ক্লাস ফাঁকি দিয়ে স্কুল ছুটের দিন শেষ! কড়া ব্যবস্থা নিচ্ছে রাজ্য সরকার, কবে থেকে শুরু নতুন নিয়ম?

   

বাংলাহান্ট ডেস্ক : প্রত্যেকটি মানুষের জীবনে স্কুলের গুরুত্ব অপরিসীম। জীবনের প্রথম আঠারোটা বছর আমাদের কাটে স্কুলে। এই স্কুলেই তৈরি হয় আমাদের শিক্ষাজীবনের ভিত। আজকাল প্রত্যেক বাবা-মায়ের স্বপ্ন থাকে নিজের সন্তানকে ভালো স্কুলে পড়ানোর। সর্বক্ষেত্রেই আজকাল প্রতিযোগিতা চূড়ান্ত পর্যায়ে পৌঁছেছে।

তাই প্রত্যেকেই চাইছেন তাদের সন্তানকে সেরা শিক্ষা দিয়ে পাঁচজনের একজন করে তুলতে। তবে প্রত্যেক বাবা-মায়ের নিয়মিত সন্তানের পড়াশুনা বা স্কুল যাওয়া সম্পর্কে নজর রাখা সম্ভব হয় না। অনেক সন্তান সেই সুযোগ নিয়ে বিভিন্ন অপকর্ম করে থাকে। তবে আপনার সন্তান নিয়মিত স্কুলে (School) যাচ্ছে কিনা সেই বিষয়ে এবার আপনি খুব সহজেই জানতে পারবেন।

আরোও পড়ুন : তিনটি শহর বাংলা থেকেই! সবচেয়ে দূষিতদের তালিকায় ফার্স্ট পাটনা, জানেন কলকাতা কত নম্বরে?

অনেক সময় স্কুলে যাওয়ার নাম করে ছেলেমেয়েরা বন্ধুদের সাথে ঘুরতে বা অন্য কোথাও চলে যায়। বাবা-মায়েরা এই ভেবে নিশ্চিন্তে থাকেন যে তাদের ছেলেমেয়েরা হয়ত স্কুলেই গেছে পড়াশোনা করতে। তবে অনেক ক্ষেত্রেই দেখা যায় এর উল্টো চিত্র। এবার পশ্চিমবঙ্গ সরকার অনেক দিক বিবেচনা করে একটি নতুন প্রক্রিয়া আনতে চলেছে।

আরোও পড়ুন : চরম খারাপ খবর! একধাক্কায় এত টাকা বাড়বে মোবাইল রিচার্জ, দেখুন কোন সিমে কত এক্সট্রা পড়বে

পশ্চিমবঙ্গ সরকারের West Bengal Government) এই উদ্যোগের ফলে এবার আরো খানিকটা নিশ্চিন্ত হবেন অভিভাবকরা। এবার থেকে ডিজিটাল অ্যাটেনডেন্স প্রক্রিয়া শুরু হবে রাজ্যের স্কুলগুলিতে। QR কোড অ্যাটেন্ডেন্স পদ্ধতিতে রাজ্যের স্কুলগুলিতে হাজিরা প্রক্রিয়া চালু হবে। এই পদ্ধতির মাধ্যমে অভিভাবকরা খুব সহজেই জানতে পারবেন যে তাদের বাড়ির ছেলেমেয়ে স্কুলে গেছে কিনা।

এই নতুন পদ্ধতির মাধ্যমে পড়ুয়ারা স্কুলে ঢুকলে ও স্কুল থেকে বেরোলে অভিভাবকরা এসএমএসের মাধ্যমে পেয়ে যাবেন সেই তথ্য। রাজ্যের বিভিন্ন সরকারি ও সরকারি সাহায্যপ্রাপ্ত স্কুলগুলিতে এই প্রক্রিয়াই চালু হতে চলেছে। ডিজিটাল অ্যাটেনডেন্স-এর মাধ্যমে স্কুলের কাছে থাকবে পড়ুয়াদের হাজিরার রেকর্ড।

WP LastImage 800x533 1

আইডেন্টি কার্ড স্ক্যান করাতে হবে স্কুলে ঢোকার ও বেরোনোর মুহূর্তে। সেই কিউআর স্ক্যান করলেই তথ্য চলে যাবে অভিভাবকদের কাছে। ইতিমধ্যেই ডিজিটাল অ্যাটেনডেন্স প্রক্রিয়া শুরু হয়েছে নদিয়া, দক্ষিণ ২৪ পরগনার সুন্দরবন, হাওড়ার বেশ কিছু স্কুলে। সাম্প্রতিক কালে ডিজিটাল অ্যাটেনডেন্স পদ্ধতি শুরু করা হয়েছে কলকাতার সরকারি স্কুল যাদবপুর বিদ্যাপীঠে।

শিক্ষা দপ্তর এর আগে রাজ্যের সমস্ত স্কুলে ইন্টারনেট সংযোগের উদ্যোগ নেয়। রাজ্যের সমস্ত স্কুলে ইন্টারনেট পরিষেবা চালু হয়ে গেলে এই QR কোড ভিত্তিক ডিজিটাল অ্যাটেনডেন্স প্রক্রিয়া চালু হয়ে যাবে। সময়ের সাথে সাথে পড়ুয়াদের সুরক্ষার জন্য নানান পদ্ধতি আসছে। এই নতুন অ্যাটেনডেন্স সিস্টেম কতখানি কার্যকারী হবে তার বলাই বাহুল্য।

Avatar
Soumita

আমি সৌমিতা। বিগত ৩ বছর ধরে কর্মরত ডিজিটাল সংবাদমাধ্যমে। রাজনীতি থেকে শুরু করে ভ্রমণ, ভাইরাল তথ্য থেকে শুরু করে বিনোদন, পাঠকের কাছে নির্ভুল খবর পৌঁছে দেওয়াই আমার একমাত্র লক্ষ্য।

সম্পর্কিত খবর