বলাগড়ে ১৩ বছরের নাবালিকাকে ধর্ষণ! তৃণমূল কর্মীর বাড়ি ভাঙচুর, পরিস্থিতি সামলাতে আসরে বিধায়ক

বাংলা হান্ট ডেস্কঃ ফের কাঠগড়ায় শাসকদল। এবার নাবালিকাকে যৌন নিগ্রহের অভিযোগ (Physical Assault Allegation) এক তৃণমূল (Trinamool Congress) কর্মীর বিরুদ্ধে। ২৫ ডিসেম্বর সোমবার বলাগড়ের (Balagarh) শেরপুর এলাকায় ১৩ বছরের এক নাবালিকাকে ধর্ষণের অভিযোগে উত্তপ্ত হয়ে উঠেছে গোটা এলাকা। অভিযুক্ত ওই তৃণমূল কর্মীর বাড়িতে চলে ভাঙচুর।

   

কি ঘটেছিল? সূত্রের খবর, বড়দিনের দিন প্রতিবেশীর বাড়িতে টিভি দেখছিল ১৩ বছরের ওই নাবালিকা। অভিযোগ সেইসময় দেবাশিষ বিশ্বাস নামের এক স্থানীয় তৃণমূল কর্মীদের নাবালিকার হাত ধরে টানতে টানতে নিয়ে গিয়ে তার যৌন নিগ্রহ করে।

ওদিকে এই ঘটনা দেখে ফেলেন প্রতিবেশী এক যুবক। শেরপুর উত্তরপাড়ার বাসিন্দা অভিযুক্ত ওই তৃণমূল কর্মীর হাত থেকে নাবালিকাকে বাঁচানোর চেষ্টা করলে তাকে হুমকি পর্যন্ত দেওয়া হয় বলে অভিযোগ। তবে পরদিন ঘটনার খবর ছড়িয়ে পড়তেই উত্তপ্ত এলাকাবাসী ওই তৃণমূল কর্মীর বাড়িতে হানা দেয়।

অভিযুক্তর দুটি বাড়িতে ভাঙচুর চালায় নাবালিকার পাড়ার লোক। ঘটনার পর থেকে পলাতক ওই অভিযুক্ত তৃণমূল কর্মী। স্থানীয় সূত্রে খবর, অভিযুক্ত যুবকের বাবা সক্রিয় তৃণমূল কর্মী। ওদিকে ঘটনাস্থলে যান বলাগড়ের বিধায়ক মনোরঞ্জন ব্যাপারী। তৃণমূলের বিধায়কের কথায়, ‘দুষ্কৃতীরা মানুষকে ভয় দেখাতে দলের নাম ভাঙায়।’ অপরাধীকে দ্রুত গ্রেফতার করে শাস্তির ব্যবস্থা করার আশ্বাসও দিয়েছেন তিনি।

আরও পড়ুন: শুভেন্দুর বাবাকে প্রণামের জের! শোকজের পর কাঁথি পুরসভার পুরপ্রধানকে ইস্তফার নির্দেশ তৃণমূলের

ওদিকে ঘটনা প্রসঙ্গে কিছুই জানেন না বলে দাবি অভিযুক্তর বাবার। তিনি বলেন, ‘আগে কংগ্রেস করতাম, বহু বছর থেকে তৃণমূল করি। দলের সব কর্মসূচিতেও থাকি। স্থানীয় তৃনমূল নেতৃত্বের আমার উপর আক্রোশ রয়েছে।’

tmc flag

ছেলের প্রসঙ্গে তিনি বলেন, ‘ কী হয়েছে জানি না। ওদের কথায়, ছেলে অপরাধ করেছে। তবে আমার আমার ছেলে এখন মুরগির গাড়িতে কাজ করে। ওর বিয়েও ঠিক হয়ে গিয়েছে। তাই ছেলেকে ফাঁসানোর চেষ্টা হচ্ছে। ‘

সম্পর্কিত খবর