গ্রাহকদের জন্য সুখবর! স্টেট ব্যাঙ্কে RD করুন ১০০০ টাকার, মোটা অঙ্কের লক্ষ্মীলাভ হবে আপনারও

বাংলাহান্ট ডেস্ক : ভারতের সবথেকে বড় পাবলিক সেক্টর ব্যাংক হল স্টেট ব্যাংক অফ ইন্ডিয়া বা এসবিআই। গোটা দেশে সবথেকে বেশি ব্র্যাঞ্চ রয়েছে এই ব্যাংকের। এই ব্যাংকের কোটি কোটি গ্রাহক রয়েছেন গ্রাম ও শহর জুড়ে। অধিকাংশ মানুষ টাকা সঞ্চয়ের মাধ্যমে হিসেবে বেছে নেন ব্যাংককে।

আবার ব্যাংকের পক্ষ থেকে মাঝে মাঝে বিভিন্ন স্কিম নিয়ে আসা হয় গ্রাহকদের জন্য। এই স্কিমগুলোতে অর্থ সঞ্চয় করলে আপনারা নির্দিষ্ট সময় পর ফেরত পাবেন মোটা অংকের টাকা। আপনি যদি স্টেট ব্যাংকের রেকারিং ডিপোজিটে প্রতি মাসে এক হাজার টাকা করে জমান, তাহলে ১০ বছর পর কত টাকা ফেরত পাবেন জানেন?

আরোও পড়ুন : HDFC, Axis, ICICI এর ক্রেডিট কার্ড আছে? নয়া নিয়ম আনল ব্যাঙ্ক, না জানলেই বিপদ

রেকারিং ডিপোজিট অ্যাকাউন্টে প্রতি মাসে আপনাকে টাকা জমা করতে হয়। ম্যাচুরিটির পর আপনি সুদসহ ফেরত পাবেন সেই টাকা। ন্যূনতম প্রতি মাসে ১০০ টাকা থেকে এই স্কিমে টাকা জমা দেওয়া যায়। তবে আপনি যদি ১০০০ টাকা করে প্রতি মাসে জমান, তাহলে সুদসহ কত টাকা ফেরত পাবেন সেই হিসাব দেখে নেওয়া যাক।

আরোও পড়ুন : প্রেস, ড্রাইভার, সিকিউরিটির প্রবেশ নিষেধ! কাঞ্চনের বিয়েতে জারি ছিল ফতোয়া! ধুয়ে দিলেন শ্রীলেখা, জিতুরা

১ বছরে ৬.৮০ শতাংশ, ২ বছরে ৭.০০ শতাংশ, ৩ বছরে ৬.৫০ শতাংশ, ৪ বছরে ৬.৫০ শতাংশ ও ৫ বছরে ৬.৫০ শতাংশ সুদ স্টেট ব্যাংক দিয়ে থাকে রেকারিং ডিপোজিট অ্যাকাউন্টে। এক বছরের জন্য আপনি যদি প্রতিমাসে এক হাজার টাকা করে জমান, তাহলে ম্যাচুরিটির পর সুদসহ ফেরত পাবেন ১২,৪৪৯ টাকা।

দু বছরের জন্য প্রতি মাসে ১০০০ টাকা করে রেকারিং ডিপোজিট অ্যাকাউন্টে ফেললে, আপনি ম্যাচুরিটির পর ফেরত পাবেন ২৫,৮২০ টাকা। প্রতিমাসে ১০০০ টাকা করে আপনি যদি তিন বছরের রেকারিং ডিপোজিট করেন, তাহলে ম্যাচুরিটির পর ফেরত পাবেন ৩৯,৮২৪ টাকা। সেক্ষেত্রে চার বছরের জন্য আপনি যদি প্রতিমাসে ১০০০ টাকার রেকারিং ডিপোজিট করেন, তাহলে মেয়াদ শেষে আপনি পাবেন ৫৪,৯০৫ টাকা।

state bank of india

পাঁচ বছরের জন্য প্রতি মাসে ১০০০ টাকার রেকারিং ডিপোজিট করলে ম্যাচুরিটির শেষে আপনাকে প্রদান করা হবে ৭০,৯৮৯ টাকা। এক্ষেত্রে আপনি যদি ১০ বছরের জন্য প্রতিমাসে এক হাজার টাকার রেকারিং ডিপোজিট করেন, তাহলে ম্যাচুরিটি শেষে হাতে পাবেন ১,৬৮,৯৮৩ টাকা।

Avatar
Soumita

আমি সৌমিতা। বিগত ৩ বছর ধরে কর্মরত ডিজিটাল সংবাদমাধ্যমে। রাজনীতি থেকে শুরু করে ভ্রমণ, ভাইরাল তথ্য থেকে শুরু করে বিনোদন, পাঠকের কাছে নির্ভুল খবর পৌঁছে দেওয়াই আমার একমাত্র লক্ষ্য।

সম্পর্কিত খবর