কুইন্টালে ৫ কেজি ধলতা, মালদায় ধান বেচতে গিয়ে সমস্যায় কৃষকরা! গুরুতর অভিযোগ তৃণমূলের বিরুদ্ধে

বাংলাহান্ট ডেস্ক : যে কোনও দেশের উন্নয়নে কৃষকদের অবদান অনস্বীকার্য। কৃষকরা প্রতিদিন অত্যন্ত পরিশ্রম করে নানান প্রতিকূলতার মাধ্যমে চাষ করেন। সেই চাষের দাম অনেক সময় না পাওয়া বা কাটমানি খাওয়ার অভিযোগ ওঠে দেশের বিভিন্ন প্রান্তে। এবার তেমনই একটি ছবি দেখা গেল পশ্চিমবঙ্গে।

   

ধানের সাথে দিতে হচ্ছে ধলতা:

প্রতিবাদে রাস্তায় ধান ফেলে বিক্ষোভ দেখালেন কৃষকরা। সার্ভার জনিত সমস্যার কারণে কৃষকরা সারাদিনও বিক্রয় কেন্দ্রের বাইরে বসে থেকে বিক্রি করতে পারলেন না ধান। আবার ধান বিক্রির সময় কুইন্টাল প্রতি ৫ কিলো করে ধলতা দিতে হচ্ছে অর্থাৎ এক কুইন্টাল ধান বিক্রি করলে অতিরিক্ত পাঁচ কিলো ধান দিতে হচ্ছে। চাষীরা অভিযোগ করেছেন এটি সম্পূর্ণ নিয়ম বিরুদ্ধ।

আরোও পড়ুন : এবার ঘরে ঘরে থাকবে Royal Enfield’র বাইক! মোটরসাইকেলপ্রেমীদের জন্য দুর্দান্ত অফার সংস্থার

শাসক ও বিরোধী দ্বন্দ : 

এই অভিযোগে চাষীরা ধান বিক্রয় কেন্দ্রের সামনে ধান ফেলে রাস্তায় বসে দেখালেন বিক্ষোভ। এই ঘটনার পর প্রশ্ন উঠেছে রাইস মিলের ভূমিকা নিয়েও। বিজেপি পাল্টা অভিযোগ করে দাবি করেছে অতিরিক্ত ৫ কিলো ধান যাচ্ছে তৃণমূল নেতাদের কাটমানি হিসেবে। এই ঘটনাটি ঘটেছে মালদার হরিশ্চন্দ্রপুর ১ নম্বর ব্লকের অন্তর্গত কুশিদা গ্রাম পঞ্চায়েতের ভাটল এলাকায় সরকারি ধানক্রয় কেন্দ্রে।

img 20231130 18475794

কৃষকদের অভিযোগ:

কৃষকরা অভিযোগ করেছেন, দূরদূরান্ত থেকে তারা ধান নিয়ে আসছেন বিক্রির জন্য। এর জন্য তাদের পরিবহন খরচ লাগছে। সারাদিন ধান বিক্রয় কেন্দ্রের সামনে বসে থাকলেও বিক্রি করা যাচ্ছে না ধান। ধান বিক্রয় কেন্দ্রের ম্যানেজার এসে জানিয়েছেন যে মেশিন ও সার্ভারে সমস্যা রয়েছে। জানা যাচ্ছে পরবর্তী সময়ে স্লিপ দিয়ে চাষীদের কাছ থেকে ধান নেওয়া হয়েছে।