কণ্ঠস্বর পরীক্ষার ঠিক আগেই ICU তে ভর্তি হল সুজয়কৃষ্ণ! ইডিও ছাড়ার পাত্র নয়, যা ঘটাতে চলেছে…

বাংলা হান্ট ডেস্কঃ টানাপোড়েন অব্যাহত! নিয়োগ দুর্নীতি (Recruitment Scam) মামলায় জেলবন্দি কালীঘাটের কাকু (Kalighater Kaku) ওরফে সুজয়কৃষ্ণ ভদ্রর (Sujaykrishna Bhadra) কণ্ঠস্বরের নমুনা পেতে মরিয়া ইডি। আজ শুক্রবারই কাকুর কণ্ঠস্বরের নমুনা পরীক্ষা করতে চেয়েছিল ইডি (Enforcement Directorates)।
সেই লক্ষ্যে সকালে জোকার ইএসআই হাসপাতাল থেকে বিশেষ অ্যাম্বুলেন্স নিয়ে এসএসকেএমে পৌঁছন ইডির আধিকারিকরা। তবে গিয়েই ‘থ’ সকলে।

   

সূত্রের খবর, হাসপাতালে পৌঁছেই ইডি খবর পায় কালীঘাটের কাকুর বুকে ফের ব্যথা শুরু হয়েছে। সেই কারণে বৃহস্পতিবার রাতেই তাকে আইসিসিইউতে নেওয়া হয়েছে। বর্তমানে আইসিসিইউ এর ১৮ নম্বর বেডে ভর্তি রয়েছেন সুজয়কৃষ্ণ।

হাসপাতাল সূত্রে জানা গিয়েছে, আজ ফের এক দফায় সুজয়কৃষ্ণের স্বাস্থ্য পরীক্ষা করবে এসএসকেএম কর্তৃপক্ষ। শারীরিক অবস্থা বুঝে চিকিৎসকেরা অনুমতি দিলে তবেই সুজয়কৃষ্ণ ভদ্রকে নিয়ে যেতে পারবে ইডি। ওদিকে ইডিও পাল্টা পরবর্তী কঠিন পদক্ষেপের জন্য প্রস্তুত।

শেষ পাওয়া খবর অনুযায়ী কাকুর শারীরিক অবস্থা জানতে এসএসকেএমের সহকারি সুপারের সঙ্গে কথা বলেছে ইডি। প্রসঙ্গত, নিয়োগ দুর্নীতির তদন্তে নেমে আগেই মোবাইল বাজেয়াপ্ত হয়েছে সুজয়কৃষ্ণ ভদ্র ওরফে ‘কালীঘাটের কাকু’র কাছ থেকে। কিন্তু সেখানে পাওয়া কল রেকর্ডিং এর এক প্রান্তের গলা যে ‘কাকু’র, তা প্রমাণ করতে চাই ‘কাকু’র কণ্ঠস্বরের নমুনা। তবে এখনও অধরা সেই কণ্ঠস্বর!

আরও পড়ুন: কপাল খুলল উত্তরবঙ্গের! ২৪ হাজার কোটি টাকা বিনিয়োগের প্রস্তাব, জানাল রাজ্য

প্রথমত, সুজয়কৃষ্ণের গলার স্বরের নমুনার সঙ্গে ওই অডিয়ো ক্লিপের কণ্ঠস্বর মিলে গেলে তবেই প্রামাণ্য নথি হিসেবে আদালত গ্রহণ করবে। দ্বিতীয়ত, অডিয়ো ক্লিপের অপর প্রান্তে থাকা ‘প্রভাবশালীদের’ও পরিচয় সামনে আসবে। এরপর ফোনের অপর প্রান্তে থাকা ব্যক্তির গলার স্বরের নমুনাও পরীক্ষা করে দেখা হবে। একবার কাকুর গলার স্বরের নমুমা মিললেই কোমর বেঁধে ময়দানে নামতে পারবে ইডি।

kalighater kaku

তবে কণ্ঠস্বর পেতে বহু চেষ্টার পরও সফল হয়নি ইডি। একের পর এক বাধা এসেই চলেছে। এর আগে এসএসকেএম হাসপাতাল সূত্রে বারংবার জানানো হচ্ছে অসুস্থ সুজয়কৃষ্ণ। সম্প্রতি চিকিৎসকেরা জানিয়েছেন, প্রবল মানসিক চাপে রয়েছেন কালীঘাটের কাকুর। বিভিন্ন শারীরিক জটিলতাও রয়েছে। এই অবস্থায় তার গলার স্বরের নমুনা সংগ্রহ করতে গেলে সমস্যা বাড়বে। তবে ইডিও ছাড়ার পাত্র নয়। কণ্ঠস্বরের নমুনা দেওয়ার মতো শারীরিক অবস্থা সুজয়কৃষ্ণের আছে কি না, সে বিষয় খতিয়ে দেখতে তৎপর সংস্থা। সেই কারণে আজই সুজয়কৃষ্ণকে এসএসকেএম থেকে জোকার ইএসআই হাসপাতালে নিয়ে যাওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছিল ইডি। তবে এরই মধ্যে ICU তে কালীঘাটের কাকু।