মাস্কের চিপ মাথায় বসিয়ে কামাল, কম্পিউটার চালানো থেকে দাবা খেললেন পঙ্গু ব্যক্তি

বাংলাহান্ট ডেস্ক : মস্তিষ্কের কম্পিউটার ইন্টারফেস প্রযুক্তিতে বড় সাফল্য পেল ইলন মাস্ক-এর কোম্পানি নিউরালিংক। পক্ষাঘাতগ্রস্ত এক ব্যক্তি শুধুমাত্র ভাবনাচিন্তার মাধ্যমে কম্পিউটারে খেললেন দাবা। এই সংক্রান্ত একটি ভিডিও পোস্ট করা হয়েছে নিউরোলিংকের এক্স হ্যান্ডেলে। Noland Arbaugh নামের এক ব্যক্তির কাঁধের নিচের অংশ পক্ষঘাতগ্রস্ত। 

   

নিউরালিংক দাবি করেছে শুধুমাত্র মনের সাহায্যে এই ব্যক্তি কম্পিউটারের কার্সার নিয়ন্ত্রণ করেছেন। Noland Arbaugh প্রায় আট বছর আগে এক ভয়াবহ দুর্ঘটনার মুখোমুখি হন। এই দুর্ঘটনার ফলে তাঁর কাঁধের নিচের অংশ অসার হয়ে যায়। চলতি মাসের জানুয়ারিতে তাঁর মস্তিষ্কে বসানো হয় নিউরালিংক চিপ।

আরোও পড়ুন : জারিজুরি শেষ! INS কলকাতার দাপটে নতজানু জলদস্যুরা, ৩৫ জনকে ধরে আনা হল ভারতে

দুর্ঘটনার পর নোল্যান্ডের দাবা খেলা বন্ধ হয়ে যায়। তবে নিউরালিংক চিপের জন্য তিনি আবার দাবা খেলতে পারলেন। এলন মাস্ক ২০১৬ সালে একটি মেডিকেল গবেষণা ইউনিট হিসাবে প্রতিষ্ঠা করেন নিউরালিংক। প্রতিবন্ধী ব্যক্তিদের গোটা বিশ্বের সাথে যোগাযোগ স্থাপন এই সংস্থার মূল লক্ষ্য।

আরোও পড়ুন : নির্বাচনের সময় কত পরিমাণ মদ মজুত রাখতে পারবেন ঘরে? এই নিয়ম না জানলেই বাড়বে সমস্যা

একটি অত্যাধুনিক ইমপ্লান্ট প্রক্রিয়ায় ইলেক্ট্রোড মস্তিষ্কে প্রবেশ করানো হয়। নিউরাল কার্যকলাপ এবং কম্পিউটিং ডিভাইসের মধ্যে যোগাযোগ স্থাপন করে এটি। আরবাঘ জানিয়েছেন এই অস্ত্রপচারের প্রক্রিয়াটি খুবই সহজ। আরবাঘ বলেছেন যে তিনি নিউরালিংকের অংশ হতে পেরে নিজেকে সৌভাগ্যবান মনে করছেন। প্রতিদিন নতুন নতুন কিছু শিখছেন তিনি।

একটি মুদ্রার আকারের মতো গঠন নিউরালিংক ডিভাইসটির। বর্তমানে এটিকে নিয়ে গবেষণা চলছে। গবেষণায় সফল হলে প্রতিবন্ধীদের চিকিৎসায় আসবে নতুন দিগন্ত। একাধিক প্রতিবেদন বলেছে এই চিপের মাধ্যমে অন্ধ ব্যক্তিরাও দেখতে পাবেন। যাদের শরীর পঙ্গু তাঁরা হাঁটতে পারবেন। মাস্কের ব্রেন-চিপ কোম্পানি 2023 সালের সেপ্টেম্বরে ট্রায়ালের অনুমতি লাভ করে।

Avatar
Soumita

আমি সৌমিতা। বিগত ৩ বছর ধরে কর্মরত ডিজিটাল সংবাদমাধ্যমে। রাজনীতি থেকে শুরু করে ভ্রমণ, ভাইরাল তথ্য থেকে শুরু করে বিনোদন, পাঠকের কাছে নির্ভুল খবর পৌঁছে দেওয়াই আমার একমাত্র লক্ষ্য।

সম্পর্কিত খবর