আন্তর্জাতিকটাইমলাইনভারত

জমি মাফিয়া চীনের বিরুদ্ধে আক্রোশে ফুঁসছে জাপানিরা, বিরোধ প্রদর্শন করতে নামল রাস্তায়

বাংলাহান্ট ডেস্কঃ ”কথায় বলে অতি বার বেড়ো না ঝড়ে পড়ে যাবে” বর্তমানে চীনের (China) অবস্থাও তাই। দাদাগিরি দেখাতে দেখাতে কখন যে গোটা বিশ্বই চীনের বিরুদ্ধে চলে যাচ্ছে, তা ঠাহর করতে পারেনি জিনপিং (Xi Jinping) সরকার। প্রতিবেশি দেশগুলোকে কবজা করা থেকে শুরু করে ভারতের সঙ্গে সীমা বিবাদ, তার মাঝে ছিল আবার করোনা ভাইরাস। সবকিছুকে নিয়ে বর্তমানে চীন সরকারকে কোণঠাসা করে প্রতিবাদে সোচ্চার হয়েছে গোটা বিশ্ব।

চীনের বিরুদ্ধে বিক্ষোভ দেখাল জাপান
সম্প্রতিকালে চীনের বিরুদ্ধে প্রতিবাদে সোচ্চার হয়েছে জাপানও (Japan)। জাপানের মানবাধিকার সংগঠনের জিনপিং সরকারের দাদাগিরির প্রতিবাদে পথে নেমেছে জাপানবাসী। ভারত চীন সংঘাতের মধ্যে গত রবিবারই জাপান থেকে এই চিত্র দেখা গিয়েছে। জাপানের রাজধানী টোকিওর শিবিয়া স্টেশনের কাছাকাছি হাচকোর মূর্তির সামনে এই বিক্ষোভ প্রদর্শন করা হয়। মানবাধিকার কমিশনের সদস্য সহ সাধারণ মানুষও এই প্রতিবাদে অংশ নিয়েছিল।

জাপানের সমুদ্র সীমায় চীনা যুদ্ধ জাহাজ
চীনের বিরুদ্ধে দেখানো জাপানের এই প্রতিবাদকে কোন মতেই হালকা ভাবে নেওয়া যাবে না। কারণ বেশ কয়েকদিন ধরেই চীন এবং জাপানের মধ্যে বিরোধ লেগেই রয়েছে। বিগত কয়েক বছরে এই সংঘাত কিন্তু দেখা যায়নি। সূত্র মারফত জানা যায়, সম্প্রতিকালে জাপানি যুদ্ধ জাহাজ কাগা, দক্ষিণী জাপানের ওকিনাবা দ্বীপের পার্শ্ববর্তী অঞ্চলে জাপানের সীমার থেকে ২৪ মেইল ভেতরে একটি চীনা যুদ্ধ জাহাজকে দেখতে পায়। যার পরবর্তীতে জাপানি নৌসেনারা নিজদের পেট্রোলিং এয়ার ক্র্যাফটের মাধ্যমে চীনের যুদ্ধ জাহাজকে নিজেদের সীমা থেকে বের করে দেয়।

জাপানের দ্বীপ বেআইনিভাবে হস্তগত করে চীন
পূর্বেও ২০১৮ সালে জাপানী সমুদ্র সীমার মধ্যে একটি চীনা যুদ্ধ জাহাজ ধরেছিল জাপানি সেনা। জাপান এবং চীনের মধ্যেকার সংঘর্ষের পেছনে চীনের বিস্তারবাদি নীতি কাজ করছে। শুধু তাই নয়, চীন সরকার জাপানের বিভিন্ন দ্বীপ নিজের মানচিত্রে বেআইনিভাবে ঢুকিয়ে নামও পরিবর্তন করে দিয়েছে। সূত্র মারফত জানা যায়, ১৯৭২ সাল থেকে জাপানের অধিকৃত সেন্টাকুশ দ্বীপকে হস্তগত করার লক্ষ্যে চীন সেটিকে দিয়াও ইয়ুস নাম দিয়ে নিজের বলে দাবী করে।

২০১২ সাল থেকেই দ্বীপ বিবাদে জড়িয়ে পরে এই দুই দেশ। জাপানের অধিকৃত দ্বীপের উপর চীনের কমিউনিস্ট পার্টি কবজা করতে চেয়েছিল। সেই সময় যদি চীন যুদ্ধের জন্য পা বাড়াত, তাহলে সেই যুদ্ধের ভয়ঙ্কর পরিণত দেখত গোটা বিশ্ব। এই পরিস্থিতিতে ভারতের সাথে সীমা বিবাদে লিপ্ত হয়ে চীন বর্তমানে জাপানের সঙ্গে আর সংঘাতে জড়িয়ে নতুন করে নিজের বিপদ ডেকে আনতে চাইছে না।

Back to top button