টাইমলাইনবিনোদন

শাহিনবাগের দাদির সঙ্গে গুলিয়ে ‘সম্মানহানি’, কঙ্গনার বিরুদ্ধে মামলা দায়ের পাঞ্জাবের মহিন্দর কউরের

বাংলাহান্ট ডেস্ক: কৃষক আন্দোলন (farmers protest) ইস‍্যুতে ফের বিপাকে পড়লেন কঙ্গনা রানাওয়াত (kangana ranawat)। কৃষক আন্দোলনের মিছিলে পাঞ্জাবের বৃদ্ধা মহিন্দর কউরকে (mahinder kaur) শাহিনবাগের দাদি বিলকিস বানো বলে ভুল করে তীর্যক টুইট করেছিলেন কঙ্গনা। এবার সেই টুইটের পরিপ্রেক্ষিতেই অভিনেত্রীর বিরুদ্ধে মানহানির মামলা দায়ের করলেন মহিন্দর কউর।

পাঞ্জাবের এক আদালতে কঙ্গনার বিরুদ্ধে অভিযোগ দায়ের করেছেন মহিন্দর। ভারতীয় দণ্ডবিধির ৪৯৯ ও ৫০০ ধারায় দায়ের হয়েছে মামলা। আগামী ১১ জানুয়ারি ধার্য হয়েছে মামলার শুনানির তারিখ।


প্রসঙ্গত, কৃষক আন্দোলনের একটি ছবি ভাইরাল হয়েছিল সোশ‍্যাল মিডিয়ায়। সেখানে এক বৃদ্ধা মহিলাকেও আন্দোলনে পা মেলাতে দেখা যায়। সেই ছবি টুইট করে কঙ্গনা লেখেন, এই সেই শাহিন বাগের বিলকিস দাদি। ১০০ টাকার বিনিময়ে কৃষক আন্দোলেও যোগ দিয়েছেন তিনি।

তাঁর এই টুইট ঘিরে তুমুল বিতর্ক শুরু হতে বাধ‍্য হয়ে টুইট মুছেও ফেলেন কঙ্গনা। কিন্তু এত মারাত্মক ভুল করেও ক্ষমা চাননি অভিনেত্রী, এমনটাই বক্তব‍্য মহিন্দর কউরের। তাঁর অভিযোগ, কঙ্গনার মন্তব‍্যের জন‍্য সকলের কাছে তাঁর ভাবমূর্তি নষ্ট হয়েছে।

আগেও কঙ্গনার বিরুদ্ধে ফুঁসে উঠতে দেখা গিয়েছিল বৃদ্ধাকে। তিনি সপাটে মন্তব‍্য করেছিলেন, এই বয়সেও নিজে ফসল ফলান তিনি। ১০০ টাকার কোনো দরকার নেই তাঁর। তবে কঙ্গনা দাবি করেছিলেন, এই মহিন্দর কউরকে নাকি তিনি চেনেনই না।


সম্প্রতি ফের দিলজিৎকে কটাক্ষ করে মুখ খোলেন কঙ্গনা। কৃষকদের উসকে দিয়ে বিদেশে ছুটি কাটাতে চলে গিয়েছেন দিলজিৎ, এমনটাই অভিযোগ তোলেন কঙ্গনা। তার পালটাও দেন দিলজিৎ। একটি ভিডিও টুইট করে দিলজিৎ লেখেন, ‘নিজের ব‍্যাপারে এত ভুল ধারনা নিয়ে আপনি রয়েছেন। ভাববেন না আপনি যা করেছেন তা পাঞ্জাবিরা ভুলে গিয়েছে। আপনাকে আমরা শীঘ্রই উত্তর দেব।

সপাটে উত্তর দিতে ছাড়েননি কঙ্গনাও। তিনি লেখেন, ‘সময় বলবে কে কৃষকদের অধিকারের জন‍্য লড়েছে আর কে তাদের বিরুদ্ধে। একশোটা মিথ‍্যে দিয়ে একটা সত‍্যিকে ঢাকা যায় না। কারোর জন‍্য মন থেকে কিছু করলে তাকে কেউ ঘৃণা করতে পারে না। তুমি ভাবছো গোটা পাঞ্জাব আমার বিরুদ্ধে? এত বড় স্বপ্ন দেখো না।’

এর উত্তরে দিলজিৎ লেখেন, ‘আমি বুঝতে পারি না কৃষকদের সঙ্গে ওঁর সমস‍্যাটা কোথায়। গোটা পাঞ্জাব কৃষকদের সঙ্গে রয়েছে। কেউ আপনার কথা বলেনি।’ এখানেই শেষ নয়, কঙ্গনাকে নিজের PR এর কাজে বহাল করার কথাও বলেন দিলজিৎ।

Back to top button