বিরাট পদক্ষেপ পরিবহন দপ্তরের! টোটো চালকদের দাপাদাপি রুখতে আসছে নতুন নিয়ম

বাংলাহান্ট ডেস্ক : পথে ঘাটে যত্রতত্র বাড়ছে টোটোর দৌরাত্ম। নাজেহাল অবস্থা নিত্যযাত্রীদের। এমত অবস্থায় বারংবার অভিযোগ জানিও সুরাহা মেলেনি প্রশাসনের তরফে। তবে এবার উদ্যোগ গ্রহণ করল পরিবহন দপ্তর। যাত্রী সুরক্ষার কথা ভেবে, টোটোকে এবার নিয়মে বাধতে চলেছে। গ্রাম থেকে শহর সমস্ত জায়গায় স্বমহিমায় দাপিয়ে বেড়াচ্ছে টোটো।

দিন দিন বাড়ছে টোটোর সংখ্যা। কে বৈধ আর কে অবৈধ টোটো চালক তা বোঝার কোন‌ও উপায় নেই। বেকাররাও রয়েছেন, রোজগারের আশায় তারাও ইচ্ছেমত টোটো কিনে রাস্তায় চালাতে শুরু করে দিচ্ছেন। যার ফল ভুগতে হচ্ছে নৃত্য যাত্রীদের। রাস্তাঘাটে প্রায়শই যানজটের সৃষ্টি হচ্ছে। ব্যস্ত সময়ে রাস্তা দিয়ে চলাফেরা করা দায় হচ্ছে সাধারণ মানুষদের।

   

আরোও পড়ুন : অচল হয়ে যাচ্ছে Aadhaar Card! চিন্তায় বহু মানুষ, এবার কেন্দ্রের কাছে হলফনামা তলব করল হাই কোর্ট

বারাসত, মধ্যমগ্রাম, বসিরহাট, বাদুড়িয়া, জয়নগর, বারুইপুর, বহরমপুর, মুর্শিদাবাদ, ডোমকল, জঙ্গিপুর, রঘুনাথগঞ্জ, দুই বর্ধমান সহ রাজ্যের সর্বত্র এখন দেদার টোটোর দৌরাত্ম। টোটোর এই অনিয়ন্ত্রণহীন চলাচলে এবার লাগাম পড়াতে চালু হল কড়া নিয়ম। এবার প্রতিটি বৈধ টোটোয় বিশেষ QR Code-এর ব্যবস্থা করা হল।

আরোও পড়ুন : ৪৯৫ বছর পর অযোধ্যার দরবারে দোল উৎসব! রামলালার জন্য আসছে কাচনার ফুল দিয়ে তৈরি বিশেষ আবির

প্রতিটি টোটোয় এই বিশেষ QR Code সাঁটানো থাকবে, যা স্ক্যান করলে টোটোর রেজিস্ট্রেশন নম্বর, ইঞ্জিন নম্বর, কোন রুটে চলছে, চালকের সম্বন্ধে বিস্তারিত তথ্য পাওয়া যাবে। ফলে কোন‌ও টোটোর বিরুদ্ধে অভিযোগ জানানোর থাকলে যাত্রীরা সহজেই ওই QR Code স্ক্যান করে সবকিছু তথ্য পেয়ে যাবেন এবার হাতের মুঠোয়। যে টোটোয় QR Code থাকবে না, তার চালকের লাইসেন্স বাতিল করা হবে।

Toto,Toto Driver,টোটো,টোটো চালক,পশ্চিমবঙ্গ,West Bengal,Bangla,Bengali,Bengali News,Bangla Khobor,Bengali Khobor

শুধু তাই নয়, বাতিল করা হবে টোটোটির রুট পারমিটও। সংশ্লিষ্ট চালককে আর কোথাও টোটো চালাতে দেওয়া হবে না বলে জানিয়ে দিয়েছে পরিবহন দপ্তর। জঙ্গিপুরে আবার টোটো-কে নিয়ন্ত্রণের রাখতে বিশেষ উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে। সেখানকার টোটো চালকদের নম্বর প্লেট ব্যবহারের কথা জানিয়েছে পরিবহন দপ্তর। যে টোটোয় এই নম্বর প্লেট থাকবে না, সেই টোটো অবৈধ বলে গণ্য হবে।

Avatar
Soumita

আমি সৌমিতা। বিগত ৩ বছর ধরে কর্মরত ডিজিটাল সংবাদমাধ্যমে। রাজনীতি থেকে শুরু করে ভ্রমণ, ভাইরাল তথ্য থেকে শুরু করে বিনোদন, পাঠকের কাছে নির্ভুল খবর পৌঁছে দেওয়াই আমার একমাত্র লক্ষ্য।

সম্পর্কিত খবর