গর্ভাবস্থার পাঁচ মাসেই সন্তানের মৃত্যু! মা হতে না পারার করুণ কাহিনি প্রকাশ্যে আনলেন বলিউড অভিনেত্রী

বাংলাহান্ট ডেস্ক: করোনা কাল অনেকের জীবন থেকে অনেক কিছু কেড়ে নিয়েছে। কেউ হারিয়েছেন আপনজনকে, কেউ হারিয়েছেন চাকরি, কেউ বা কোনো গুরুত্বপূর্ণ সুযোগ। সম্প্রতি নিজের জীবনের সবথেকে কঠিন সময়ের কথা প্রকাশ্যে আনলেন অভিনেত্রী রানি মুখার্জি (Rani Mukerji)। করোনার সময়ে নিজের দ্বিতীয় সন্তানকে গর্ভেই হারিয়েছেন তিনি।

সম্প্রতি মেলবোর্নে ভারতীয় ফিল্ম ফেস্টিভ্যালে গিয়ে নিজের জীবনের এই অজানা দিকটা প্রথম প্রকাশ্যে আনেন রানি। ২০২০ সালে যখন গোটা বিশ্ব করোনার জেরে এক রকম স্তব্ধ হয়ে গিয়েছিল, সে সময়েই রানির জীবনে নেমে আসে দুর্যোগ। আরো অনেক বলিউড অভিনেত্রীর মতো তিনিও অন্তঃসত্ত্বা হয়ে পড়েছিলেন। কিন্তু মাতৃত্বের সুখ পাওয়া হয়ে ওঠেনি তাঁর।

Rani mukerji opened up about her miscarriage

রানি জানান, ২০২০-র শেষের দিকে দ্বিতীয় বার অন্তঃসত্ত্বা হন তিনি। কিন্তু গর্ভাবস্থার পাঁচ মাসের মধ্যেই গর্ভপাতের সম্মুখীন হন রানি। ওই ঘটনার ঠিক ১০ দিন পরেই ‘মিসেস চ্যাটার্জি ভার্সেস নরওয়ে’ ছবির অন্যতম প্রযোজক নিখিল আডবানী তাঁর সঙ্গে যোগাযোগ করেন ছবিটির বিষয়ে। রানি বলেন, ওই সময়ে ছবির বিষয়বস্তুর সঙ্গে খুব ভালভাবেই মেলাতে পেরেছিলেন নিজেকে। তাই হ্যাঁ বলতেও দেরি করেননি তিনি।

আরও পড়ুন: নামেই শুধু ‘সেরা’, জ্যাস-দীপাকে ঘোল খাইয়ে পুরস্কার ছিনিয়ে নিল আসল বেঙ্গল টপার!

রানির প্রথম মা হওয়ার অভিজ্ঞতাও খুব স্বাভাবিক নয়। ২০১৪ সালে পরিচালক প্রযোজক আদিত্য চোপড়াকে বিয়ে করেন তিনি। এক বছর পরেই জন্ম হয় তাঁদের প্রথম সন্তান আদিরার। নির্ধারিত সময়ের দু মাস আগেই সন্তানের জন্ম দিয়েছিলেন রানি। অপরিণত হওয়ায় বেশ কিছুদিন সদ্যোজাতদের আইসিইউতে রাখতে হয়েছিল আদিরাকে।

আরও পড়ুন: সবাইকে মেজাজ দেখিয়ে বেড়াতেন, একমাত্র মিঠুনই আচ্ছা করে জব্দ করেছিলেন রাজ কুমারকে

প্রসঙ্গত, রানিকে শেষবার দেখা গিয়েছিল ‘মিসেস চ্যাটার্জি ভার্সেস নরওয়ে’তে। ছবিটি নিয়ে বেশ বিতর্কও হয়েছিল। তবে রানির অভিনয় প্রশংসিত হয়েছিল ছবিতে। আগের থেকে ছবির পরিমাণ অনেকটাই কমিয়ে দিয়েছেন তিনি। আগামী প্রোজেক্টও এখনো ঘোষণা করেননি অভিনেত্রী।