এবার ভয়াবহ প্রাকৃতিক দুর্যোগের সম্মুখীন চিন! ঘুম উড়েছে সরকারের, বড় নির্দেশ দিলেন আতঙ্কিত জিনপিং

   

বাংলা হান্ট ডেস্ক: সাম্প্রতিক সময়ে চিন (China) ভয়াবহ প্রাকৃতিক বিপর্যয়ের সম্মুখীন হয়েছে। মূলত, প্রবল বন্যার কারণে রীতিমতো ঘুম উড়েছে সেদেশের সরকারের। শুধু তাই নয়, রাজধানী বেজিং সহ উত্তর চিনের একাধিক এলাকাই ভয়াবহ বন্যায় ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে।

পাশাপাশি, ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে বহু ঘরবাড়ি। ভারী বর্ষণের কারণে উপচে পড়া নদীগুলিই রীতিমতো তোলপাড় সৃষ্টি করেছে। এমতাবস্থায়, বন্যায় আতঙ্কিত হয়ে চিনের প্রেসিডেন্ট শি জিনপিং (Xi Jinping) কার্যকর পদক্ষেপ নিতে কঠোর নির্দেশ দিয়েছেন।

This time, China is facing a terrible natural disaster

বিপদসীমার ওপর দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে ৯০ টি নদী: উল্লেখ্য যে, ইতিমধ্যেই চিনের প্রেসিডেন্ট শি জিনপিং সাম্প্রতিক সময়ের ভয়াবহ বন্যার বিধ্বংসী প্রভাব দ্রুত মোকবিলা এবং প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণের নির্দেশ দিয়েছেন। চিনে এই বন্যার কারণে বহু মানুষ মারা গেছেন। বেজিং ও তার আশেপাশের এলাকাসহ বিভিন্ন স্থানে ফসল, ঘরবাড়ি ও পরিকাঠামোর ব্যাপক ক্ষতি হয়েছে। এমনকি, কমপক্ষে ৯০ টি নদী বিপদসীমার ওপর দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে বলেও জানা গিয়েছে।

আরও পড়ুন: পাকিস্তানকে সাহায্য করা চিন এবার নিজেই খেল বড় ধাক্কা! ইতিহাসের সবথেকে বড় বিপদের সম্মুখীন ড্রাগন

বিপদের মধ্যে রয়েছেন ১০ কোটি মানুষ: একই সঙ্গে দেশের উত্তর-পূর্বাঞ্চলের বিস্তীর্ণ অংশে বন্যার আশঙ্কা রয়েছে। এর মধ্যে রয়েছে রাজধানী বেজিংয়ের উত্তরে সোংলিয়াও বেসিন। যেখানে প্রায় ১০ কোটি মানুষ বসবাস করেন। এদিকে, গত বৃহস্পতিবার প্রেসিডেন্ট জিনপিংয়ের সভাপতিত্বে পলিটব্যুরোর স্থায়ী কমিটির বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়।

আরও পড়ুন: অপ্রতিরোধ্য ভারত! আর্থিক উন্নয়নের ক্ষেত্রে চিনকে হারিয়ে দিয়ে এবার এই বিরাট তকমা পেল দেশ

ওই বৈঠকের বিশদ বিবরণ দিয়ে, নিউজ এজেসি শিনহুয়া জানিয়েছে যে, বৈঠকে অংশগ্রহণকারীরা জনগণের জীবন ও সম্পত্তিকে অগ্রাধিকার দিতে এবং বন্যা প্রতিরোধ ও ত্রাণ তৎপরতা ত্বরান্বিত করার জন্য সংশ্লিষ্ট অঞ্চল এবং বিভাগকে নির্দেশ দিয়েছেন। এই প্রসঙ্গে জানিয়ে রাখি যে, গত জুলাই মাসে চিনে বন্যার কারণে ১৪২ জনের মৃত্যু হয়। এদিকে, চলতি মাসেও ভয়াবহ বন্যার কারণে বিপুলসংখ্যক মানুষের মৃত্যু হয়েছে।

Sayak Panda
Sayak Panda

সায়ক পন্ডা, মেদিনীপুর কলেজ (অটোনমাস) থেকে মাস কমিউনিকেশন এবং সাংবাদিকতার পোস্ট গ্র্যাজুয়েট কোর্স করার পর শুরু নিয়মিত লেখালেখি। ২ বছরেরও বেশি সময় ধরে বাংলা হান্ট-এর কনটেন্ট রাইটার হিসেবে নিযুক্ত।

সম্পর্কিত খবর