‘চেয়ারে বসেছিল কেউটে, বাইরে বেরিয়ে গোখরো’! হঠাৎ ফুঁসে উঠলেন মমতা, নাম না করেই কাকে তোপ?

বাংলা হান্ট ডেস্কঃ শনিবার শিলিগুড়ির সভা থেকে ‘নো ভোট টু তৃণমূলে’র ডাক দিয়েছিলেন সদ্য বিজেপিতে যোগ দেওয়া অভিজিৎ গঙ্গোপাধ্যায়। রবিবার ব্রিগেডের জনগর্জন সভা থেকে পাল্টা দিলেন তৃণমূল সুপ্রিমো মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় (Mamata Banerjee)। নাম না করেই বিজেপি নেতা তথা কলকাতা হাই কোর্টের প্রাক্তন বিচারপতিকে অভিজিৎবাবুকে (Abhijit Ganguly) নিশানা করেন তিনি।

আজ জনগর্জন সভা (Jonogorjon Sobha) মঞ্চে দাঁড়িয়ে মমতা বলেন, ‘বিচারবিভাগের কাছে আমি হাত জোড় করে অনুরোধ করছি, মানুষ আপনাদের কাছে বিচার পেতে যায়। দয়া করে বিজেপির চেয়ারে বসে বিচার করবেন না। এতে কাজ হয় না। জনগণের কষ্ট হয়, মন খারাপ হয়। বিচারব্যবস্থাকে আমি সম্মান করি’।

এরপরেই নাম না করে অভিজিৎবাবুকে নিশানা করেন তৃণমূল (TMC) সুপ্রিমো। মমতা বলেন, ‘আলাদা করে আমি কাউকে বলছি না। কিন্তু দেখলেন তো, ওঁদের মুখোশ খুলে গিয়েছে। চেয়ারে বসেছিল কেউটে, বাইরে বেরিয়ে গোখরো হয়ে গিয়েছে। পায়ে হাত দিয়ে প্রণাম করছে বাবুর’। তৃণমূল (Trinamool Congress) নেত্রী কারোর নাম না নিলেও, ওয়াকিবহাল মহলের অনুমান অভিজিৎ গঙ্গোপাধ্যায়কেই নিশানা করেছেন তিনি।

আরও পড়ুনঃ KKR-এর হয়ে কাঁপিয়েছেন বাইশ গজ, এবার TMC প্রার্থী হয়ে ভোট ময়দানে ইউসুফ! ভাই ইরফান কী বলছেন?

গতকাল প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর (Narendra Modi) শিলিগুড়ির সভায় উপস্থিত ছিলেন অভিজিৎবাবু। সভা শেষে সংবাদমাধ্যমের কাছে বলেন, ‘ওঁনার মতো নেতাই আমাদের দরকার। আমি ওঁনার কাছে আশীর্বাদ চেয়েছিলাম, উনি আমায় আশীর্বাদ করেছেন’। এদিন ব্রিগেডের সভা মঞ্চে দাঁড়িয়ে মমতা বলেন, ‘এতদিন অনেক বিচার করেছ। অনেক ছাত্রছাত্রীর চাকরি খেয়েছ। এবার তোমাদের বিচার হবে। জনগণ তোমাদের বিচার করবেন, কী করে এত চাকরি খেয়েছ!’

mamata abhijit

প্রসঙ্গত, কলকাতা হাই কোর্টের বিচারপতির পদে আসীন থাকাকালীন শিক্ষক নিয়োগ দুর্নীতি সংক্রান্ত মামলায় একাধিক উল্লেখযোগ্য রায় দিয়েছিলেন অভিজিৎ গঙ্গোপাধ্যায়। তা নিয়ে রাজ্য রাজনীতিতে তুমুল আলোড়নও সৃষ্টি হয়েছিল। এবার সেই বিচারপতিই আদালতের কক্ষ ছেড়ে রাজনীতির ময়দানে পা রেখেছেন। অভিজিৎবাবুর বিজেপিতে (BJP) যোগদানের পর তাঁর ‘রায়’ নিয়ে আরও বেশি করে সরব হয়েছে তৃণমূল কংগ্রেস। আজ জনগর্জন সভা থেকেও মমতা প্রাক্তন বিচারপতিকেই নিশানা করেছিলেন বলে অনুমান রাজনৈতিক মহলের।

Sneha Paul
Sneha Paul

স্নেহা পাল, যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয় থেকে স্নাতকোত্তরের পর সাংবাদিকতা শুরু। বিগত প্রায় ২ বছর ধরে বাংলা হান্ট-এর কনটেন্ট রাইটার হিসেবে নিযুক্ত।

সম্পর্কিত খবর