টাকা চাই, টাকা দাও! খরচ বেশি হওয়ায় BCCI সচিব জয় শাহ-র কাছে হাত পাতলো পাকিস্তান

বাংলা হান্ট নিউজ ডেস্কঃ এই মুহূর্তে ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ড (BCCI) এবং পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ডের (PCB) মধ্যে চলছে ঠান্ডা লড়াই। আশঙ্কা শোনা যাচ্ছে যে বিসিসিআই পাকিস্তানের মাটিতে চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফি (2025 ICC Champions Trophy) খেলার জন্য ভারতীয় দলকে পাঠাতে চায় না। এর ফলে পাকিস্তান ওই টুর্নামেন্ট আয়োজনের দায়িত্ব হারাতে পারে। নয়তো গত এশিয়া কাপের (2023 Asia Cup) মতো হাইব্রিড মডেলে আয়োজন করতে হতে পারে এই টুর্নামেন্টের। ওই বিষয়টি নিয়ে এশিয়ান ক্রিকেট কাউন্সিল (ACC) এবং জয় শাহের (Jay Shah) ওপর একেবারেই সন্তুষ্ট ছিল না পাকিস্তান ক্রিকেট।

এশিয়া কাপ আয়োজনে বাড়তি খরচ:

   

ভারতীয় দল চলতি বছর এশিয়া কাপ খেলতে পাকিস্তান যেতে রাজি না হওয়ায় পাকিস্তান ও শ্রীলঙ্কার মাটিতে যৌথভাবে এই এশিয়া কাপটি আয়োজন করতে বাধ্য হয়েছিল পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ড। এবার তারা এশিয়ান ক্রিকেট কাউন্সিলের কাছে অভিযোগ করছে যে ভারতীয় দলের এই সমস্যার কারণে তাদের বাড়তি খরচ হয়েছে।

জয় শাহ-র কাছে PCB-র দাবি:

বিসিসিআইয়ের সচিব হওয়ার পাশাপাশি এশিয়ান ক্রিকেট কাউন্সিলের সভাপতির দায়িত্ব পালন করে থাকেন জয় শাহ। এবার তার কাছে এশিয়া কাপ আয়োজনের জন্য অতিরিক্ত খরচের পরিমাণ জানিয়ে সেটিকে দাবী করেছে পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ড। দুই দেশ মিলিয়ে টুর্নামেন্ট আয়োজন হওয়ায় যে অতিরিক্ত খরচ হয়েছে তা ক্ষতিপূরণ হিসেবে চাইছে তারা।

jay shah pcb

ACC বনাম PCB:

তবে পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ডের কাছে ক্ষতিপূরণ পাওয়ার বিষয়টা এত সহজ হবে না। কারণ চলতি বছরের এশিয়া কাপের চারটি ম্যাচ লাহোরে আয়োজন করার কথা ছিল পাকিস্তানের। কিন্তু পিসিবি পড়ে মুলতানকেও এই টুর্নামেন্ট আয়োজন করার একটি ভেন্যু হিসেবে অন্তর্ভুক্ত করে। অনেক পরে খবরটা পাওয়ায় এসিসির কিছু অতিরিক্ত অর্থ ব্যয় হয়েছে তার জন্য। পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ডের কাছে আগে সেই জটিলতার মীমাংসা করার আদেশ দেওয়া হতে পারে।

আরও পড়ুন: রোহিত শর্মা T20 খেলা ছেড়ে দিলে বিপদ বাড়বে তারই! কাঁধের ওপর নিঃশ্বাস ফেলছেন এই তারকা

চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফি নিয়ে ধন্ধে পাকিস্তান:

এই সমস্যার পাশাপাশি 2025 সালে চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফি আয়োজনের সুযোগ যদি পাকিস্তান হারায়, তাহলে সেটা পাকিস্তানের ক্রিকেটপ্রেমীদের কাছে একটা বড় ধাক্কা হবে। কিন্তু এই মুহূর্তে পাকিস্তান ক্রিকেটের অর্থনৈতিক অবস্থা সেই দেশের অর্থনীতির মতোই অত্যন্ত করুন। ফলে আইসিসির বিরুদ্ধে গিয়ে তারা টুর্নামেন্ট বয়কটের সাহস দেখাতে পারবে না এমনটা একপ্রকার নিশ্চিত।