রাম মন্দির উদ্বোধনের দিন হিন্দু কর্মীদের দু’ঘণ্টার বিরতি ঘোষণা! মালদ্বীপ বিতর্কের মাঝেই নজর কাড়ল মরিশাস

বাংলাহান্ট ডেস্ক : সেজে উঠেছে অযোধ্যা। অপেক্ষার হাতেগোনা আর কয়েকটা দিন। আগামী ২২শে জানুয়ারি দীর্ঘ প্রতীক্ষার পর উদ্বোধন হতে চলেছে রাম মন্দিরের। রাম মন্দির উদ্বোধনের অনুষ্ঠানের আমন্ত্রণপত্র পৌঁছে গেছে দেশ-বিদেশের বহু অতিথির কাছে। ভারত ছাড়িয়ে রাম মন্দির উদ্বোধনের উন্মাদনা পৌঁছে গেছে সারা পৃথিবী জুড়ে।

   

রাম মন্দির উদ্বোধন উপলক্ষে এবার বিশেষ উদ্যোগ নিল মরিশাস সরকার। মরিশাসের প্রধানমন্ত্রী প্রবীন্দকুমার যুগনৌথ ঘোষণা করলেন, আগামী ২২শে জানুয়ারি হিন্দু কর্মচারীদের দেওয়া হবে দুই ঘন্টার বিরতি। ২০১১ সালের জনগণনা অনুযায়ী মরিশাসের মোট জনসংখ্যার ৪৮.৫ শতাংশ হিন্দু।

আরোও পড়ুন : দীঘায় যাওয়া আগে সাবধান, শহর জুড়ে ছড়াল নয়া আতঙ্ক! পড়বেন বেজায় বিপাকে

মরিশাস সরকার জানিয়েছে, আগামী ২২ শে জানুয়ারি রাম মন্দির উদ্বোধন উপলক্ষে হিন্দু কর্মচারীদের দেওয়া হবে দু ঘন্টার বিরতি। ২২শে জানুয়ারি এই বিরতি শুরু হবে দুপুর ২ টা থেকে। মরিশাস সরকারের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে, এই সময়টা যাতে হিন্দু কর্মচারীরা নির্দিষ্ট রীতি মেনে প্রার্থনা করতে পারেন সেই জন্যই এই উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে।

আরোও পড়ুন : মাত্র ৩০০ টাকায় রাজার হালে থাকুন দার্জিলিয়ে! পর্যটকদের জন্য অভাবনীয় সুযোগ আনল পশ্চিমবঙ্গ সরকার

২২ শে জানুয়ারি অযোধ্যার রাম মন্দিরে রাম লালার প্রাণ প্রতিষ্ঠা করবেন স্বয়ং প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। এছাড়াও বিভিন্ন ক্ষেত্রে বিশিষ্ট ব্যক্তিত্বরা উপস্থিত থাকবেন উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে। প্রধানমন্ত্রী এর আগে দেশবাসীর কাছে উদ্বোধনের ১১ দিন আগে থেকে  ‘ব্রতপালন’-এর অনুরোধ জানান।

230915082701 04 india ram mandir rebuild

‘অযোধ্যার রামমন্দিরে প্রাণপ্রতিষ্ঠা’ শীর্ষক বিশেষ অনুষ্ঠানে শুক্রবার নিজের ইউটিউব চ্যানেলে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি বলেছেন, রাম মন্দিরের জন্য বিশেষ ব্রত তিনি শুরু করেছেন এদিন থেকেই। একই সাথে প্রধানমন্ত্রী জানান, ধর্মগ্রন্থ অনুযায়ী বিশেষ বিধি ও নিয়ম পালন করে এই 11 দিন কঠিন অনুশাসন তিনি মেনে চলবেন।

সম্পর্কিত খবর