নজিরবিহীন! তৃণমূলেরই ‘বেআইনি’ ধরনা তুলে দিল পুলিশ, বিচারপতি মান্থা হেসে বললেন, ‘ভালো….’

বাংলা হান্ট ডেস্কঃ কোনও অনুমতি ছাড়াই চলছিল শাসকদল তৃণমূলের (Trinamool Congress) ধরনা। তাও আবার বিজেপির (BJP) সভার সামনে। দু’দিন ধরে তৃণমূল ধরনা কর্মসূচি চলার পর শুক্রবার সেই ধরনা মঞ্চ সরিয়ে দিল পুলিশ। ঘটনাটি ঘটেছে হলদিয়া হেলিপ্যাড গ্রাউন্ডে। সেখানে বিপ্লবী সতীশ সামন্তের জন্মদিন পালনে সভার আয়োজন করেছিল গেরুয়া শিবির। ওদিকে সেই সভার সামনেই কোনও অনুমতি ছাড়া ধরনায় বসে তৃণমূল। ‘নজিরবিহীন’ ভাবে তৃণমূলের ওই মঞ্চ সরিয়ে দেয় পুলিশ। আর তারপরই ঘটনা গেল হাই কোর্টে।

   

গতকাল শুক্রবার এই মামলাটি ওঠে কলকাতা হাই কোর্টের বিচারপতি রাজা শেখর মান্থার (Justice Rajasekhar Mantha) এজলাসে। মামলাকারীকে উদ্দেশ্য করে বিচারপতি বলেন, ‘আমরা সব সময়ই বলছি সব দলের সভা, সমিতি, ধরনার অধিকার রয়েছে। কিন্তু, অনুমতি ব্যতিত নয়। সব রকমের অনুমতি নিয়েই তা করতে হবে।’

এদিকে রাজ্যের তরফে আইনজীবী বলেন, ‘কোনও অনুমতি ছাড়াই ধরনা কর্মসূচী চলাচ্ছিল তৃণমূল। আমি ব্যাক্তিগত ভাবে পুলিশ সুপারের সঙ্গে কথা বলেছি। সকাল থেকেই পুলিশ পদক্ষেপ শুরু হয়েছে। সুপার নিজে গিয়ে সমস্ত বিষয় দেখছেন।’

আরও পড়ুন: ‘আমার নয় ওটা…, কংগ্রেসের সঙ্গে…’, ৩৫৩ কোটি নগদ উদ্ধারের পর চমকে দেওয়া সাফাই ধীরজের

সব শুনে বিচারপতি মান্থা বলেন, ‘অনুমতি ছাড়াই এটা করছে!! এক্ষেত্রে পুলিশকে সিদ্ধান্ত নিতেই হবে। যা যা পদক্ষেপ করার করতে হবে। একই জায়গায় অন্য দলকে অনুমতি দিলে আইন শৃঙ্খলা নিয়ে সমস্যা দেখা দিতে পারে। যাতে বেআইনি কিছু না হয়ে রাজ্য পুলিশকেই CISF এর সাথে সেই বিষয়ে নজর রাখতে হবে।’

tmc highcourt

রাজ্য তরফেও জানানো হয়, সমস্ত ব্যবস্থা আইন মেনেই নেওয়া হচ্ছে। একথা শুনে খুশি হন বিচারপতি। মুখে হাসি নিয়ে বিচারপতি বলেন, ‘বহু বছর পর দেখলাম রাজ্য এই ধরনের ব্যবস্থা নিয়েছে। ভালো লাগল।’