বাধা পুলিশ! মোদীর সভায় না পৌঁছতে পেরে ক্ষুব্ধ সন্দেশখালির মহিলারা! ফের বিক্ষোভের আগুন

বাংলা হান্ট ডেস্ক : আরামবাগ, কৃষ্ণনগরের পর বারাসাতে (Barasat) সভা করলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী (Narendra Modi Barasat Meeting)। এই সভার উপর বিশেষভাবে নজর ছিল বাংলার রাজনৈতিক মহলের। কারণ বারাসাতের পাশেই বসিরহাট লোকসভা কেন্দ্র। আর সেই বসিরহাটের অন্তর্গত ‘সন্দেশখালি’ (Sandeshkhali) এখন ‘হটকেক’। স্বাভাবিকভাবেই সম্ভাবনা ছিল বারাসতের সভা থেকে ফের সন্দেশখালি নিয়ে সুর চড়াবেন মোদী।

   

এইদিন বারাসাত সভার নাম দেওয়া হয়েছিল ‘নারীশক্তি সম্মান সমাবেশ’। সেই মঞ্চ থেকে নরেন্দ্র মোদী বলেন, ‘গোটা দেশে সন্দেশখালি ঝড় উঠবে।’ মোদী যখন এই বার্তা দিচ্ছেন তখন সভায় উপস্থিত ছিলেন দ্বীপাঞ্চলের নির্যাতিতাদের বেশকিছুজন। এইদিন নানা বাধা বিপত্তি কাটিয়ে বারাসাতের এই সমাবেশে হাজির হয়েছিলেন তারা। পাশাপাশি প্রধানমন্ত্রীর সভায় ভিড় করেছিলেন রাজ্যের নানা প্রান্তের প্রতিবাদি মা, দিদিরা।

সূত্রের খবর, সন্দেশখালি থেকে আসা ৫ নির্যাতিতা মহিলার সাথে কথাও বলেছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। সেই সময় অকুলস্থলে উপস্থিত ছিলেন বিজেপি নেতা বিকাশ সিংহও। যদিও এই সভা অবধি পৌঁছাতে নানা কাঠখড় পোড়াতে হয়েছিল তাদের। সভা শেষে একপ্রস্থ বিক্ষোভও দেখাতে শুরু করেন সন্দেশখালির আরও কিছু মহিলা। মঞ্চের পেছনে এই বিষয়ে বিধানসভার বিরোধী দলনেতা শুভেন্দু অধিকারীর সামনে অনুযোগও করেন তারা।

আরও পড়ুন : ‘রাজনীতিতে আপনার মত মানুষের প্রয়োজন’, অভিজিৎ গাঙ্গুলিকে ফোন অমিত মালব্যর! আর কী কথা হল? EXCLUSIVE

107948070

তারা জানিয়েছেন, মোদীর বারাসাতের সভায় আসার সময় নানাভাবে বাধা দেওয়ার চেষ্টা করা হয়। কোথাও বাস আটকে দেওয়া হয়েছে তো কোথাও আবার রাস্তায় সমস্যা তৈরি করা হয়েছে। তাদের অভিযোগ, পুলিশের তত্রাত্বাবধানেই বারাসাতের ডাক বাংলো মোড়ে আটকে দেওয়া হয় তাদের বাস। যে কারণে তারা প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে দেখাও করতে পারেননি বলে জানিয়েছেন সন্দেশখালির মহিলারা।

আরও পড়ুন : সাত সকালে অমিত মালব্যর ফোন, আজই BJP তে যোগ দিচ্ছেন তাপস? কোন কেন্দ্র থেকে লড়বেন?

এইদিন মোদীর সভায় পৌঁছাতে না পেরে ক্ষোভ উগরে দিয়েছেন সন্দেশখালির স্বনির্ভর গোষ্ঠীর প্রধান। তিনি বলেন, ‘প্রধানমন্ত্রী আমাদের আসতে বলেছিলেন। কথা বলতেন। আমাদের তিন জনকে আটকে দেওয়া হয়। হাতিশালার ওখানে আটকে দেওয়া হয়। বারবার আমাদের তল্লাশি করছিল পুলিশ।’ অপর একজন অভিযোগের সুরে জানিয়েছেন, ‘আমরা যেহেতু আন্দোলনকারী, তাই আমরা যাতে প্রধানমন্ত্রীর কাছে পৌঁছতে না পারি, তাই আটকে দেওয়া হয়েছিল।’ ফের যদি কোনোভাবে প্রধানমন্ত্রীর সাথে দেখা করা যায় তারও আর্জি জানিয়েছেন তারা।

 

 

 

Moumita Mondal
Moumita Mondal

মৌমিতা মণ্ডল, গ্র্যাজুয়েশনের পর শুরু নিয়মিত লেখালেখি। বিগত ৩ বছরেরও বেশি সময় ধরে লেখালেখির সাথে যুক্ত। প্রায় ২ বছর ধরে বাংলা হান্ট-এর কনটেন্ট রাইটার হিসেবে নিযুক্ত।

সম্পর্কিত খবর