গ্ৰুপ C, গ্ৰুপ D-র জন্য চাকরির সুযোগ! এই বিশেষ পড়ুয়ারা পাবে IIT-র প্রশিক্ষণ, বিরাট সিদ্ধান্ত মমতার

   

বাংলা হান্ট ডেস্কঃ দেশ হোক বা রাজ্য, দিন দিন লাফিয়ে বাড়ছে শিক্ষিত বেকারের সংখ্যা। এক চাকরি জোটাতে রাত দিন এক করে চেষ্টা চালাচ্ছে নতুন প্রজন্ম। এই আবহেই এবার বড় পদক্ষেপ নিল রাজ্য সরকার (Government of West Bengal)। নতুন বছর থেকেই গ্রুপ সি-গ্রুপ ডি (Training Course For Group C D Job Aspirants) চাকরিপ্রার্থীদের জন্য থাকছে সুবর্ণ সুযোগ।

গ্রুপ সি-গ্রুপ ডি চাকরির ক্ষেত্রে উত্তীর্ণ হওয়ার জন্য জানুয়ারি মাস থেকে প্রশিক্ষণের ব্যবস্থা করছে রাজ্য সরকার। শুধু তাই নয় এবার থেকে তফসিলি সম্প্রদায়ের পড়ুয়াদের উচ্চশিক্ষায় (Higher Study) সাহায্য করার জন্য এবার নয়া পদক্ষেপ নিল রাজ্য।

প্রসঙ্গত, ক্ষমতায় আসার পর থেকেই নতুন প্রজন্মকে এগিয়ে দিতে একাধিক পদক্ষেপ করেছে মমতা সরকার। মাননীয়া মুখ্যমন্ত্রীর উদ্যোগে চালু হয়েছে বহু প্রকল্প। আর এবার চাকরি হোক বা উচ্চশিক্ষা, দুই ক্ষেত্রেই প্রশিক্ষণের ব্যবস্থা করে নজির গড়ল রাজ্য সরকার।

নবান্ন সূত্রে জানা যাচ্ছে, তফসিলি জাতি ও উপজাতির পড়ুয়ারা যাতে IIT-র মতো শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে সুযোগ পেতে পারে সেই কারণে তাদের বিশেষ প্রশিক্ষণের ব্যবস্থা করবে সরকার। নতুন বছরের জানুয়ারি মাস থেকেই এই প্রশিক্ষণ চালু করা হবে বলে জানা যাচ্ছে।

আরও পড়ুন: পরীক্ষা কেন্দ্রের কর্মীদেরই হাত? কিভাবে ফাঁস হল TET-র প্রশ্নপত্র! পর্ষদ সভাপতির কথায় শোরগোল

যোগ্যতা ও আবেদন পদ্ধতি : জানিয়ে রাখি, মাধ্যমিক পরীক্ষা পাশ করার পর একাদশ শ্রেণিতে উঠলেই পড়ুয়ারা রাজ্য সরকারের এই প্রশিক্ষণের জন্য আবেদন করতে পারবেন। প্ৰতি বছর এই কোর্সে পড়ার সুযোগ পাবেন প্রায় দুই হাজার তফশিলি পড়ুয়া। বিশেষ সংস্থা দ্বারা উচ্চমানের প্রশিক্ষণ দেওয়া হবে তাদের।

nabanna

প্রসঙ্গত, পূর্বে প্রায় ২৮০০ জনের বেশি পড়ুয়াকে প্রশিক্ষণ দিয়েছিল রাজ্য। এদের মধ্যে অধিকাংশ পড়ুয়াই উচ্চ মাধ্যমিক পাশ করার পর বিভিন্ন নামকরা প্রতিষ্ঠানে পড়াশোনার সুযোগ পেয়েছে। এবার সেই সময়সীমা বাড়িয়ে দুই বছর করার লক্ষ্যে সরকার। এতে পড়ুয়াদের বাড়তি অনেক সুযোগ-সুবিধা হবে বলে মনে করা হচ্ছে। সব ঠিকঠাক চললে রাজ্য সরকার এই পদক্ষেপের মাধ্যমে তফশিলি পড়ুয়াদের নয়া আলোর দিশা দেখাবে।

Sharmi Dhar
Sharmi Dhar

শর্মি ধর, বাংলা হান্ট এর রাজনৈতিক কনটেন্ট রাইটার। উত্তরবঙ্গ বিশ্ববিদ্যালয় থেকে সাংবাদিকতায় স্নাতকোত্তর। বিগত ৩ বছর ধরে সাংবাদিকতা পেশার সঙ্গে যুক্ত ।

সম্পর্কিত খবর