তালিকা থেকে হঠাৎ নাম ‘ডিলিটেড’! ভোটই দিতে পারলেন না মুখ্যমন্ত্রীর ভাই বাবুন, বললেন…

   

বাংলা হান্ট ডেস্কঃ একি কাণ্ড! লোকসভা নির্বাচনে ভোটই দিতে পারলেন না খোদ রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের (Mamata Banerjee) ভাই বাবুন তথা স্বপন বন্দ্যোপাধ্যায় (Babun Banerjee)। সোমবার পঞ্চম দফা ভোটের দিন হাওড়া লোকসভা কেন্দ্রের ভোটার বাবুন ভোট দিতে গিয়েই একেবারে থ। দেখেন তালিকায় তার নামের ওপর লেখা ‘ডিলিটেড’। আর এই কারণে ভোটই দিতে পারলেন না মমতার ভাই।

কিন্তু কেন এমন হল? ২০২২ সাল থেকে মধ্য হাওড়ার ৩৭ নম্বর ওয়ার্ডের ভোটার স্বপন বন্দ্যোপাধ্যায়। এদিন যথারীতি ভোটার কার্ড নিয়ে পৌঁছে যান ভোট কেন্দ্রে। তবে সেখানে গিয়ে জানতে পারে তিনি ভোট দিতে পারবেন না। বিষয়টি জানতে পারার সঙ্গে সঙ্গেই সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের কাছে অভিযোগ জানান তিনি।

ভোট দিতে পারবেন না জেনে তড়িঘড়ি হাওড়ার এসডিও সহ প্রশাসনিক আধিকারিকদের সঙ্গে যোগাযোগ করেন মমতার ভাই। অনলাইনে নির্বাচন কমিশনকে চিঠিও দেন তিনি। এই বিষয়ে প্রশ্ন করা হলে স্বপন বন্দ্যোপাধ্যায় জানান, ‘কী যে হল আমার তো মাথাতেই ঢুকছে না। ২২ সাল থেকে ভোটার হয়েছি। একজন নাগরিক হিসেবে ভোট দেওয়া তো অধিকার। তাহলে কেন এমন হল, আমি জানতে চাইছি।’

দুঃখ প্রকাশ করে মমতার ভাই আরও জানান, ‘হাওড়া ভোটারদের জন্য আমার খারাপ লাগছে। এখানে একজন নাগরিক হিসেবে আমার ভোট দেওয়াটা জরুরি ছিল। কেন নাম বাদ গেল সেই বিষয়ে কিছুই জানতে পারলাম না।’

mamata babun

আরও পড়ুন: ‘ওর অত বড় আছে নাকি যে…!’, ভোটের মাঝেই দীপ্সিতাকে নিয়ে এ কী বললেন কল্যাণ! শোরগোল

প্রসঙ্গত, কিছুদিন আগে হাওড়ার প্রার্থী ঘোষণার পর ফুঁসে উঠেছিলেন মুখ্যমন্ত্রীর ভাই বাবুন। হাওড়ার তৃণমূল প্রার্থী প্রসূন বন্দ্যোপাধ্যায়কে নিয়ে ক্ষোভ উগরে দিয়েছিলেন তিনি। প্রসূনের বিরুদ্ধে নির্দল হিসেবে লড়ার হুঁশিয়ারিও দেন বাবুন। এরপরই চরম ক্ষুব্ধ হয়ে মমতা জানিয়ে দেন তিনি ভাই বাবুনের সঙ্গে আর কোনও সম্পর্ক রাখতে চান না। একথা শুনে অবশ্য তৎক্ষণাৎ নিজের অবস্থান বদল করেছিলেন মমতার ভাই। ‘সারাজীবন দিদিমণির সঙ্গেই থাকব, ভাই হয়েই থাকব’, এ কথা বলতে শোনা যায় তাকে। এবার সেই বাবুনই ভোট দিতে না পেরে মর্মাহত।

Sharmi Dhar
Sharmi Dhar

শর্মি ধর, বাংলা হান্ট এর রাজনৈতিক কনটেন্ট রাইটার। উত্তরবঙ্গ বিশ্ববিদ্যালয় থেকে সাংবাদিকতায় স্নাতকোত্তর। বিগত ৩ বছর ধরে সাংবাদিকতা পেশার সঙ্গে যুক্ত ।

সম্পর্কিত খবর