‘জেতার তিন ঘণ্টা পরেই…না হলে আমার নাম শুভেন্দু নয়’, তৃণমূলকে কড়া হুঁশিয়ারি শুভেন্দুর

বাংলাহান্ট ডেস্ক : আজ বিশ্বকর্মা পুজো। বিগত বছরগুলোর মতো এই বছরেও ধুমধাম করে বিশ্বকর্মা পুজোর আয়োজন করেছিল হলদিয়া টাটা স্টিল ও টাটা পাওয়ার কন্ট্রাক্টর মজদুর। সেই পুজোর উদ্বোধনেই হাজির হয়েছিলেন বিজেপি নেতা (Bharatiya Janata Party) শুভেন্দু অধিকারী (Suvendu Adhikari)।

সেখান থেকে এই বিজেপি বিধায়ক শাসক দলকে চাঁচাছোলা ভাষায় আক্রমণ করেন। একইসঙ্গে তিনি দায়িত্বে থাকাকালীন অবস্থায় কীভাবে এলাকায় উন্নয়ন হয়েছে সেই সম্পর্কেও বিস্তারিত ব্যাখা দেন। তৃণমূল কংগ্রেসকে কড়া হুঁশিয়ারি দিয়ে রাজ্যের বিরোধী দলনেতা শুভেন্দু বলেন, লোকসভা ভোটে ক্ষমতায় এলে তিন ঘণ্টার মধ্যে তৃণমূলের শ্রমিক সংগঠনকে উৎখাত করব।

আরোও পড়ুন : এক লক্ষ চাষীকে দেওয়া হবে পোস্ত চাষের লাইসেন্স! ‘বিশেষ চাহিদা’ মেটাতে এবার নতুন সিদ্ধান্ত সরকারের

রাজ্যের বিরোধী দলনেতার অভিযোগ, এখন আর কোনও কাজই হয় না। পাশাপাশি তাঁর মতে, আমি দায়িত্বে থাকাকালীন জেলায় বহু উন্নয়ন হয়েছে। দুঃস্থ মানুষকে সাহায্য, স্কুলগুলিকে আর্থিক সহায়তা, রাস্তাঘাট নির্মাণ করা, এলাকাকে দুষণমুক্ত করার জন্য গাছ বসিয়েছিলাম বলেও তিনি উল্লেখ করেন।

আরোও পড়ুন : মনপসন্দ না হলেও পাতে রাখুন হাজারগুণের এই মাছ! অসুখ থেকে মিলবে মুক্তি

সেই সঙ্গে তাঁর দাবি আগামী লোকসভা ভোটে হলদিয়া ও কাঁথি কয়েক লাখ ভোটে জয়লাভ করবে। এদিকে, সামনেই লোকসভা ভোট। তিনি বলেন, ‘পঞ্চায়েতে ভোট লুঠ করেছে। লোকসভায় এটা হবে না। যেদিন হারবে পরের দিন হলদিয়ার কারখানার গেট থেকে চোর তৃণমূলকে উৎখাত করব। যদি না পারি তবে আমার নাম শুভেন্দু অধিকারী নয়।’

suvendu adhikari

বলা বাহুল্য, তিনি যখন তৃণমূলে ছিলেন তখন হলদিয়া উন্নয়ন পর্যদের চেয়ারম্যান পদে ছিলেন তিনি। হলদিয়ায় তখন শেষ কথা ছিলেন তিনিই। কিন্তু তৃণমূলে থাকাকালীন শাসকদলের মন্ত্রী হিসাবে যে প্রভাব ছিল সেটা আগের তুলনায় কিছুটা কমেছে। তবে গতবারের আসন ধরে রাখাটাই এবার বড় পরীক্ষা বিজেপির কাছে। শেষ পর্যন্ত ব্যালট বাক্স কী বলে সেটাই দেখার।

Avatar
Soumita

আমি সৌমিতা। বিগত ৩ বছর ধরে কর্মরত ডিজিটাল সংবাদমাধ্যমে। রাজনীতি থেকে শুরু করে ভ্রমণ, ভাইরাল তথ্য থেকে শুরু করে বিনোদন, পাঠকের কাছে নির্ভুল খবর পৌঁছে দেওয়াই আমার একমাত্র লক্ষ্য।

সম্পর্কিত খবর