কোচিং ছাড়াই সাফল্য, গরিব ট্রাক চালকের ছেলে আজ SDM, সিনেমাকেও হার মানাবে যোগেশের গল্প

বাংলা হান্ট ডেস্ক : কথাতেই আছে লক্ষ্যে অবিচল থেকে কঠোর পরিশ্রম আর নিষ্ঠা থাকলে সাফল্য (Success Story) ধরা দিতে বাধ্য। সেখানে মফস্বল, ছোট স্কুল, নিম্নবিত্ত পরিবার—কিছুই যে অন্তরায় নয়, তা প্রমাণ করলেন হিমাচল প্রদেশের (Himachal Pradesh) যোগেশ কুমার‌ (Yogesh Kumar)। একজন মামুলি ট্রাক চালকের ছেলের এসডিএম (SDM) হয়ে ওঠার গল্প কোনও সিনেমার গল্পের চেয়ে কম নয়‌।

   

তথ্য বলছে, যোগেশ কুমার (Yogesh Kumar) মান্ডি জেলার কারসোগ মহকুমার কিয়ারগি লোয়ার গ্রামের বাসিন্দা। কিছু চাষ জমি থাকলেও তার পরিবার চলে মূলত ট্রাক চালক বাবার সীমিত আয় থেকে। তার বাবা একজন মামুলি ট্রাক চালক। অন্যদিকে মা একজন গৃহবধূ। এছাড়াও পরিবারে রয়েছে যোগেশের একটি ছোট ভাই।

সূত্রের খবর, ছোটবেলা থেকেই পড়াশোনায় বেশ মেধাবী ছিলেন যোগেশ। যোগেশের প্রাথমিক শিক্ষা কারসোগের শিক্ষা বিদ্যা ভারতী স্কুল থেকে। সেখানে সপ্তম শ্রেণী পর্যন্ত পড়ার পর, তিনি মডেল পাবলিক স্কুল, কার্সোগ থেকে দ্বাদশ পর্যন্ত পড়াশোনা করেন এবং তারপর কাংরি কেন্দ্রীয় বিশ্ববিদ্যালয় শাহপুর থেকে পদার্থবিদ্যায় এমএসসি করেন।

আরও পড়ুন : ‘ও সুবিধাবাদী, ওর কথা ছাড়ুন’, অভিজিৎ গাঙ্গুলিকে বেনজির কটাক্ষ মমতার, আর যা বললেন…

সাল ২০২০ তে এমএসসি শেষ করার পর বাড়ি থেকেই চাকরির প্রস্তুতি নিচ্ছিলেন তিনি। এরপর দু’বার এই পরীক্ষাত বসেছিলেন তিনি। যদিও লিখিত পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হলেও সেই দু’বারই ভাইভাতে গিয়ে আটকে যান। পর পর দু’বার ব্যর্থ হওয়ার পরও আশা ছাড়েননি তিনি। খামতি রাখেননি অধ্যাবসায়তেও। আর তাই তো তৃতীয়বার সাফল্য এসে ধরা দিয়েছে তার হাতে।

আরও পড়ুন : ভোটের আগেই বড় ধাক্কা! বিজেপিতে গেলেন কমল ঘনিষ্ঠ ৭ নেতা, ফাঁপরে কংগ্রেস

has exam results 2024 03 8f245d3a6be2555a4606975bd6e5c433

জেনে অবাক হবেন যে, পর পর দু’বার ব্যর্থ হওয়ার পরেও কোনোরকম কোচিং বা টিউশনের সাহায্য নেননি যোগেশ। সম্পূর্ণ স্ব-অধ্যয়ন ও বন্ধুদের সহযোগিতায় তিনি এই অবস্থান অর্জন করতে সক্ষম হয়েছেন। নিজের এই কঠিন অধ্যাবসায় প্রসঙ্গে বলতে গিয়ে যোগেশ জানিয়েছেন, পড়াশোনার জন্য তিনি লাইব্রেরী এবং ইউটিউবের সাহায্য নিয়েছিলেন। তবে অন্যান্য সোশ্যাল মিডিয়া প্লাটফর্ম তিনি বড়োই কম ব্যবহার করতেন। পরিবারের সমর্থন এবং ইন্টারনেটের দৌলতেই এই সাফল্য পেয়েছেন বলে জানিয়েছেন তিনি।

Moumita Mondal
Moumita Mondal

মৌমিতা মণ্ডল, গ্র্যাজুয়েশনের পর শুরু নিয়মিত লেখালেখি। বিগত ৩ বছরেরও বেশি সময় ধরে লেখালেখির সাথে যুক্ত। প্রায় ২ বছর ধরে বাংলা হান্ট-এর কনটেন্ট রাইটার হিসেবে নিযুক্ত।

সম্পর্কিত খবর