১০০ দিনের কাজের ৭৫ কোটি ‘ঝেড়েছেন’! এবার কাঠগড়ায় তৃণমূল বিধায়কের মা, বিস্ফোরক শুভেন্দু

বাংলা হান্ট ডেস্কঃ গত বছর থেকে দুর্নীতির (Corruption) অভিযোগে শোরগোল রাজ্যে। নিয়োগ দুর্নীতি, পুর নিয়োগ দুর্নীতি, কয়লা পাচার, গরু পাচার, রেশন দুর্নীতি আরও কত কি। নিত্যদিন দুর্নীতির তালিকায় নয়া সংযোজন। জুড়ছে রাজনৈতিক নেতাদের নাম, আর সেই নিয়েই চড়ছে রাজনৈতিক উত্তাপ। এসবের মাঝেই এবার তৃণমূল বিধায়কের মায়ের বিরুদ্ধে ১০০ দিনের কাজের (100 Day’s Work) কোটি কোটি টাকা তছরূপের অভিযোগ তুলে সরব হলেন বিরোধী দলনেতা শুভেন্দু অধিকারী (Suvendu Adhikari)।

   

বুধবার দক্ষিণ ২৪ পরগনার বারুইপুরে ভারতীয় জনতা যুব মোর্চার সভায় উপস্থিত ছিলেন নন্দীগ্রাম বিধায়ক শুভেন্দু অধিকারী। সেখানেই বক্তব্য রাখতে গিয়ে বিস্ফোরক অভিযোগ করেন বিরোধী দলনেতা। সরাসরি তৃণমূল বিধায়কের মা-কে নিশানা করে শুভেন্দুর অভিযোগ, ১০০ দিনের কাজ মনরেগার বিপুল পরিমাণ টাকা নয়ছয় করেছেন তিনি।

কুলতলির (Kultali) তৃণমূল বিধায়ক গণেশ মণ্ডলের মা-র বিরুদ্ধে অভিযোগ তুলে শুভেন্দু বলেন, ১০০ দিনের কাজ মনরেগার প্রায় ৭৫ কোটি টাকা ‘ঝেড়েছেন’ তিনি। শুভেন্দুর কথায়, ‘বাংলাকে ১০০ দিনের কাজে কেন্দ্র সরকার ৫৪ হাজার কোটি টাকা দিয়েছে। সেই সব টাকা কোথায় গেল?’ প্রশ্ন শুভেন্দুর।

আরও পড়ুন: ‘ফের কারও নির্দেশে বলি দিতে যাবেন না’, শুভেচ্ছার ভাঁজে ভাঁজে নয়া ডিজি রাজীবকে বার্তা কুণালের

বিরোধী দলনেতা বলেন, “পাশেই গণশা মণ্ডল বলে এক বিধায়ক আছে। কুলতলির বিধায়ক। তার মা মৌরিবালা মণ্ডল আবার গ্রাম পঞ্চায়েতের প্রধান। নাম হল মৌরিবালা মণ্ডল। ওই মৌরিবালা একাই মনরেগায় ৭৫ কোটি টাকা ঝেড়েছে।”

suvendu

বর্তমানে ১০০ দিনের কাজের বকেয়া নিয়ে রাজ্যে শোরগোল। সম্প্রতি এই ইস্যুতে মোদী-মমতা বৈঠকও হয়েছে। এই অবহেই গতকাল ফের শুভেন্দু বলেন, “চোরেদের ধরে জেলে ভরলেই ১০০ দিনের কাজের টাকা দিয়ে দেবে কেন্দ্রীয় সরকার। সব টাকা দিয়ে দেওয়া হবে। একটি পাওনা টাকাও মার যাবে না। আপনারা শুধু কাগজ গুছিয়ে রাখুন।”

সম্পর্কিত খবর