বাংলার আকাশে কালো মেঘ, বৃষ্টির সম্ভাবনা উত্তরে! কেমন থাকবে দক্ষিণবঙ্গ? IMD আপডেট

বাংলা হান্ট ডেস্ক : ঘূর্ণিঝড়ের (Cyclone) জেরে শীতের আবহেই একবার তাণ্ডব শুরু করতে চলেছে বৃষ্টি (Rain)। মৌসম ভবন জানিয়েছে, ফের একবার অকাল বৃষ্টি দেখবে দেশের একাধিক রাজ্য। গুজরাট সহ একাধিক রাজ্য ইতিমধ্যেই দেখেছে শিলাবৃষ্টির দাপট। পাশাপাশি মৌসম ভবন আইএমডির (India Meteorological Department) রিপোর্ট, আপাতত অন্ধ্রে এর প্রভাব বেশি পড়বে বলে জানিয়েছে হাওয়া অফিস (Weather)।

   

bengal rains 1632570943

শিলাবৃষ্টিতে ভাসছে গুজরাট

আসলে নিম্নচাপের অভিমুখ মূলত পশ্চিম ও উত্তর পশ্চিম দিকে থাকায় এর প্রভাব পড়েছে গুজরাট এবং মধ্যপ্রদেশেও। রবিবার প্রবল বৃষ্টির তাণ্ডব চলেছে গুজরাট (Gujrat) সহ একাধিক রাজ্যে। শিলাবৃষ্টির সাথে প্রবল বজ্রপাতে কমপক্ষে ১৪ জনের মৃত্যু হয়েছে গুজরাটে। এমন পরিস্থিতিতে বাংলার আবহাওয়া কেমন থাকবে?

বৃষ্টিতে ভিজবে উত্তরবঙ্গ

মৌসম ভবনের খবর, আগামী কয়েকদিনেই উত্তরবঙ্গ ও দক্ষিণবঙ্গ ২ জায়গাতেই মূলত শুষ্ক আবহাওয়া থাকবে। দক্ষিণবঙ্গে বৃষ্টিপাতের কোনও সম্ভাবনা নেই বলেই জানাচ্ছে হাওয়া অফিস। তবে আগামিকাল উত্তরবঙ্গের পাহাড়ি অঞ্চল দার্জিলিং এবং কালিম্পংয়ের মাটি হালকা বৃষ্টির স্বাদ পেলেও পেতে পারে। এছাড়া গোটা বাংলায় আগামি ৫দিন বৃষ্টিপাতের পূর্বাভাস নেই।

আরও পড়ুন : আরও কদর বাড়ল ভারতীয় পাসপোর্টের, এবার ভিসা ছাড়াই ঘুরতে পারবেন এই দেশ! হল বিরাট ঘোষণা

কলকাতার আকাশে কালো মেঘ

রাজধানী কলকাতার কথা বললে, আগামি ২৪ ঘন্টায় আকাশ আংশিক মেঘলা থাকার সম্ভাবনা রয়েছে। তিলোত্তমা নগরীর সর্বোচ্চ তাপমাত্রা থাকবে প্রায় ২৮ ডিগ্রি। সর্বনিম্ন তাপমাত্রা থাকবে ২০ ডিগ্রির কাছাকাছি। তবে মধ্যপ্রদেশের উপর যে ঘূর্ণাবর্তটি রয়েছে তার প্রভাবে উত্তরবঙ্গ এবং দক্ষিণবঙ্গে আংশিক মেঘলা আকাশ থাকার সম্ভাবনা প্রবল‌।

আরও পড়ুন : ‘ভারতই বিশ্বগুরু হবে, অন্য দেশের শিক্ষার প্রয়োজন নেই’, ধর্মনিরপেক্ষতা নিয়ে স্পষ্ট কথা মোহন ভাগবতের

কী অবস্থা দক্ষিণবঙ্গের?

অন্যদিকে বাঁকুড়া, পুরুলিয়ার ক্ষেত্রে সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ১৪ ডিগ্রি থেকে ১৫ ডিগ্রির কাছাকাছি থাকবে। তবে আবহাওয়া দফতরের পূর্বাভাস, আগামী দু একদিনের মধ্যে তাপমাত্রা ১ থেকে ২ ডিগ্রি বাড়ার সম্ভাবনা প্রবল। অন্যদিকে দক্ষিণ আন্দামানের উপর একটি নিম্নচাপ তৈরি হয়েছে আজ। আগামী ২৯ তারিখের মধ্যে এই নিম্নচাপটিও গভীর নিম্নচাপে পরিণত হবে বলে খবর। যদিও এর অভিমুখ কোনদিকে হবে, তা এখন-ই স্পষ্ট নয়।