আচমকাই ৩০০ ভারতীয় যাত্রী সহ গোটা বিমান ঘিরে ফেলা হল ফ্রান্সে! কারণ কী? সামনে আসতেই তোলপাড়

বাংলা হান্ট ডেস্ক : একজন বা দুজন নয়, ৩০০-র বেশি ভারতীয়কে (India) আটকানো হল ফ্রান্সে (France)। আরব আমিরশাহি (Arab Amirsahhi) থেকে নিকারাগুয়া দিকে যাচ্ছিল প্লেনটি। এই প্লেনে ৩০০-র বেশি ভারতীয় নাগরিক ছিলেন। এই প্লেনে ‘মানব পাচার’ চক্রের যোগ রয়েছে বলে সন্দেহ করছে ফ্রান্স। এই কারণেই ফ্রান্স প্লেনটিকে আটক করে।

   

মিডিয়া সূত্রে খবর, ৩০০জন ভারতীয় নাগরিক ছিলেন এই প্লেনে। আরব আমিরশাহী থেকে নিকারাগুয়ার (Nicaragua) উদ্দেশ্যে রওনা দিয়েছিলো এই প্লেনটি। কিছু সমস্যার জন্য প্লেনটি ভাত্রি এয়ারপোর্টে (Vatri Airpot) নেমেছিল। ঠিক তখনই পুলিশ প্লেনটিকে ঘিরে ফেলে।

প্রথমদিকে যাত্রীরা প্লেনের মধ্যেই ছিলেন। পরে অ্য়ারাইভাল লাউঞ্জে (Arrival Lounge) যাত্রীদের নিয়ে আসা হয়। সেখানেই তাদের থাকার ব্যবস্থা করা হয়। যতটা সম্ভব তাদের সমস্যা না হয় সেই চেষ্টায় করেছেন ফ্রান্সের পুলিশ। তারপরেই বিষয়টি নিয়ে তদন্ত শুরু হয়েছে।

মিডিয়া রিপোর্ট অনুযায়ী, এই প্লেনটি রোমানিয়ার চার্টার কোম্পানি লেজেন্ট এয়ারলিন্সের (Romania Charter Company Legent Airlines) প্লেন। এই প্লেনটির প্রতি সন্দেহ জাগায় সেটিকে আটকানো হয়। একাধিক ভারতীয় নাগরিককে বিমানবন্দরেই রাখা হয়েছে। ‘মানব পাচার’ বিষয়টি নিয়ে পুলিশ তদন্ত চালাচ্ছে।

পুলিশ তদন্তে জানাগেছে, এই প্লেনের যাত্রীদের মধ্যে কয়েকজন অবৈধভাবে ওই দেশে যাচ্ছিলেন। ফ্রান্সের সংগঠিত ন্যাশনাল অ্যান্টি অর্গানাইজড ক্রাইম ইউনিট JUNALCO (National Anti Organized Crime Unit) এই তদন্তে নেমেছে।

এরকম ঘটনার ক্ষেত্রে ফ্রান্স বিদেশি নাগরিকদের আটকে রাখতে পারেন। সেখানে সর্বোচ্চ ২৬ দিন পর্যন্ত আটকে রাখার বিধি রয়েছে। তবে প্লেনে থাকা ভারতীয়দের দেশে ফেরানো নিয়ে এখনও ধন্দ চলছে।