ভিক্টোরিয়ার ৩ কিমির মধ্যে আর করা যাবে না এই কাজ! কড়া নির্দেশ হাইকোর্টের

বাংলা হান্ট ডেস্ক: কলকাতা (Kolkata) শহর তথা আমাদের রাজ্যের (West Bengal) অন্যতম সুপ্রাচীন এবং জনপ্রিয় সৌধ হল ভিক্টোরিয়া মেমোরিয়াল (Victoria Memorial)। প্রতিদিনই পর্যটকদের ভিড় পরিলক্ষিত হয় সেখানে। তবে, এবার ভিক্টোরিয়া মেমোরিয়ালের প্রসঙ্গে বড় আপডেট সামনে এসেছে। এই প্রসঙ্গে প্রাপ্ত তথ্য অনুযায়ী জানা গিয়েছে যে, দূষণের হাত থেকে এই সৌধকে বাঁচাতে গুরুত্বপূর্ণ নির্দেশ দিল কলকাতা হাইকোর্ট (Calcutta High Court)।

   

আদালতের নির্দেশ অনুযায়ী, এখন থেকে এই সৌধের ৩ থেকে ৪ কিলোমিটারের মধ্যে উনুন জ্বালানো যাবে না বা কাঠ কয়লা দিয়ে আগুনও জ্বালানো যাবে না। প্রসঙ্গত উল্লেখ্য, এই বিষয়ে দীর্ঘদিন ধরেই পরিবেশপ্রেমীদের দাবি ছিল। যেটির পরিপ্রেক্ষিতে অবশেষে সম্মতি মিলল কলকাতা হাইকোর্টের বিচারপতি দেবাংশু বসাক ও বিচারপতি শম্পা সরকারের ডিভিশন বেঞ্চের কাছ থেকে।

This work can no longer be done within 3 km of Victoria

পাশাপাশি, ইতিমধ্যেই এই বিষয়টি সুনিশ্চিত করার লক্ষ্যে কলকাতা হাইকোর্টের তরফে কলকাতা পুরসভাকে মৌখিকভাবে নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। গত শুক্রবারই এই নির্দেশ জানিয়ে বলা হয় যে, এই স্মৃতি সৌধের ৩ থেকে ৪ কিলোমিটারের মধ্যে যেন উনুন জ্বালিয়ে রান্না করা না হয়। আর এই বিষয়টিকেই নিশ্চিত করতে হবে পুরসভাকে। শুধু তাই নয়, ওই অঞ্চলের মধ্যে কোনো অস্থায়ী দোকান বা স্টলে যাতে দূষণ সৃষ্টিকারী কাজ না হয় সেই বিষয়েও নজর রাখার নির্দেশ দিয়েছে হাইকোর্ট।

আরও পড়ুন: মিস করবেন না সুযোগ! সস্তায় সোনা বিক্রি করবে সরকার, তৈরি থাকুন এই তারিখের জন্য

আগামী দিনে এই বিষয়ে পুরসভাকে লিখিত নির্দেশও দিতে পারে হাইকোর্ট। এছাড়াও, ভিক্টোরিয়া চত্বরে সিগন্যালে যাতে যানবাহনগুলি বেশিক্ষণ দাঁড়াতে না পারে সেই বিষয়ে মামলার শুনানিতে মামলাকারী সুভাষ দত্ত আবেদন করেন হাইকোর্টের কাছে। এর পাশাপাশি তিনি ভিক্টোরিয়ার দিকে গ্রিন করিডোর করার আবেদনও জানিয়েছেন। এই প্রসঙ্গে তিনি দাবি করেন তাজমহলকে বাঁচাতে যেমন তার আশেপাশে যান চলাচলের নিষিদ্ধ করা হয়েছে, ভিক্টোরিয়ার ক্ষেত্রেও সেটি করা উচিত।

আরও পড়ুন: “স্মাইল প্লিজ”, সূর্যের গুরুত্বপূর্ণ সব ছবি তুলল আদিত্য L-1! বিজ্ঞানীরা পেলেন বড় তথ্য, জানাল ISRO

প্রসঙ্গত উল্লেখ্য, দীর্ঘদিন ধরেই পরিবেশবিদদের দাবি ছিল যে, ধর্মতলার বাস টার্মিনাস সহ অন্যান্য দূষণের কারণে ভিক্টোরিয়া মেমোরিয়াল ও অন্যান্য হেরিটেজ সৌধের ক্ষতি হচ্ছে। এমনকি, এই দাবির ওপর ভর করে ২০০৭ সালে কলকাতা হাইকোর্টে মামলা করেছিলেন পরিবেশকর্মী সুভাষ দত্ত। সেইসময় বাস টার্মিনাস তুলে দেওয়ার নির্দেশ দিয়েছিল কলকাতা হাইকোর্ট। যদিও, পরবর্তীকালে ওই মামলা গড়ায় সুপ্রিম কোর্ট পর্যন্ত। সেখানেও দেশের শীর্ষ আদালত ধর্মতলা থেকে বাস স্ট্যান্ড সরানোর নির্দেশ দেয়। কিন্তু ১২ বছর হয়ে গেলেও সেই নির্দেশ কার্যকর হয়নি। এই অভিযোগে ফের একবার কলকাতা হাইকোর্টে মামলা দায়ের করেন পরিবেশ কর্মী সুভাষ দত্ত।