস্টিন ট্রুডোকে (Justin Trudeau)। সমস্ত সীমা অতিক্রম করে ফেললেন চীনের কূটনীতিবিদ লি ইয়ান (li yang)। যা নয় তাই ভাষায় ব্যবহার করে আক্রমণ করলেন প্রধানমন্ত্রী জাস্টিন ট্রুডোকে।

এক ট্যুইটে লি ইয়ান মন্তব্য করেন, ‘কানাডাকে আমেরিকার পেছন পেছনে দৌড়ে বেড়ানো কুকুর বানিয়ে ফেলেছেন জাস্টিন ট্রুডো’। সম্প্রতি সময়ে চীন এবংকানাডার মধ্যেকার সম্পর্ক তলানিতে এসে ঠেকেছে। আর সেই বিষয়কেই ইস্যু করে কানাডার প্রধানমন্ত্রী জাস্টিন ট্রুডোকে অকথ্য ভাষায় আক্রমণ করলেন চীনা কূটনীতিবিদ লি ইয়ান।

চীন কানাডার মধ্যেকার সম্পর্কের ফাটলের জন্য জাস্টিন ট্রুডোকে দায়ী করে লি ইয়ান ট্যুইটে লেখেন, ‘বাচ্চা, তোমার সবথেকে বড় দুর্বলতা হল- তুমি চীন এবং কানাডার মধ্যেকার বন্ধুত্বের সম্পর্কটাকে নষ্ট করে দিলে। উল্টে আমেরিকার পেছন পেছনে দৌড়ে বেড়ানো কুকুর বানিয়ে ফেললে কানাডাকে’।

‘পেছন পেছনে দৌড়ে বেড়ানো কুকুর’-এই ধরণের অপমানজনক শব্দ চীন তখনই ব্যবহার করে, যখন কোন দেশ গোলামি করার সমান আমেরিকার সঙ্গ দেয়। আরও নানা বিষয়ে মন্তব্য করলেও কানাডার প্রধানমন্ত্রীর বিষয়ে এমন মন্তব্য খুবই গুরুত্বপূর্ণ চর্চার বিষয় হয়ে উঠেছে, যা অত্যন্ত অপমানজনক।

প্রসঙ্গত জানিয়ে রাখি, প্রথম থেকেই উইঘুরে মুসলিমদের উপর জুলুমবাজি, অত্যাচার এবং অভিযোগ হরণ করার অভিযোগ উঠেছিল চীনের বিরুদ্ধে। যে কারণে চীনের বিরুদ্ধাচারণ করেছে কানাডা। চীনের বিপক্ষে যাওয়ার কারণেই কানাডার প্রধানমন্ত্রীকে এমন কুমন্তব্য শুনতে হল চীনের কূটনীতিবিদের থেকে।

Back to top button