‘যারা হিজাব পরেনা তারা চরিত্রহীন’, বিতর্কিত মন্তব্য করে শিরোনামে কেরালার মুসলিম ধর্মগুরু

বাংলা হান্ট ডেস্ক : হিজাব বিতর্ক (Hijab Controversy) যেন থামারই নয়। কিছুদিন আগেই মুসলিম মহিলাদের (Muslim Women) হিজাব পরা নিয়ে সুর চড়িয়েছিলেন মুসলিম ধর্মগুরু (Muslim Cleric)। যারা হিজাব পরিধান করছেননা তাদের চরিত্রহীন বলেও কটাক্ষ করেছিলেন তিনি। সেই জল গড়ালো থানা অবধি। সম্প্রতি কেরালা (Kerala) পুলিশের তরফ থেকে একটি এফআইআর লঞ্চ করা হয়েছে ঐ মুসলিম ধর্মগুরুর বিরুদ্ধে।

   

প্রসঙ্গত উল্লেখ্য, গত বছরের অক্টোবরে কেরালার একটি টিভি চ্যানেলে উপস্থিত হয়েছিলেন সুন্নি ধর্মীয় নেতা মুক্কাম উমর ফাইজি। কথাপ্রসঙ্গে উঠে আসে হিজাবের কথা। তখনই তিনি বলেন, যে সব মহিলারা হিজাব পরেননা তারা সব চরিত্রহীন। তার এই মন্ত্যবের পরেই গোটা দেশজুড়ে ওঠে নিন্দার ঝড়।

চারিদিক থেকে আসতে থাকে অভিযোগ। কেরালার প্রগতিশীল মুসলিম নারী ফোরাম নিসার সভাপতি ভিপি সুহরা তো একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন। আর এবার সেই অভিযোগকে সামনে রেখেই নতুন করে এফআইআর দায়ের করেছে কেরালা পুলিশ। সূত্রের খবর, ভারতীয় দণ্ডবিধির ২৯৫ এবং ২৯৮ ধারায় একটি মামলা করা হয়েছে।

আরও পড়ুন : ইতিহাস! রাতের অন্ধকারে কার্গিলে যুদ্ধ বিমানের ল্যান্ডিং, পাকিস্তানের বুক কাঁপিয়ে বড় পদক্ষেপ ভারতের

এই ঘটনার সূত্রপাত হয় সিপিআইএম নেতা কে অনিল কুমারের একটি বক্তব্যকে ঘিরে। গত বছরের অক্টোবরে কেরালায় একটি সেমিনারে উপস্থিত হয়েছিলেন তিনি। সেখানেই উঠে আসে ইউনিফর্ম সিভিল কোডের প্রসঙ্গ। সেখানে তিনি বলেন, হালফিলের সময়ে মালাপ্পুরমের মহিলারা আর হিজাব পরেননা। এবং এই বিষয়টাকে বেশ ভালো চোখেই দেখেছিলেন তিনি। সেই সাথে তার পর্যবেক্ষণ, কমিউনিস্ট পার্টির প্রভাবেই এই পরিবর্তন সম্ভব হয়েছে।

আরও পড়ুন : মোদীর লাক্ষাদ্বীপ ভ্রমণের জেরে ‘উপহাস’ ভারতীয়দের! এবার চরম বিপাকে মালদ্বীপের নেতা

যদিও অনিল কুমারের এই মন্তব্যকে সমর্থন করেননি সাংসদ এমএম আরিফ। সিপিআইএমের রাজ্য সম্পাদক তথা পলিটব্যুরো সদস্য এমভি গোবিন্দন জানিয়েছিলেন, এই মন্তব্য দলের নয়। মানুষের পোশাক আশাক একান্তই ব্যক্তিগত বিষয়। সেই বিষয়ে রাজনৈতিক মতামত থাকতে পারেনা। এইসব বিতর্কের মাঝেই কেরালার একটি অনুষ্ঠানে মুসলিম ধর্মগুরু উমর ফাইজি বলেন, যে নারীরা হিজাব পরেননা তারা চরিত্রহীন।